বুধবার-৮ই এপ্রিল, ২০২০ ইং-২৫শে চৈত্র, ১৪২৬ বঙ্গাব্দ, সময়: সকাল ১১:৩৪, English Version
গোবিন্দগঞ্জে ফেয়ারপ্রাইজের ২১ বস্তা চাল উদ্ধার নাটোরে ১৭জনের নমুন সংগ্রহ কেউ করোনায় আক্রান্ত নেই নীলফামারীতে করোনায় আক্রান্ত চিকিৎসক, হাসপাতাল লকডাউন করোনা ভাইরাস প্রতিরোধে শাহ্ নেয়ামতুল্লাহ কলেজে কর্তৃপক্ষের খাদ্য সামগ্রী বিতরণ ছাতকে এক সপ্তাহে ১৩জনের নমুনা সংগ্রহ পার্বতীপুরে সিয়াম ট্রেডাসের্র একশত পরিবারের মাঝে খাদ্যদ্রব্য বিতরণ ঠাকুরগাঁওয়ে অসহায় মানুষদের পাশে যুবলীগ নেতা আপেল

করোনা মোকাবিলায় সিটি কর্পোরেশন,পৌরসভা ও উপজেলা পরিষদের জন্য ৩৩ কোটি টাকা বিশেষ বরাদ্দের নির্দেশ স্থানীয় সরকার মন্ত্রীর

প্রকাশ: বৃহস্পতিবার, ২৬ মার্চ, ২০২০ , ২:০৫ অপরাহ্ণ , বিভাগ : অর্থনীতি,সারাদেশ,

এমএন২৪.কম ডেস্ক :           স্থানীয় সরকার মন্ত্রী মোঃ তাজুল ইসলাম করোনা সংক্রমণ মোকাবিলায় ১২টি সিটি কর্পোরেশন, ৩২৮টি পৌরসভা ও ৪৯২টি উপজেলা পরিষদের জন্য সর্বমোট ৩৩ কোটি ২ লাখ টাকা বিশেষ থোক বরাদ্দ প্রদান করেছেন।

মন্ত্রী আজ সচিবালয়ে তাঁর অফিস কক্ষে করোনা ভাইরাস রোধকল্পে আয়োজিত এক পর্যালোচনা সভায় এ সংক্রান্ত দাপ্তরিক প্রক্রিয়া সম্পন্ন করার নির্দেশনা দেন। এ প্রেক্ষিতে স্থানীয় সরকার বিভাগ থেকে এ সংক্রান্ত জিও জারি করা হয়।

বর্তমানে করোনা ভাইরাস বিশ্বে মহামারী আকার ধারণ করেছে এবং বাংলাদেশেও বেশ কিছু আক্রান্ত হয়েছে। সিটি কর্পোরেশন কর্তৃক করোনা ভাইরাসের সংক্রমণ মোকাবিলা, মশক নিধন ও পরিষ্কার পরিচ্ছন্নতা কার্যক্রম সম্পাদনের লক্ষ্যে চলতি ২০১৯-২০২০ অর্থ বছরের বার্ষিক উন্নয়ন কর্মসূচির ‘সিটি কর্পোরেশনের উন্নয়ন সহায়তা খাত’ থেকে ১৮ কোটি ৫০ লাখ টাকা বরাদ্দ দেয়া হয়েছে। এর মধ্যে ঢাকা দক্ষিণ, ঢাকা উত্তর ও চট্টগ্রাম সিটি কর্পোরেশনের জন্য ৩ কোটি করে, নারায়ণগঞ্জ ও গাজীপুর সিটি কর্পোরেশনের জন্য ২ কোটি করে, খুলনা, রাজশাহী, সিলেট ও কুমিল্লা সিটি কর্পোরেশনের জন্য ১ কোটি করে, বরিশাল, রংপুর ও ময়মনসিংহ সিটি কর্পোরেশনের জন্য ৫০ লাখ টাকা করে বরাদ্দ দেয়া হয়।

৩২৮টি পৌর এলাকায় জীবাণুনাশক ও সুরক্ষা সামগ্রী (ডেটল, ব্লিচিং পাউডার, ফিনাইল, মাস্ক, গ্লাভস, হ্যান্ড স্যানিটাইজার, সাবান প্রভৃতি) ক্রয় করার লক্ষ্যে মন্ত্রীর অভিপ্রায় অনুযায়ী ২০১৯-২০২০ অর্থ বছরের পৌরসভার জন্য বিশেষ থোক উপ-খাত হতে ৯ কোটি ৫২ লাখ টাকা বরাদ্দ দেয়া হয়েছে। এর মধ্যে জেলা সদরের ‘ক’ শ্রেণির ৫৩টি পৌরসভার জন্য ৫ লাখ করে অন্যান্য ‘ক’ শ্রেণির ১৩৭টি পৌরসভার জন্য ৩ লাখ করে ‘খ’ শ্রেণির ৯৯টি পৌরসভার জন্য ২ লাখ করে এবং ‘গ’ শ্রেণির ৩৯টি পৌরসভার জন্য ২ লাখ টাকা করে বরাদ্দ দেয়া হয়।

করোনা ভাইরাসের বিস্তার রোধকল্পে ইউনিয়ন পর্যায়ে প্রতিরোধমূলক ব্যবস্থা গ্রহণের জন্য (জীবাণুনাশক, ব্লিচিং পাওডার, এ্যান্টিসেপটিক সাবান, হ্যান্ড গ্লাভস, মাস্ক, হ্যান্ড স্যানিটাইজার, পিপিই ইত্যাদি ক্রয়) সকল উপজেলা পরিষদের অনুকূলে সাধারণ বরাদ্দ বিভাজনের ন্যায় ২০১৯-২০২০ অর্থ বছরের থোক বরাদ্দের আওতায় অপ্রত্যাশিত খাত (প্রাকৃতিক দুর্যোগ) বিবেচনায় মন্ত্রীর অভিপ্রায় অনুযায়ী মোট ৫ (পাঁচ) কোটি টাকা বিশেষ থোক বরাদ্দ প্রদান করা হয়।

এ সময় স্থানীয় সরকার বিভাগের সিনিয়র সচিব হেলালুদ্দীন আহমদ-সহ অন্যান্য ঊর্ধ্বতন কর্মকর্তারা উপস্থিত ছিলেন।

পর্যালোচনা সভায় আরো জানানো হয়, স্থানীয় সরকার বিভাগের আওতাধীন জনস্বাস্থ্য প্রকৌশল অধিদপ্তর প্রতিটি বিভাগীয় শহরে ৮টি, জেলা শহরে ৫টি এবং প্রতিটি উপজেলায় ১টি করে হাত ধোয়ার স্থাপনা নির্মাণ করছে এবং ইউনিসেফের সাথে সভার প্রেক্ষিতে জনস্বাস্থ্য প্রকৌশল অধিদপ্তরের মাধ্যমে প্রতি জেলায় ব্লিচিং পাউডার ক্রয় বাবদ ৫০ হাজার টাকা, নলকূপের খুচরা যন্ত্রাংশ বাবদ ৩০ হাজার টাকা এবং সাবান ক্রয় বাবদ ২০ হাজার টাকা অর্থ্যাৎ জেলা প্রতি এক লাখ টাকা অনুদান প্রদান করেছে। গ্রামীণ পানি সরবরাহ ব্যবস্থা সচল রাখার জন্য প্রতি উপজেলায় নলকূপের খুচরা যন্ত্রাংশ ক্রয় বাবদ ৩০ হাজার টাকা, ব্লিচিং পাউডার ক্রয় বাবদ ২০ হাজার টাকা এবং সাবান ক্রয় বাবদ  পাঁচ হাজার টাকা অর্থাৎ উপজেলা প্রতি ৫৫ হাজার টাকা অনুদান প্রদান করেছে।

অন্যদিকে বিশ্বব্যাংক জনস্বাস্থ্য প্রকৌশল অধিদপ্তরকে হ্যান্ডওয়াশিং বেসিনে ব্যবহারের জন্য সাবান, হ্যান্ড স্যানিটাইজার ক্রয় বাবদ ২০০ কোটি টাকা অনুদান প্রদান করেছে।PID

আপনার মতামত লিখুন

অর্থনীতি,সারাদেশ বিভাগের সর্বোচ্চ পঠিত সংবাদ