বুধবার-১৬ই অক্টোবর, ২০১৯ ইং-১লা কার্তিক, ১৪২৬ বঙ্গাব্দ, সময়: দুপুর ১২:৪০
জলে-স্থলে-অন্তরীক্ষে শেখ হাসিনার নেতৃত্বে বাংলাদেশের বিজয়কেতন -তথ্যমন্ত্রী ওমানের বিপক্ষে হকি সিরিজ জিতল বাংলাদেশ ঢাকায় আরো দুই মেট্রো রেল ব্যয় ৯৪ হাজার কোটি টাকা মেহেন্দীগঞ্জে বিদ্রোহী প্রার্থী নির্বাচিত দৃষ্টি প্রতিবন্ধীরা সমাজের বোঝা নয় বরং তারাই হতে পারে দেশের উন্নয়নের সহায়ক ফুলবাড়ীতে বাল্য বিবাহ প্রতিরোধ বিষয়ক ওরিয়েন্টেশেন সভা ॥ ঘুমন্ত তুহিনকে কোলে করে নিয়ে আসেন বাবা, খুন করেন চাচা

নাটের গুরু মন্টু মেম্বর!

প্রকাশ: শনিবার, ২৭ অক্টোবর, ২০১৮ , ৯:৪৯ পূর্বাহ্ণ , বিভাগ : বরিশাল,সারাদেশ,

বরিশাল ব্যুরো:ঝালকাঠির নলছিটি উপজেলার রানাপাশা ইউনিয়নের এক ইউপি সদস্য’র জুলুম অত্যাচারে অতিষ্ট হয়ে পড়েছে এলাকাবাসী।এ ব্যপারে ওই এলাকার সমাজ সেবক ও ৮০ বছরের এক সাবেক ইউপি সদস্য ও প্রবীন আ”লীগ নেতা মো: খলিলুর রহমান আকন গত ২২ অক্টোবর ঝালকাঠি জেলা প্রশাসক,পুলিশ সুপার,র‌্যাব ৮,নলছিটি থানাসহ বিভিন্ন দপ্তরে লিখিত অভিযোগ দায়ের করেছেন।অভিযোগ সূত্রে জানাগেছে,রানাপাশা ইউনিয়নের ৬ নং ওয়ার্ডের বর্তমান ইউপি সদস্য মো: সাইদুল ইসলাম (মন্টু)প্রতি বছর সরকারের ভাবমূর্তি নষ্ট করে অবৈধভাবে ক্ষমতার অপব্যবহার করে কতিপয় স্থানীয় আওয়ামিলীগ নেতার নাম ভাঙ্গিয়ে নিজেই বিষখালী নদীতে মা ইলিশ শিকার করছে এবং পুলিশের ভয় দেখিয়ে জেলেদের কাছ থেকে মাছ কেড়ে নিয়ে বিক্রি করছে বলে নাম প্রকাশ না করার শর্তে একাধিক জেলে অভিযোগ করছেন। মন্টু মেম্বার নিজে নাটের গুরু সেজে ব্যাপক দুর্নীতি আর একের পর এক লুটতারাজ করে এলাকায় বহুল সমালোচিত হয়েছেন।এর মধ্যে উল্লেখযোগ্য হলো,হদুয়া গ্রামের ঝাহাতলা নামক স্থানের সরকারি রাস্তার প্রায় ৫০ হাজার টাকার গাছ কর্তন করে আতœসাত,প্রতিনিয়ত বিষখালী নদীতে অবৈধ ড্রেজার দিয়ে বালু উর্ত্তলন করে বিক্রি করে সরকারের রাজস্ব ফাকি দিয়ে লক্ষ লক্ষ টাকা হাতিয়ে নিচ্ছে।সরকারি ব্রিজের মালামাল আত্মসাতের পায়তারা,আমরা ব্যাবসায়ীদের মারপিট করে নগদ টাকা ও মোবাইল সেট রাখা সহ বহু অভিযোগ রয়েছে। এসব অভিযোগের সত্যতা স্বীকার করে ৪নং রানাপাশা ইউনিয়নের চেয়ারম্যান মো: মাসুদুর রহমান সালাম বলেন,মন্টুর বিরুদ্বে ইলিশ মাছ ধরাসহ বিভিন্ন মৌখিক অভিযোগ পেয়েছেন এবং ডিসি মহোদয় আমাকে ফোন দিয়ে ওকে মাছ ধরতে নিষেধ করেছেন ।তিনি আরো বলেন অবরোধের প্রথম সপ্তাহে মাছ ধরতো বর্তমানে নিষেধের পর ধরছে না। এসব অভিযোগ জেলা প্রশাসক বরাবরে দেয়ার পরই মন্টু মেম্বর ক্ষিপ্ত হয়ে বাদী মো: খলিলুর রহমান আকন কে ঝাহাতলা বাজারে বসে বেধরক মারধর করে।এবং হত্যা ও বিভিন্ন ভয়ভিতীর হুমকী দেয়। এ ঘঁটনায় খলিল আকন গত ২৫ অক্টোবর নলছিটি থানায় মন্টুর বিরুদ্ধে অভিযোগ এনে একটি সাধারন ডায়েরী করেছে।নলছিাট থানার ডায়েরী নং-৮৩৫।নলছিটি থানার এস.আই.মো: সাইফুল ইসলাম জানান,সাধারন ডায়েরী তদন্ত সাপেক্ষে আইনআনুগ ব্যাবস্থা নেয়া হবে।এ ব্যাপারে মন্টু মেম্বরের সাথে যোগাযোগ করা হলে তিনি জানান,খলিল আকন নির্বাচনে আমার প্রতিদ্ধন্দ্বি প্রার্থী ছিলেন।তিনি পরাজিত হয়ে রাজনৈকি প্রতিহিংসায় আমার বিরুদ্ধে অভিযোগ দিয়ে হয়রানী করছে।তিনি তার বিরুদ্ধে আনিত অভিযোগ সম্পূর্ন অস্বীকার করেন।

আপনার মতামত লিখুন

বরিশাল,সারাদেশ বিভাগের সর্বোচ্চ পঠিত সংবাদ