শুক্রবার-২২শে নভেম্বর, ২০১৯ ইং-৭ই অগ্রহায়ণ, ১৪২৬ বঙ্গাব্দ, সময়: রাত ১:১৮, English Version
বাংলাদেশ-ভারত টেস্ট ম্যাচ দেখতে কাল কলকাতা যাচ্ছেন প্রধানমন্ত্রী প্রাথমিকে বড় সুখবর আসছে ছাতকে ক্যান্সার আক্রাকে মাকে বাঁচাতে মেয়ের আকুতি চাঁপাইনবাবগঞ্জে পুলিশ লাইন্স মিলনায়তনে জেলা পুলিশের মাসিক কল্যাণ সভা অনুষ্ঠিত গোবিন্দগঞ্জ প্রান্তিক চাষীদের মাঝে বিনামূল্যে বীজ ও সার বিতরন সৈয়দপুরে ইউএনও কে পৌর পরিষদের বিদায়ী সংবর্ধনা চাঁপাইনবাবগঞ্জে দিনব্যাপী বার্ষিক ক্রীড়া প্রতিযোগিতা ও সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠান

মন্ত্রীর বিশেষ বরাদ্দের অগ্রধীকার বিদ্যুৎ সংযোগ ৩ বছরেও মেলেনি মেসার্স আর এন্ড আর এন্টার প্রাইজের দৌরাতœা ॥

প্রকাশ: শনিবার, ৮ জুলাই, ২০১৭ , ১০:২৮ পূর্বাহ্ণ , বিভাগ : দিনাজপুর,রংপুর,সারাদেশ,

মো. আফজাল হোসেন দিনাজপুর প্রতিনিধি
সর্বোচ্চ অগ্রাধিকার দিয়ে নির্দিষ্ট সময়ের মধ্যে প্রতিটি সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ে বিদ্যুৎ সংযোগ নিশ্চিত করার লক্ষে মন্ত্রীর বিশেষ বরাদ্দ থেকে ৩ বছর পূর্বে বিদ্যুৎ সংযোগ দেওয়ার লিখিত নির্দেশনা প্রদান এবং সার্ভে সম্পূন হওয়ার পর ঠিকাদারী প্রতিষ্ঠানকে কার্যাদেশ প্রাপ্তির পরেও কাংখিত চাহিদা পূরন না হওয়ায় বিদ্যুৎ সংযোগ হতে বঞ্চিত হয়ে মৌলভির ডাংগা সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের কচি কচি শিক্ষার্থীরা অপেক্ষার প্রহর গুনছে বিদ্যুত এর জন্য । বিদ্যুৎ সংযোগ সুবিধা থাকা সর্তেও মন্ত্রীর নির্দেশ উপেক্ষা করে ভোগান্তিময় পরিবেশ তৈরি অভিযোগ উঠেছে। জানাগেছে প্রাথমিক ও গণশিক্ষা মন্ত্রনালয়ের মন্ত্রী এ্যাড মোস্তাফিজুর রহমান ফিজার এমপি তার বিশেষ বরাদ্দ থেকে পার্বতীপুর উপজেলার খাগড়াবন্দ গ্রামের মৌলভীর ডাংগা সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয় এবং বিদ্যালয় এলাকায় অবস্থিত হত দরিদ্র জনগোষ্ঠীকে বিদ্যুৎ সংযোগ প্রদানের জন্য দিনাজপুর পল্লী বিদ্যুত সমিতি-২ এর জিএম সন্তোষ কুমার সাহা কে ব্যবস্থা নেয়ার জন্য ৩০-০৫-২০১৫ইং তারিখে লিখিত নির্দেশনা প্রদান করেন।
ঐ নির্দেশনা পত্রে পার্বতীপুর উপজেলা শিক্ষা অফিসার ও সহকারী উপজেলা শিক্ষা অফিসার বিশেষ বিবেচনার জন্য সুপারিশ করেন। পল্লী বিদ্যুৎ কর্তৃপক্ষ সল্পসময়ে সার্ভে সহ মাস্টার প্লান প্রনয়ন করেন। যার অগ্রাধিকার তালিকা নং-৪৭ স্তর ০১ কি.মি, মাইলেস-১০০০ কি.মি. লট নং-পিএআর৬/১৪, এবং পান কার্যাদেশটি ০৭-১০-২০১৫ইং অনুমোদিত হয়। টেন্ডারের মাধ্যমে মেসার্স আর এন্ড আর এন্টার প্রাইজ ঠাকুরগাঁ নামক ঠিকাদারি প্রতিষ্ঠান কাজটি পায়। অথচ ২০১৫-১৭ইং ৩ বছর অতিবাহিত হতে চলছে এখনো বিদ্যুতের খুঁটি পর্যন্ত পৌছেনি।
এ ব্যাপারে ওই প্রতিষ্ঠানের ঠিকাদার সুজিৎ কুমারের সঙ্গে (০১৭১১৩১৪৪৯৬) বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক, এসএমসি সভাপতি ও সংশিষ্ঠ ইউনিয়ন চেয়ারম্যান মাসুদার রহমান শাহ্ বারংবার যোগাযোগ করলে, তিনি জানান টেন্ডার পেয়েছি তবে খুঁটি সরবরাহ না থাকায় সংযোগ দেয়া সম্ভব হচ্ছে না। তবে অভিযোগ উঠেছে ২০১৫-১৬ইং বছরের কার্যাদেশ পাওয়া কাজ না করে সুজিৎ কুমার অজ্ঞাত কারণে ২০১৭ইং সালের অনেক কাজ ইতি মধ্যে শেষ করেছেন। ঠিকাদারের কাঙ্খিত চাহিদা পূরণ করতে না পারায় মন্ত্রী মহোদয়ের অগ্রাধিকার বিশেষ বরাদ্দের বিদ্যুৎ সংযোগ নিয়ে গড়িমসি চলছে। যার অকাট্য প্রমান একই দিনে সার্ভে হয়েছে পার্শ্ব বর্তি মধ্যপাড়া গ্রামের মাথনাপাড়া অংশে কাজও পেয়েছে একই ঠিকাদার। অথচ ইতি মধ্যে ঐ মহলায় জনৈক আছাদুল হক মেস্বারে নেতৃত্বে অর্থ বানিজ্যের মাধ্যমে বিদ্যুৎ সংযোগ দেওয়া হয়েছে বলে জানান, শিক্ষক আবেদ আলি ও জয়নাল আবেদীন। প্রাথমিক শিক্ষা অধিদপ্তর ঢাকা থেকে ১ আগষ্ট ২০১৬ইং তারিখ অতি জরুরি স্মারক নং- ৩৪৭.১৬/৩০৯৩ ই-মেল বার্তায় বলা হয়েছে সরকার প্রতিটি প্রাথমিক বিদ্যালয়ে মাল্টিমিডিয়া কাস রুম বাস্তবায়নে দৃঢ় পদক্ষেপ গ্রহন করেছে। এ লক্ষে প্রতিটি সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ে বিদ্যুৎ সংযোগ নিশ্চিত করা অবশ্যক। বিষয়টি অতিব জরুরি তাই সর্বোচ্চ অগ্রাধিকার দিতে হবে। যেখানে সরকার এবং প্রাথমিক শিক্ষা অধিদপ্তর সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয় সমূহে বিদ্যুৎ সংযোগ নিশ্চিত করতে বদ্ধপরিকর সেখানে মন্ত্রীর অগ্রাধিকার বিশেষ বরাদ্ধ থেকে সংযোগ কালক্ষেপন সচেতন মহলকে ভাবিয়ে তুলেছে।
এ বিষয়ে সংশিষ্ঠ প্রধান শিক্ষক খন্দকার হাবিবুর রহমান জানান, আমি ৩ বছর থেকে সুজিৎ বাবুকে বিদ্যুৎ সংযোাগে ব্যাপারে যখনই ফোন করি তিনি জানান, আগমী সপ্তাহে খুঁটি পাঠানো হবে। কিন্তু তার সপ্তাহের শেষ না হওয়া প্রমান করে তার অব্যক্ত কিছু চাহিদা পূরণ না হওয়ায় সংযোগ প্রদানে এত গড়িমসি। ফুলবাড়ী পল্লী বিদ্যুৎ সমিতির কতিপয় ঠিকাদার ও অফিসের কতিপয় দুর্নিতি বাজ কর্মকর্তার কারনে অনেক এলাকায় বিদ্যুৎ দেয়া হচ্ছে না ।

আপনার মতামত লিখুন

দিনাজপুর,রংপুর,সারাদেশ বিভাগের সর্বোচ্চ পঠিত সংবাদ