রবিবার-২৯শে মার্চ, ২০২০ ইং-১৫ই চৈত্র, ১৪২৬ বঙ্গাব্দ, সময়: রাত ১০:০১, English Version
উমাদিনী ত্রিপুরার মৃত্যুতে প্রধানমন্ত্রীর শোক ডোমার পৌর শহরে চলছে জীবাণু নাশক ছিটানো কার্যক্রম। লালপুরে দুস্থদের মাঝে নিজ উদ্যোগে খাবার সামগ্রী বিতরণ পার্বতীপুরে করোনা ঠেকাতে আদা, লং, কালিজিরার চা খাওয়ার গুজব! চাঁপাইনবাবগঞ্জে খেটে খাওয়া গরীব দুঃখি মানুষের মাঝে চাল বিতরণ শুরু ‘করোনা চিকিৎসায় ২৫০ ভেন্টিলেটর প্রস্তুত’ সংবাদপত্র সংক্রান্ত সকল ধরনের কাজ পরিচালনায় কোনো বাধা নেই

পার্বতীপুরে ক্রয় ক্ষমতার মধ্যে সবজির দাম

প্রকাশ: বুধবার, ২২ নভেম্বর, ২০১৭ , ৩:১৫ অপরাহ্ণ , বিভাগ : কৃষি,সারাদেশ,

পার্বতীপুর(দিনাজপুর) সংবাদদাতা: পার্বতীপুরে শহর ও হাটবাজার সর্বত্র শাকসবজির দাম কমে এখন সাধারণ মানুষের ক্রয় ক্ষমতার মধ্যে চলে এসেছে। দাম কমার কারণে ক্রেতাদের মধ্যে স্বস্তিও দেখা দিয়েছে।

আজ মঙ্গলবার সকাল ৯টায় পার্বতীপুর পৌরসভার নতুন বাজারের সবজি মার্কেটে গিয়ে দেখা যায়, প্রতি কেজি ধনেপাতা বিক্রি হচ্ছে ৪০ থেকে ৫০ টাকায়। ফুলকপি, বাঁধাকপি বিক্রি হচ্ছে ১৫টাকায়, মূলার কেজি আট টাকা, বেগুন ১০ টাকা, শিম ৩০ টাকা, বরবটি ২০ টাকা, পালং শাক ২০ টাকা এবং লাউ প্রতিটি ২০ টাকা করে।

ক্রেতা মো. ইউনুস আলী, ইউসুফ আলী, মো. সাজাহান ও আফজাল হোসেন জানান, সাত দিন আগে এখানে প্রতিকেজি ধনেপাতা বিক্রি হয়েছে ১৫০ থেকে ১৮০ টাকায়। মূলা ছিল ৩০ টাকা, বেগুন বিক্রি হয়েছে ৪০ টাকায়, বরবটি ৪০ থেকে ৬৫ টাকা, পালং শাক ৬০ টাকা এবং লাউ ছিল প্রতিটি ৪০ থেকে ৫০ টাকা করে। সূত্র  কালেরকন্ঠ

সবজি বিক্রেতা মো. মহিরউদ্দিন জানান, শীতকালীন শাকসবজির দাম এখন মানুষের ক্রয় ক্ষমতার মধ্যে। রসুন বিক্রি হচ্ছে প্রতিকেজি ৫০ টাকা করে। নতুন ওঠা আদার দাম কেজি প্রতি ৭৫ টাকা। তবে পেঁয়াজের দাম অপরিবর্তিত। বিক্রি হচ্ছে ৭৫ ও ৫০ টাকায়।
দেশি পেঁয়াজ ৭৫ টাকায় উঠেছে ১৫ দিন আগে। এর আগে বিক্রি হয়েছিল ৫০ টাকা দরে। ভারতীয় পেঁয়াজ তখন বিক্রি হয়েছে সর্বত্র ৩০ টাকায়।

পার্বতীপুরের যশাইহাট, আমবাড়ী হাট, জমির হাট, ডাঙ্গারহাট ও খয়েরপুকুর হাটে প্রতিকেজি বেগুন বিক্রি হচ্ছে এখন ৭-৮ টাকায়, মূলা পাঁচ থেকে ছয় টাকায়, লাউ প্রতিটি ১০ টাকা, ধনেপাতা ৩০ টাকা ও পালং শাক ১৫ টাকা করে। কাঁচা মরিচ বিক্রি হচ্ছে প্রতিকেজি ৮০ টাকায়। জমিরহাটের নূরবক্ত, খয়েরপুকুর হাটের তপন অধিকারী ও যশাই হাটের আব্দুল ওহাব বলেন, ১৫ দিন আগে এসব হাটবাজারে ধনেপাতা বিক্রি হয়েছে প্রতিকেজি ৩০০ টাকায়। মূলা-বেগুন বিক্রি হয়েছে ৪০ থেকে ৫০ টাকায়।

আপনার মতামত লিখুন

কৃষি,সারাদেশ বিভাগের সর্বোচ্চ পঠিত সংবাদ