সোমবার-৩০শে মার্চ, ২০২০ ইং-১৬ই চৈত্র, ১৪২৬ বঙ্গাব্দ, সময়: রাত ১:১৪, English Version
উমাদিনী ত্রিপুরার মৃত্যুতে প্রধানমন্ত্রীর শোক ডোমার পৌর শহরে চলছে জীবাণু নাশক ছিটানো কার্যক্রম। লালপুরে দুস্থদের মাঝে নিজ উদ্যোগে খাবার সামগ্রী বিতরণ পার্বতীপুরে করোনা ঠেকাতে আদা, লং, কালিজিরার চা খাওয়ার গুজব! চাঁপাইনবাবগঞ্জে খেটে খাওয়া গরীব দুঃখি মানুষের মাঝে চাল বিতরণ শুরু ‘করোনা চিকিৎসায় ২৫০ ভেন্টিলেটর প্রস্তুত’ সংবাদপত্র সংক্রান্ত সকল ধরনের কাজ পরিচালনায় কোনো বাধা নেই

আপনার সন্তানকে আরো ক্রিয়েটিভ করে তুলতে চান?

প্রকাশ: রবিবার, ৫ আগস্ট, ২০১৮ , ৭:৫৩ পূর্বাহ্ণ , বিভাগ : লাইফস্টাইল,

মুক্তিনিউজ২৪.কম ডেস্ক: স্কুল থেকে আসার পর মিতিন ওর বাবা মাকে বায়না করে কার্টুন দেখানোর জন্যে। মিতিনের স্কুলের রেজাল্ট বেশ ভালো। কিন্তু স্কুল থেকে আসার পর কার্টুন দেখা ছাড়া তেমন কিছু করার থাকে না। কিন্তু শুধু কার্টুন দেখলে কি ওর মেধার বিকাশ ঠিকমত ঘটবে? চলুন জেনে নেই শিশুর সময় সুন্দরভাবে কাটানোর কিছু বিজ্ঞানসম্মত উপায়।

গড়ে তুলুন নিজেদের পাঠাগার

আপনার পরিবার এবং প্রতিবেশীদের নিয়ে পাঠাগার গড়ে তুলুন। সপ্তাহে অন্তত একটি দিন পাঠাগারের সকল সদস্যদের নিয়ে মিটিং করুন। কি পড়ছেন, কী পড়লেন, কী পড়বেন জানান। বইয়ের থিম, কাহিনী এবং চরিত্রদের নিয়ে আলোচনা করুন। কোন বিশেষ চরিত্র বিশেষ কোন পরিস্থিতিতে কী করেছে এবং সেখানে তারা থাকলে কী করতো জানতে চাইতে পারেন\

বিশেষ দিনগুলি উদযাপন করুন

পৃথিবীতে প্রতিনিয়তই নতুন কিছু ঘটছে। প্রতিটা দিনই বিশেষ। এই যেমন ১লা মে শ্রম দিবস, ২১শে ফেব্রুয়ারি আন্তর্জাতিক মাতৃভাষা দিবস ইত্যাদি। মাসের প্রতিটি ছুটি এবং বিশেষ দিবস সম্পর্কে জানুন, এবং শিশুদের জানতে দিন।

ওরা হয়ে উঠুক আর্কিটেক্ট

শিশুদের খেলার জায়গা, শোবার ঘর, রিডিং রুম কীভাবে আরো সুন্দর এবং উজ্জ্বল ভাবে গড়ে তোলা যায় তা নিয়ে আলোচনা করুন এবং তাকে নতুনভাবে, নিজের ইচ্ছেমাফিক জায়গাগুলির ডিজাইন করতে উৎসাহ দিন।

কমিক স্ট্রিপ তৈরি করুন

তাকে পত্রিকার প্রতিদিনকার কমিক স্ট্রিপ পড়তে দিন। সে কী রকম কার্টুন পড়তে পছন্দ করে, এবং কেমন লেখা বা আঁকা তার পছন্দ তা ভালোভাবে পর্যবেক্ষণ করুন। এইবার কাজে নামার পালা! একটি গল্প এবং কিছু চরিত্র তৈরি করুন। কিছু কমিক সিচুয়েশন নিজেই এঁকে নিন। ওদেরও বলুন আঁকতে!

পারিবারিক ব্লগ চালু করুন

ইদানিংকার অনলাইন জগতে ব্লগ একটি অত্যন্ত গুরুত্বপূর্ণ অনুষঙ্গ। ব্লগের কনসেপ্টটা শিশুর মনোজগতে পরিবর্তন আনতে উল্লেখযোগ্য ভূমিকা রাখতে পারে। ব্লগের সবচেয়ে ভালো দিক হচ্ছে, এতে তাৎক্ষণিক প্রতিক্রিয়া পাওয়া যায়।
আপনার শিশুর শৈশব হোক সুন্দর

আপনার মতামত লিখুন

লাইফস্টাইল বিভাগের সর্বোচ্চ পঠিত সংবাদ