সোমবার-৩০শে মার্চ, ২০২০ ইং-১৬ই চৈত্র, ১৪২৬ বঙ্গাব্দ, সময়: রাত ৩:৫০, English Version
উমাদিনী ত্রিপুরার মৃত্যুতে প্রধানমন্ত্রীর শোক ডোমার পৌর শহরে চলছে জীবাণু নাশক ছিটানো কার্যক্রম। লালপুরে দুস্থদের মাঝে নিজ উদ্যোগে খাবার সামগ্রী বিতরণ পার্বতীপুরে করোনা ঠেকাতে আদা, লং, কালিজিরার চা খাওয়ার গুজব! চাঁপাইনবাবগঞ্জে খেটে খাওয়া গরীব দুঃখি মানুষের মাঝে চাল বিতরণ শুরু ‘করোনা চিকিৎসায় ২৫০ ভেন্টিলেটর প্রস্তুত’ সংবাদপত্র সংক্রান্ত সকল ধরনের কাজ পরিচালনায় কোনো বাধা নেই

জলঢাকায় ১৮ মার্চ থেকে শুরু হবে হাম রুবেলা ক্যাম্পেইন 

প্রকাশ: রবিবার, ১৫ মার্চ, ২০২০ , ৫:০৩ অপরাহ্ণ , বিভাগ : রংপুর,সারাদেশ,
রবিউল ইসলাম রাজ,জলঢাকা (নীলফামারী) সংবাদদাতা : সারাদেশের ন্যায় নীলফামারীর জলঢাকায় ১৮ মার্চ থেকে (৯ মাস-১০ বছর) বয়সী শিশুকে হাম-রুবেলা ক্যাম্পেইন এর টিকা দেয়া হবে। এবাবের প্রতিপাদ্য বিষয় ‘সময়মতো টিকা দিন,হাম রুবেলা রোগ প্রতিরোধ করুন’। তিন সপ্তাহব্যাপী হাম-রুবেলা (এমআর) ক্যাম্পেইন শুক্রবার ও সরকারি ছুটির দিন ছাড়া উপজেলার প্রত্যেকটি টিকাদান কেন্দ্রে প্রতিদিন সকাল ৮টা থেকে বিকেল ৩টা পর্যন্ত টিকাদান কর্মসূচি পরিচালিত হবে। রোববার দুপুরে জলঢাকা উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্স হলরুমে জাতীয় হাম-রুবেলা ক্যাম্পেইন-২০২০ এর শীর্ষক আলোচনা সভায় এ বিষয় জানানো হয়।নবাগত উপজেলা স্বাস্থ্য কর্মকর্তা আবু হাসান রেজোয়ানুল কবীর এর সভাপতিত্বে এ সময় উপস্থিত ছিলেন থানা অফিসার ইনচার্জ মোস্তাফিজুর রহমান,উপজেলা শিক্ষা অফিসার নুর মোহাম্মদ,এমপি প্রতিনিধি ও উপজেলা জাতীয় পার্টির সদস্য সচিব অধ্যাপক মমিনুল ইসলাম মঞ্জু,মেডিকেল অফিসার মাহবুব আলম,ডাঃ মেসবাহুর রহমান,ডাঃ খন্দকার হাসনাত আরিফুর ইসলাম,গোলমুন্ডা ইউনিয়ন পরিষদ চেয়ারম্যান তোফাজ্জল হোসাইন সহ স্থানীয় সাংবাদিকবৃন্দ প্রমূখ।এসময় আরও জানানো হয়,৯ মাস থেকে শুরু করে ১০ বছরের কমবয়সী সকল শিশু এবং পূর্বে হামের টিকা বা এমআর টিকা পেয়ে থাকলেও অথবা হাম বা রুবেলা রোগে আক্রান্ত হলেও ঐ বয়সের সকল শিশুকে ১ ডোজ এমআর (হাম-রুবেলা) টিকা দেয়া হবে। এ কর্মসূচি তিন পর্যায়ে চলবে। প্রথম সপ্তাহে,যে সব শিক্ষা প্রতিষ্ঠানে ৪র্থ শ্রেণীর বা সমমান পর্যায় পর্যন্ত ছাত্র-ছাত্রী অধ্যয়ন করে,সে সকল প্রতিষ্ঠানে এমআর (হাম-রুবেলা) টিকাদান ক্যাম্পেইন চলবে। দ্বিতীয় ও তৃতীয় সপ্তাহে,যেসব শিশু স্কুলে যায় না,কিংবা স্কুলে টিকা গ্রহন করে নাই,তাদেরকে নিয়মিত স্থায়ী ও অতিরিক্ত টিকাদান কেন্দ্রগুলোতে প্রাপ্যতা অনুযায়ী ১ ডোজ এমআর (হাম রুবেলা) টিকা প্রদান করা হবে। এছাড়াও উদ্দিষ্ট ছাত্র-ছাত্রী যদি কোনো কারনে নির্ধারিত তারিখে স্কুলে টিকা নিতে না পারে তবে নিয়মিত,স্থায়ী ও অতিরিক্ত টিকাদান কেন্দ্রে এমআর (হাম-রুবেলা) টিকা দেয়া হবে।
আপনার মতামত লিখুন

রংপুর,সারাদেশ বিভাগের সর্বোচ্চ পঠিত সংবাদ