সোমবার-৩০শে মার্চ, ২০২০ ইং-১৬ই চৈত্র, ১৪২৬ বঙ্গাব্দ, সময়: সকাল ৬:৩৩, English Version
উমাদিনী ত্রিপুরার মৃত্যুতে প্রধানমন্ত্রীর শোক ডোমার পৌর শহরে চলছে জীবাণু নাশক ছিটানো কার্যক্রম। লালপুরে দুস্থদের মাঝে নিজ উদ্যোগে খাবার সামগ্রী বিতরণ পার্বতীপুরে করোনা ঠেকাতে আদা, লং, কালিজিরার চা খাওয়ার গুজব! চাঁপাইনবাবগঞ্জে খেটে খাওয়া গরীব দুঃখি মানুষের মাঝে চাল বিতরণ শুরু ‘করোনা চিকিৎসায় ২৫০ ভেন্টিলেটর প্রস্তুত’ সংবাদপত্র সংক্রান্ত সকল ধরনের কাজ পরিচালনায় কোনো বাধা নেই

লালপুরে আমের গাছে আগাম মুকুলের দেখা

প্রকাশ: রবিবার, ২৮ জানুয়ারি, ২০১৮ , ৩:২৩ অপরাহ্ণ , বিভাগ : রংপুর,সারাদেশ,

মোঃ আশিকুর রহমান টুটুল, নাটোর জেলা প্রতিনিধি:
জলবায়ুৃ পরিবর্তনের প্রভাব পড়েছে গাছ পালাতেও। পৌষ ও মাঘের শীত শেষে হালকা গরমের সঙ্গে গাছে গাছে আমের মুকুল দেখা দেওয়ার কথা থাকলেও নাটোরের লালপুর উপজেলার আম গাছগুলোতে আগাম মুকুল ধরেছে। লালপুর উপজেলার বাড়ির আঙ্গিনাই, রাস্তার ধার ও বাগানে আমের গাছে গাছে দেখা মিলেছে আগাম মুকুলের। এতে আনন্দিত এলাকাবাসি। পৌষ শেষ মাঘ সাসের শুরু। ঋতু পরিক্রমায় সময় না হলেও এই অসময়েই আমের গাছে গাছে দেখা দিয়েছে মুকুলের। দেশে আমের রাজধানী হিসেবে রাজশাহী ও চাপাইনবাবগঞ্জ বিখ্যাত হলেও নাটোর জেলা ও এখন আমের জন্য কোন অংশে কম নয়।এই জেলার কৃষক এখন বিভিন্ন জাতের আম বানিজ্যক ভাবে চাষ করছে। নাটোর জেলার উল্লেখযোগ্য জাতের আম গুলো হলো, ফজলি, নেংড়া, খেরসাপতি, গোপালভোগ, আম্রপালি, লকনা অন্যতম। এবং তা লাভ জনক হওয়ায় প্রতিবছরী আম চাষের জমির পরিমান বৃদ্ধি পাচ্ছে। এই অঞ্চলের উৎপাদিত আম এলাকার চাহিদা মিটিয়ে দেশের বিভিন্ন স্থানে রপ্তানি করে থাকে। সরকারি পৃষ্ঠপষোকতা পেলে এই অঞ্চলের আম দেশের বাহিরেও রপ্তানি করা সম্ভব হবে বলে আশা করছেন এলাকার বাগানীরা। বাগান মালিক মোস্তফা কাউছার, আবুল হোসেন, প্রভাষক জয়নাল আবেদীন, সান্তুনু, সোহেল রানা জানান, আমের ফলন টা নির্ভর করে সম্পূর্ন আবহাওয়ার উপরে। এবছরের শুরু হতে না হতেই বাগানে ও বাড়ির আঙ্গিনার গাছ গুলিতে দেখা মিলতে শুরু করেছে আমের মুকুলের। এতে বাগান মালিকদের চোখে রঙ্গিন স্বপ্ন দেখতে শুরু করে। তবে বছরের শুরু থেকেই প্রকোপ শৈত্যপ্রবাহের কারনে বাগানীদের চোখের রঙ্গিন স্বপ্ন ভেঙ্গে মনে কালো মেঘর দাঁনা বাঁ তে শুরু করেছিলে। গত দুই দিনে আবাহাওয়া স্বাভাভিক হওয়ায় এখন তা অনেকটাই কেটে গেছে। তবে আবহাওয়া অনুকুলে থাকলে এবং কোন প্রকার প্রাকৃতিক বিপর্যায় না ঘটলে এ বছর আমের ফলন ভালো হবে বলে আশা করছেন এই উপজেলার বাগানীরা।বছরের শুরুতে কিছু কিছু বাগানের গাছে আগাম মুকুলের দেখা মিলেলেও সব গাছে মুকুল আসতে এখনো কিছু দিন দেরি হবে। গাছে আগাম মুকুল দেখা দেওয়ায় কৃষি বিভাগ এর পরামর্শ অনুযায়ী বিভিন্ন প্রকার রোগ ও পোকামাকরের হাত থেকে মুকুলকে রা করতে শুরু হয়েছে প্রাথমিক পর্যায়ে বাগানের গাছে গাছে বিভিন্ন প্রকার কীটনাশক স্প্রে করার কাজ।

আপনার মতামত লিখুন

রংপুর,সারাদেশ বিভাগের সর্বোচ্চ পঠিত সংবাদ