রবিবার-২৯শে মার্চ, ২০২০ ইং-১৫ই চৈত্র, ১৪২৬ বঙ্গাব্দ, সময়: বিকাল ৫:০৮, English Version
উমাদিনী ত্রিপুরার মৃত্যুতে প্রধানমন্ত্রীর শোক ডোমার পৌর শহরে চলছে জীবাণু নাশক ছিটানো কার্যক্রম। লালপুরে দুস্থদের মাঝে নিজ উদ্যোগে খাবার সামগ্রী বিতরণ পার্বতীপুরে করোনা ঠেকাতে আদা, লং, কালিজিরার চা খাওয়ার গুজব! চাঁপাইনবাবগঞ্জে খেটে খাওয়া গরীব দুঃখি মানুষের মাঝে চাল বিতরণ শুরু ‘করোনা চিকিৎসায় ২৫০ ভেন্টিলেটর প্রস্তুত’ সংবাদপত্র সংক্রান্ত সকল ধরনের কাজ পরিচালনায় কোনো বাধা নেই

সৈয়দপুরে পৌরসভায় ১ মাস ধরে রাস্তায় জলাবদ্ধতা

প্রকাশ: রবিবার, ২৯ এপ্রিল, ২০১৮ , ১০:০৫ পূর্বাহ্ণ , বিভাগ : রংপুর,সারাদেশ,

মো: জাকির হোসেন, সৈয়দপুর (নীলফামারী) সংবাদদাতা ॥
নীলফামারীর প্রথম শ্রেণীর সৈয়দপুর পৌরসভার ৫ নং ওয়ার্ড তথা মুন্সিপাড়া এলাকাবাসী জলজটে নাকাল হয়ে পড়েছে। গত ১ মাস ধরে ওই এলাকার চলাচলের প্রধান রাস্তাটিতে বৃষ্টির পানি হাটু পরিমান জমাট বেঁধে থাকায় চলাচলে চরম দূরাবস্থায় দিনাতিপাত করছেন তারা। নোংরা পানি, আবর্জনায় একাকার বাসা ও রাস্তার পরিবেশ দূষণ ঘটায় দেখা দিয়েছে নানা রোগ ব্যাধী। পৌর কর্তৃপক্ষসহ কেউই এ বিষয়ে ভ্রুক্ষেপ না করায় এলাকাবাসীর দূর্ভোগ ক্রমেই বেড়ে চলেছে।
এলাকাটিতে সৈয়দপুরের একমাত্র মহিলা ডিগ্রি কলেজ, ইসলামিয়া সরকারী প্রাথমিক বিদ্যালয় ও ইসলামিয়া উচ্চ বিদ্যালয় অবস্থিত। এসব শিক্ষা প্রতিষ্ঠান, মসজিদ, বাজারে যাতায়াতে ময়লাযুক্ত পানি মাড়িয়ে চলাচল করতে হচ্ছে এলাকাবাসীকে। আবর্জনার দূর্গন্ধে বসবাস করাই দূরহ হয়ে পড়েছে।

এলাকার আব্দুল কুদ্দুস, আবুল কালাম আজাদ, তৌসিফ সরকার প্রমুখ অভিযোগ করেন, আমাদের চলাচলের এই রাস্তাটি অত্যন্ত গুরুত্বপূর্ণ। দীর্ঘ দিন থেকেই এ রাস্তাটি চলাচলের অযোগ্য হয়ে পড়েছে। প্রায়ই সামান্য বৃষ্টি হলে বা ড্রেনের উপচেপড়া পানিতে তলিয়ে যায়। ফলে জলাবদ্ধতা সৃষ্টি হয়। গত ১ মাস থেকে বৃষ্টির পানি জমে যাতায়াতে দূর্ভোগ দেখা দিয়েছে। ছেলে মেয়েরা স্কুল-কলেজে যেতে পারছেনা। মুসল্লিরা মসজিদে যেতে গিয়ে নোংরা পানিতে নামতে হচ্ছে। দূর্গন্ধে টেকা দায় হয়ে পড়েছে।
বর্ষা শুরু না হতেই এ অবস্থা। বর্ষা শুরু হলে যে কি হবে তা ভেবেই আতকে উঠতে হচ্ছে আমাদের। এক কথায় স্বাভাবিক জীবন যাপন অসম্ভব হয়ে পড়েছে। এ ব্যাপারে ওয়ার্ড কাউন্সিলর ও পৌর কর্তৃপক্ষকে বার বার জানানো সত্বেও কোন গুরুত্ব না দেয়ায় ভোগান্তি দীর্ঘস্থায়ী রূপ নিয়েছে। অথচ পৌর কর্তৃপক্ষ থেকে বার বার প্রচার করা হচ্ছে সৈয়দপুরে ব্যাপক উন্নয়ন করা হয়েছে। কিন্তু বাস্তবে নাম মাত্র প্রথম শ্রেণীর পৌরসভা। তার জ¦লন্ত দৃষ্টান্ত এই রাস্তাটি।
ওয়ার্ড কাউন্সিলর শেখ মোহন বলেন, পৌরসভা যা সামান্য অর্থ তা ওয়ার্ড ভিত্তিক ভাগ হয়ে যায়। যেটুকু আমি পেয়েছি তা দিয়ে কাজ করার চেষ্টা করছি। ইতোমধ্যে রাস্তাটির সংস্কারের জন্য টেন্ডার হয়েছে। আগামী মাসের মধ্যে কাজ শুরু করা হবে।

আপনার মতামত লিখুন

রংপুর,সারাদেশ বিভাগের সর্বোচ্চ পঠিত সংবাদ