রবিবার-২৯শে মার্চ, ২০২০ ইং-১৫ই চৈত্র, ১৪২৬ বঙ্গাব্দ, সময়: বিকাল ৫:১৪, English Version
উমাদিনী ত্রিপুরার মৃত্যুতে প্রধানমন্ত্রীর শোক ডোমার পৌর শহরে চলছে জীবাণু নাশক ছিটানো কার্যক্রম। লালপুরে দুস্থদের মাঝে নিজ উদ্যোগে খাবার সামগ্রী বিতরণ পার্বতীপুরে করোনা ঠেকাতে আদা, লং, কালিজিরার চা খাওয়ার গুজব! চাঁপাইনবাবগঞ্জে খেটে খাওয়া গরীব দুঃখি মানুষের মাঝে চাল বিতরণ শুরু ‘করোনা চিকিৎসায় ২৫০ ভেন্টিলেটর প্রস্তুত’ সংবাদপত্র সংক্রান্ত সকল ধরনের কাজ পরিচালনায় কোনো বাধা নেই

জানুয়ারিতে হচ্ছে না বিশ্ব ইজতেমা

প্রকাশ: শুক্রবার, ১৬ নভেম্বর, ২০১৮ , ৭:১৮ পূর্বাহ্ণ , বিভাগ : জাতীয়,

মুক্তিনিউজ২৪.কম ডেস্ক: আগামী জানুয়ারি মাসে নির্ধারিত সময়ে বিশ্ব ইজতেমা হচ্ছে না। গতকাল বৃহস্পতিবার দুপুরে স্বরাষ্ট্র মন্ত্র্রণালয়ে এক সভায় এ সিদ্ধান্ত হয়। ৩০ ডিসেম্বর অনুষ্ঠেয় জাতীয় নির্বাচনে আইন-শৃঙ্খলা রক্ষাকারী বাহিনী ব্যস্ত থাকবে, সে কারণে জানুয়ারিতে ইজতেমা স্থগিত করা হয়েছে। তবে এবারের ইজতেমা কবে নাগাদ হবে তা-ও নিশ্চিত হওয়া যায়নি।

স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয় সূত্র জানায়, গতকাল দুপুরে স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ে ইজতেমা নিয়ে একটি সভা অনুষ্ঠিত হয়। সেখানে স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের কর্মকর্তারা ছাড়াও আইজিপি ড. মোহাম্মদ জাবেদ পাটোয়ারী, ধর্মসচিব মো. আনিছুর রহমান, ডিএমপি কমিশনার আছাদুজ্জামান মিয়া, ইজতেমা আয়োজনকারী মুরব্বিরা উপস্থিত ছিলেন। সেখানে তাবলিগ জামাতের বিবদমান দুটি গ্রুপের সদস্যরাও ছিলেন। সভায় আগামী জানুয়ারিতে নির্ধারিত সময়ে বিশ্ব ইজতেমা না করার সিদ্ধান্ত হয়। গত রাতে ধর্মসচিব মো. আনিছুর রহমান সাংবাদিকদের জানান, জানুয়ারিতে বিশ্ব ইজতেমা স্থগিত করা হয়েছে।

এদিকে স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের এক কর্মকর্তা কালের কণ্ঠকে জানান, বিশ্ব ইজতেমা নিয়ে দুটি গ্রুপ রয়েছে। তাবলিগ জামাতের মুরব্বি ভারতের মাওলানা মোহাম্মদ সাদ কান্দলভির বিশ্ব ইজতেমায় যোগ দেওয়া নিয়ে তাবলিগ জামাতে দ্বন্দ্ব রয়েছে। এবারও সেই দ্বন্দ্ব সামনে আসতে পারে বলে বৈঠকে আলোচনা হয়। মাওলানা সাদের আগমন নিয়ে আগেও সমস্যা হয়েছে। এসব কারণে তাবলিগ জামাতের ছয়জনের একটি প্রতিনিধিদল ভারতের দেওবন্ধে গিয়ে বিষয়টির মীমাংসা করবেন—এমন সিদ্ধান্ত হয়েছে।

বিশ্ব ইজতেমায় আইন-শৃঙ্খলা রক্ষাকারী বাহিনীর বিপুলসংখ্যক সদস্যকে নিরাপত্তার দায়িত্ব পালন করতে হয়। এবার ডিসেম্বরের শেষে অনুষ্ঠেয় নির্বাচনে ব্যস্ততার পরপরই বিশ্ব ইজতেমায় নিরাপত্তা দেওয়া পুলিশের জন্য কঠিন। এ কারণে ইজতেমা পিছিয়ে দেওয়ার সিদ্ধান্ত হয়।

আপনার মতামত লিখুন

জাতীয় বিভাগের সর্বোচ্চ পঠিত সংবাদ