মঙ্গলবার-১৫ই অক্টোবর, ২০১৯ ইং-৩০শে আশ্বিন, ১৪২৬ বঙ্গাব্দ, সময়: রাত ১০:৪১
মেহেন্দীগঞ্জে বিদ্রোহী প্রার্থী নির্বাচিত দৃষ্টি প্রতিবন্ধীরা সমাজের বোঝা নয় বরং তারাই হতে পারে দেশের উন্নয়নের সহায়ক ফুলবাড়ীতে বাল্য বিবাহ প্রতিরোধ বিষয়ক ওরিয়েন্টেশেন সভা ॥ ঘুমন্ত তুহিনকে কোলে করে নিয়ে আসেন বাবা, খুন করেন চাচা বড়পুকুরিয়া কয়লাখনির সাবেক ৭ এমডিসহ ২৩ কর্মকর্তার বিরুদ্ধে গ্রেফতারী পরোয়ানা লালপুরে মাচায় লাউ চাষ করে সফল হয়েছেন চাষী রনি কুষ্টিয়া চলে গেলেন আবরারের ছোট ভাই

শচীনকে ভীষণ ভয় পেতেন এই বলিউড সুন্দরী

প্রকাশ: শনিবার, ১ জুলাই, ২০১৭ , ৭:২৫ পূর্বাহ্ণ , বিভাগ : বিনোদন,

মুক্তিনিউজ২৪.কম ডেস্ক:  শচীন তেন্ডুলকর গোটা বিশ্বে আরাধ্য ক্রিকেটার। বোলারদের জন্য যম তিনি। বোলারদের নাস্তানাবুদ করতেই অভ্যস্ত তিনি। তাই বোলাররা তাঁকে ভয় পাবে, এটা স্বাভাবিক। তবে শুধু বোলাররা নন, বলিউডের সুন্দরীরাও তাঁকে ভয় করেন।

অবশ্য এটা আলাদা কারণ। কারণ শচীন ব্যাট করতে নামলেই গোটা দেশ টিভি খুলে বসত। রাস্তা-ঘাট শুনশান হয়ে যেত। এমনকি শচীন ব্যাট করার সময়েও দেশে ট্র্যাফিক জ্যাম সমস্যা থাকত না। আর এই ঘটনাই ভয় ধরানোর মতো। অন্তত সুন্দরী একতা কাপুরের কাছে। ‘ছোট পর্দার রানি’ বলা হয় তাঁকে। কোটি কোটি টাকা ব্যবসা করে তাঁর প্রযোজিত টিভি শো-গুলি। তবে শচীনের জন্য নিজের ব্যবসা মার খাওয়ার ভয় পেতেন তিনি।

কারণ, শচীন ব্যাট করতে এলেই অনিবার্যভাবেই চ্যানেল ঘুরে যাবে খেলার চ্যানেলেই। এই কারণেই বার বার তাঁর টিভি শো-র টিআরপিতে প্রভাব ফেলেছেন স্বয়ং শচীন। তাই লিটল মাস্টারের ব্যাট করার ঘটনাই প্রভাব ফেলেছে তাঁর প্রযোজিত টিভি শোগুলিতে।

সম্প্রতি নিজের নতুন টিভি লঞ্চ করতে দিল্লিতে এসে একতা কাপুর সংবাদ সম্মেলনে শচীনের প্রসঙ্গে বলতে গিয়ে বলেন, ‘‘ভরা ক্রিকেট মৌশুমে কখনও টিভি শো লঞ্চ করতাম না। কারণ আমি জানতাম, শচীন ব্যাট করতে নামলেই আমার শো এর টিআরপি হু হু করে নামবে। ’’

এরপর একতা আরও বলেন, ‘‘যখনই আমার শো-এর টিআরপি পড়ত, তখনই আমি জিজ্ঞাসা করতাম, কী হল! এবং প্রত্যেকবারই একই উত্তর পেতাম, শচীন খেলছে। ‘কিঁউকি’ ও ‘কহানি’ সিরিজের সিরিয়াল সচিনের ব্যাট করার সময়েই মার খেয়ে যেত। ’’

একতার ঘটনা মনে পড়িয়ে দিচ্ছে লিটল মাস্টারকে সম্পর্কিত পিটার রোবাকের সেই বাস্তব অভিজ্ঞতাকে। তিনিও বলেছিলেন,‘‘একবার ট্রেনে সিমলা থেকে দিল্লি যাচ্ছিলাম। মাঝে একটা ছোট স্টেশনে ট্রেন থেমেছিল। শচীন সেই সময়ে ৯৮ রানে ব্যাট করছিল। ট্রেনের প্রত্যেক যাত্রী, রেলের সমস্ত কর্মকর্তা অপেক্ষা করছিল শচীনের শতরানের জন্য। এই কিংবদন্তি ভারতে সময়কেও থামিয়ে দিতে পারেন। ’’

দিল্লিতে একতা কপূর এসেছিলেন তাঁর আসন্ন টিভি শো ‘কুণ্ডলী ভাগ্য’ প্রমোট করার জন্য। প্রসঙ্গত, ক্রিকেটকে নিয়েই আবর্তিত এই সিরিয়ালের গল্প।
সূত্র: এবেলা

আপনার মতামত লিখুন

বিনোদন বিভাগের সর্বোচ্চ পঠিত সংবাদ