রবিবার-১৭ই নভেম্বর, ২০১৯ ইং-২রা অগ্রহায়ণ, ১৪২৬ বঙ্গাব্দ, সময়: সকাল ৬:১৩, English Version
সংযুক্ত আরব আমিরাত গেলেন প্রধানমন্ত্রী সৈয়দপুরে ডিবি ও এনএসআই পরিচয়ে মোটর সাইকেল চেকিং এর নামে চাঁদাবাজির সময় আটক-২ সৈয়দপুরে বাংলাদেশ পৌরসভা ডিপ্লোমা প্রকৌশলী রংপুর বিভাগীয় সম্মেলন অনুষ্ঠিত বাজারে পেঁয়াজের সরবরাহ থাকলেও কিছু অসাধু ব্যবসায়ী অস্বাভাবিকহারে পেঁয়াজের দাম বাড়িয়ে দিয়েছে লালপুরে রোপা আমনের বাম্পার ফলনের সম্ভাবনা দাম নিয়ে হতাশা! সৈয়দপুরে ট্রেনে কাটা পড়ে যুবকের মৃত্যু তরুণ প্রজন্মকে আগ্রহী করে তুলতে হবে ……মারুফ মন্ডল

দুর্যোগ ব্যবস্থাপনা অধিদপ্তর কর্তৃক ২০১৫-২০১৬ অর্থ বছরে

দিনাজপুর সদর উপজেলা এলাকায় উন্নয়নমূলক কর্মকান্ড বাস্তবায়ন

প্রকাশ: সোমবার, ২২ আগস্ট, ২০১৬ , ২:২৪ অপরাহ্ণ , বিভাগ : রংপুর,সারাদেশ,

downloadদিনাজপুর থেকে আব্দুস সাত্তার ঃ দুর্যোগ ব্যবস্থাপনা অধিদপ্তর কর্তৃক দিনাজপুর সদর উপজেলা এলাকায় গ্রামীণ অবকাঠামো সংস্কার (কাবিখা), রণাবেণ (টিআর), ব্রীজ/কালভার্ট নির্মাণ ও হতদরিদ্রদের কর্মসংস্থান কর্মসুচি বাস্তবায়ন হয়েছে। ফলে সরকারের ২০২১ ভিশন বাস্তবায়নের ল্েয এগিয়ে চলছে। সংশ্লিষ্ট সূত্রে জানা গেছে, দুর্যোগ ব্যবস্থাপনা অধিদপ্তর কর্তৃক দিনাজপুর সদর উপজেলা এলাকায় ২০১৫-২০১৬ অর্থ বছরে প্রথম পর্যায়ে প্রায় ৮শ মেট্রিক টন খাদ্যশস্য ও দেড় কোটি টাকা ব্যয়ে ৫০ টি প্রকল্পের ৩০ কিঃ মিঃ গ্রামীণ কাঁচা রাস্তার সংষ্কার করা হয়েছে। ফলে গ্রামীণ জনগোষ্ঠীর যাতায়াত ব্যবস্থা পণ্য বাজারজাতকরণ, চিকিৎসা সেবা ও ছাত্রছাত্রীদের স্কুল-কলেজে যাতায়াত যোগাযোগের েেত্র ব্যাপক উন্নয়ন সাধিত হয়েছে। শুধু তাই নয়, ২৪০টি শিা প্রতিষ্ঠান ও ধর্মীয় প্রতিষ্ঠানে মাটি ভরাট করে মাঠ উঁচুকরণ এবং প্রতিষ্ঠানের নিরাপত্তার জন্য বাউন্ডারী প্রাচীর নির্মাণ করা হয়েছে। এ খাতে ৫০ ভাগ টাকা ও খাদ্যশস্য ব্যয়ে বিভিন্ন প্রতিষ্ঠান ও ৩০টি কবরস্থানের সোলার প্যানেল স্থাপন করা হয়েছে। দ্বিতীয় পর্যায়ে দেড় কোটি টাকা ও প্রায় ৮ শ মে. টন খাদ্যশস্য ব্যয়ে অত্র উপজেলা এলাকায় শিা প্রতিষ্ঠান ও ধর্মীয় প্রতিষ্ঠান সহ ইত্যাদিতে ১৩০টি প্রকল্পের গ্রামীণ অবকাঠামোতে ুদ্র সংস্কার করে প্রতিষ্ঠানের ব্যাবহার উপযোগী ও টেকসই করা হয়েছে। গত ২০১৫-২০১৬ অর্থ বছরে কাবিখা ও টিআর খাতে ৫০ ভাগ খাদ্যশস্য এবং টাকা দিয়ে প্রধানমন্ত্রীর ঘোষিত ঘরে ঘরে বিদ্যুৎ পৌঁছে দেয়ার ঘোষণার প্রেেিত বিদ্যুৎ নেই এমন বিভিন্ন প্রতিষ্ঠান, ধর্মীয় প্রতিষ্ঠান, কমিউনিটি কিনিক ও দরিদ্র জনগোষ্ঠীর মাঝে সোলার প্যানেল স্থাপনের মাধ্যমে বিদ্যুতের ব্যবস্থা করে বিদ্যুৎ চাহিদা কমানো হয়েছে। এই খাতে ৫০ ভাগ খাদ্যশস্য ও অর্থ দিয়ে পিছিয়ে পড়া গ্রামীণ এলাকার কবরস্থান আলোকিত করার মত প্রকল্প হাতে নেয়া হয়েছে। যা বিদ্যুতের েেত্র রিনিউএবল এনার্জি ব্যবহার করে বিদ্যুৎ উৎপাদনে ঘরে ঘরে বিদ্যুৎ দেয়ায় প্রধানমন্ত্রীর প্রতিশ্র“তি বাস্তবায়নে কাজ করা হচ্ছে। প্রায় ৫ কোটি টাকা ব্যয়ে ২০১৫-২০১৬ অর্থ বছরে অত্র উপজেলা এলাকায় খাল-বিলের উপর অতিগুরুত্বপূর্ণ স্থানে ছোট-বড় ১৭টি ব্রীজ/কালভার্ট নির্মিত হয়েছে। এই প্রকল্প বাস্তবায়ন করার ফলে খাল-বিলের পানির প্রবাহ বাধাগ্রস্থ হওয়ার হাত থেকে রা ও জনগণের যাতায়াত ব্যবস্থার আমূল পরিবর্তন হয়েছে। এতে করে গ্রামীণ যোগাযোগ্য ব্যবস্থায় আন্তঃগ্রাম, আন্তঃইউনিয়ন, কালেক্টিভিটি বৃদ্ধি পেয়েছে। শুধু তাই নয়, প্রায় ৩ কোটি টাকা বরাদ্দ দিয়ে প্রতি বছরের মত এ বছর নভেম্বর-ডিসেম্বর এবং মার্চ-এপ্রিল ২টি কর্মহীন মৌসুমে ১৯৪৬ জনের কর্মের সংস্থান করা হয়েছে। যার ফলশ্র“তিতে এসব জনগোষ্ঠীর ক্রয় মতা স্বাভাবিক রাখতে ব্যাপক ভূমিকা রেখেছে। এ বছর ঈদ-উল-ফিতরের সময় ২৩৯৮২ টি কার্ড দরিদ্রের মাঝে বিনামূল্যে বিতরণ করা হয়েছে। কার্ড প্রতি ২০ কেজি করে চাল দরিদ্ররা পেয়েছে। এছাড়াও ভিজিএফ বিতরণ ঢেউটিন বিতরণ ও শীতার্তদের মাঝে শীতবস্ত্র বিতরণের নিয়মিত কার্যক্রম বর্তমান সরকারের আমলে ব্যাপকভাবে বৃদ্ধি পেয়েছে। এসব প্রকল্পের বিষয়ে জানতে চাইলে দিনাজপুর সদর উপজেলা প্রকল্প বাস্তবায়ন কর্মকর্তা মোঃ আলতাফ হোসেন জানান, জাতীয় সংসদের মাননীয় হুইপ দিনাজপুর সদর-৩ আসনের সংসদ সদস্য ইকবালুর রহিম এমপি’র প্রত্য ও পরো সহযোগিতায় এ দপ্তরের নিয়োজিত কর্মকর্তা ও কর্মচারীর নিয়মিত তদারকি করার কারণে প্রকল্পের কাজগুলো সুন্দর ও সুষ্ঠু ব্যবস্থাপনায় সম্পন্ন হওয়ায় সরকারের ২০২১ ভিশন বাস্তবায়নের ল্েয দ্রুত গতিতে এগিয়ে চলছে।

আপনার মতামত লিখুন

রংপুর,সারাদেশ বিভাগের সর্বোচ্চ পঠিত সংবাদ