সোমবার-৬ই এপ্রিল, ২০২০ ইং-২৩শে চৈত্র, ১৪২৬ বঙ্গাব্দ, সময়: রাত ৩:৫৫, English Version
বেসরকারি হাসপাতালগুলোকে এই দুর্যোগে জনগণের পাশে থাকার আহ্বান তথ্যমন্ত্রীর মাস্ক ছাড়া কেউই এ সময় বাইরে বের হবেন না                                          –স্বাস্থ্যমন্ত্রী ঠাকুরগাঁওয়ে কর্মহীন হোটেল শ্রমিকদের পাশে আর.ডি.এস এর পরিচালক আলমগীর হোসেন দেশে করোনায় আরও ১ জনের মৃত্যু, নতুন শনাক্ত ১৮ ছুটি বাড়ল ১৪ এপ্রিল পর্যন্ত অঘোষিত লক ডাউন চলছে তারি মধ্যে দিয়ে বাড়ি বাড়ি খাদ্য পৌছিয়ে দিলেন এমপি জেসী বাংলাদেশে যেসব ল্যাবে করোনা ভাইরাস শনাক্তকরণে কাজ চালু রয়েছে ও মোবাইল নম্বরসহ

পার্বতীপুরে সজিনার বাম্পার ফলনের সম্ভাবনা

প্রকাশ: সোমবার, ২৭ ফেব্রুয়ারি, ২০১৭ , ৮:৪৯ পূর্বাহ্ণ , বিভাগ : রংপুর,সারাদেশ,

পার্বতীপুর(দিনাজপুর) সংবাদদাতাঃ
ফুলে ফুলে ভরে গেছে গাছ। দূর থেকে দেখলে মনে হয় যেন কোন ফুলের বাগান। আসলে তা নয়। এবারে পার্বতীপুর উপজেলায় সবত্রই ভরে গেছে সাজিনার ফুলে। কোন কোন গাছে ছোট আকারের সাজিনা বের হতে শুরু করেছে। ইতিমধ্যে আগাম জাতের কিছু সাজিনা বাজারে আসলেও তা বিক্রি হচ্ছে চড়া দামে। স্বল্প আয়ের মানুষের তা ক্রয় ক্ষমতার বাইরে। তবে নতুন সজিনা বাজারে আসলে এই চড়া মূল্য আর থাকবেনা। উপজেলার এমন কোন জায়গা নেই যেখানে সজিনার গাছ দেখা যায় না। সজিনা পরিকল্পিতভাবে চাষবাদ করা না হলেও অধিকাংশ বাড়ীতে ও রাস্তার পাশে সজিনার গাছ লাগানো হয়ে থাকে। প্রতি বছর এই মৌসুমে সজিনার গাছের ফুল ফোটে এবং ২-১ মাসের মধ্যেই তা খাবার উপযোগী হয়। সজিনা একদিকে খাদ্য সামগ্রী হিসাবে ব্যবহৃত হয়। অন্যদিকে এটি একটি পুষ্টিকর খাবার । এতে রয়েছে ঔষুধি গুন। এই এলাকায় সজিনা জনপ্রিয় খাবার হওয়ার কারনে সব শ্রেণীর মানুষই বাড়ীতে ও রাস্তার ধারে সজিনা গাছ রোপণ করে। বীজ থেকে চারা করে সজিনা রোপণ করতে হয় না। ডাল কেটে রোপণ করলেই ১ বছর পরেই সজিনা ধরতে শুরু করে। অন্য বারের চেয়ে এ বারে সজিনার গাছও বেশি রোপন করা হয়েছে এবং ফুলও বেশি ফুটেছে। কিছু কিছু গাছে সজিনয়ও বের হয়েছে। এসব দেখে ধারনা করা হচ্ছে যে, এবারে পার্বতীপুরে সজিনার বাম্পার ফলন হবে।

আপনার মতামত লিখুন

রংপুর,সারাদেশ বিভাগের সর্বোচ্চ পঠিত সংবাদ