সোমবার-৩০শে মার্চ, ২০২০ ইং-১৬ই চৈত্র, ১৪২৬ বঙ্গাব্দ, সময়: ভোর ৫:৫২, English Version
উমাদিনী ত্রিপুরার মৃত্যুতে প্রধানমন্ত্রীর শোক ডোমার পৌর শহরে চলছে জীবাণু নাশক ছিটানো কার্যক্রম। লালপুরে দুস্থদের মাঝে নিজ উদ্যোগে খাবার সামগ্রী বিতরণ পার্বতীপুরে করোনা ঠেকাতে আদা, লং, কালিজিরার চা খাওয়ার গুজব! চাঁপাইনবাবগঞ্জে খেটে খাওয়া গরীব দুঃখি মানুষের মাঝে চাল বিতরণ শুরু ‘করোনা চিকিৎসায় ২৫০ ভেন্টিলেটর প্রস্তুত’ সংবাদপত্র সংক্রান্ত সকল ধরনের কাজ পরিচালনায় কোনো বাধা নেই

দিনাজপুরের মধ্যপাড়া পাথর খনিতে তিন শিফটে প্রতিদিন পাথর উত্তোলন

খনিতে আধুনিক যন্ত্রপাতি ব্যাবহার করে চার হাজার টন পাথর উত্তোলন শুরু

প্রকাশ: শুক্রবার, ২ ফেব্রুয়ারি, ২০১৮ , ২:৩০ অপরাহ্ণ , বিভাগ : রংপুর,সারাদেশ,

মো: আফজাল হোসেন ফুলবাড়ী (দিনাজপুর) প্রতিনিধি
দেশের উত্তরআঞ্চলের দিনাজপুরের মধ্যপাড়া কঠিনশিলা পাথর খনিতে আধুনিক যন্ত্রপাতি ব্যাবহার করে চার হাজার টন পাথর উত্তোলন শুরু করেছে বেসরকারী ঠিকাদারী প্রতিষ্ঠান জার্মানীয়া-ট্রেষ্ট কনসোর্টিয়াম (জিটিসি) দ্বারা নির্মিত নতুন স্টোপ থেকে ৩ শিফটে পাথর উত্তোলন দিন দিন বাড়ছে। দুই দিনের ব্যবধানে পাথর উত্তোলন ১ হাজার টন বেড়ে প্রায় ৪ হাজার টনে দাড়িয়েছে।
মধ্যপাড়া খনি সুত্রে জানা গেছে, গত ১ ফেব্রুয়ারী ( বৃহস্পতিবার) তিন শিফটে পাথর উত্তোলন হয়েছে প্রায় ৪ হাজার মেট্রিক টন। গত মঙ্গলবার থেকে দুই দিনের ব্যবধানে পাথর উত্তোলন বেড়েছে ১ হাজার মেট্রিক টন।
অত্যাধুনিক ও বিশ্বমানের বিদেশী মেশিনারিজ ও যন্ত্রাংশ আমদানী করে খনির ভ-ুগর্ভে স্থাপন সহ বিভিন্ন ধরনের প্রতিকুলতার মধ্যেও বেসরকারী ঠিকাদারী প্রতিষ্ঠান জিটিসি অতি দ্রুততার সাথে নতুন স্টোপ নির্মান ও খনি উন্নয়ন করে সফলতার সাথে তিন শিফটে পাথর উত্তোলন করছে এবং দিন দিন পাথর উত্তোলন বৃদ্ধি পাচ্ছে। জিটিসি’র পাথর উত্তোলন এভাবে বাড়তে থাকলে তারা উৎপাদনের লক্ষ্যমাত্রা পুরনে সক্ষম হবে বলেও সুত্রটি আশা করছেন। যা পাথর খনির উৎপাদনে হবে নতুন ইতিহাস।
জানা গেছে, মধ্যপাড়া পাথর খনির উন্নয়ন ও পাথর উত্তোলনে পাথর খনির ঠিকাদারী প্রতিষ্টান জার্মানীয়া-ট্রেষ্ট কনসোর্টিয়াম (জিটিসি) এর অধীনে অধীনে প্রায় ৭ শত জন খনি শ্রমিক, প্রায় ৭০ জন রাশিয়ান ও বেলারুশিয়ান খনি বিশেষজ্ঞ এবং অর্ধশতাধিক দেশী প্রকৌশলী দিনে ও রাতে ৩ শিফটে খনি উন্নয়ন ও পাথর উত্তোলন কাজ চালিয়ে যাচ্ছেন। বর্তমানে প্রতিদিন পাথর উত্তোলন তিন হাজার টন ছাড়িয়েছে এবং উত্তোলনের পরিমান দিন দিন বাড়বে বলে ঠিকাদারী প্রতিষ্ঠান জিটিসি জানান। দেশে পাথরের চাহিদা দিন দিন বেড়ে যাওয়ায় কোম্পানী চাহিদ মিটাতে পাথর উৎপাদনের চাহিদা বাড়াচ্ছেন। ইতি পূর্বে পাথর খনির ভু-গর্ভে আধুনিক যন্ত্রপাতি না থাকার কারনে উৎপাদন করা সম্ভব হচ্ছিলনা। পাথর খনিটির উৎপাদন যতো বাড়ানো যাবে ততো সরকারের আয় বৃদ্ধি পাবে।

আপনার মতামত লিখুন

রংপুর,সারাদেশ বিভাগের সর্বোচ্চ পঠিত সংবাদ