বৃহস্পতিবার-২১শে নভেম্বর, ২০১৯ ইং-৬ই অগ্রহায়ণ, ১৪২৬ বঙ্গাব্দ, সময়: সকাল ১১:২২, English Version
বাজার অস্থিতিশীলকারীদের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নেয়া হবে -রমেশ চন্দ্র সেন গোবিন্দগঞ্জে আগ্নিকান্ডে ৩০০ দোকান পুড়ে ছাই পরিবহন ধর্মঘটের প্রভাব পড়েছে হিলি স্থলবন্দরে গোবিন্দগঞ্জে ট্রাকে ঝরল বৃদ্ধের প্রাণ রুদ্ধদ্বার বৈঠক : স্বরাষ্ট্রমন্ত্রীর আশ্বাসে সড়কে ধর্মঘট প্রত্যাহার পলাশবাড়ীতে বাস থেকে পড়ে হেলপারের মৃত্যু ক্রেডিট কার্ড: গ্রাহকরা কী করতে পারেন, কী পারেন না

জয়পুরহাট হানাদার মুক্ত দিবস আজ

প্রকাশ: শুক্রবার, ১৪ ডিসেম্বর, ২০১৮ , ৫:১৭ পূর্বাহ্ণ , বিভাগ : রাজশাহী,সারাদেশ,

মুক্তিনিউজ২৪.কম ডেস্ক:  আজ ১৪ ডিসেম্বর, জয়পুরহাট হানাদার মুক্ত দিবস। ১৯৭১ সালের এই দিনে জয়পুরহাট জেলা শত্রুমুক্ত হয়। পত পত করে সে দিন মুক্ত আকাশে উড়েছিল পরম আরাধ্য মহান স্বাধীনতার বিজয় পতাকা।

৭১’ এর ১৪ ডিসেম্বর শীতের কুয়াশায় মোড়া নতুন সূর্য ওঠা ভোরের আলোয় জয়পুরহাটের পাঁচবিবি উপজেলার ভূঁইডোবা সীমান্ত অতিক্রম করে দেড় শতাধিক মুক্তিযোদ্ধার দল। যাঁদের নেতৃত্ব দেন মুক্তিযোদ্ধা কমান্ডার প্রয়াত বাঘা বাবলু। তার আগেই পরাজয়ের গ্লানি নিয়ে জেলা সীমানা ছেড়ে পালিয়ে যায় পাক হানাদাররা। মুক্তিযোদ্ধাদের দলটি দুই ভাগে বিভক্ত হয়ে বীর মুক্তিযোদ্ধা (প্রয়াত) আব্দুল মোতালেবের নেতৃত্বে পাঁচবিবি উপজেলা সদরে পৌঁছে পুলিশ ষ্টেশনে (থানায়) প্রথম স্বাধীন বাংলার পতাকা উড়িয়ে দেন। অন্যদিকে পায়ে হেঁটে বিকেলে জয়পুরহাট জেলা শহরে পৌঁছে ‘পুরনো ডাক বাংলো’ চত্বরে মুক্তিযোদ্ধা কমান্ডার (প্রয়াত) বাঘা বাবলু স্বাধীন বাংলার পতাকা উড়ান।

জয়পুরহাট জেলাকে হানাদার মুক্ত করতে যে অকুতভয় সূর্য সন্তানেরা তাদের স্মরণে আত্ম উৎসর্গ করেছিলেন। পরে শহরের শহীদ ডা.আবুল কাশেম ময়দানে নির্মাণ করা হয় ৭১ফুট উচ্চতা সম্বলিত ‘মুক্তিযুদ্ধের স্মৃতিসৌধ’। এ ছাড়াও পরবর্তীতে জেলা প্রশাসন চত্বরে স্থাপন করা হয় মুক্তিযোদ্ধা স্মৃতি স্তম্ভ।

দিবসটি উপলক্ষে আজ শুক্রবার সকাল থেকে দিনব্যাপি জয়পুরহাট সদর উপজেলার পাগলা দেওয়ান, কড়ই-কাদিপুর সহ পাঁচবিবি ও আক্কেলপুর উপজেলার বধ্যভূমিগুলোতে বিভিন্ন কর্মসূচি পালন করছে জেলা ও সংশ্লিষ্ট উপজেলা প্রশাসন।

আপনার মতামত লিখুন

রাজশাহী,সারাদেশ বিভাগের সর্বোচ্চ পঠিত সংবাদ