মঙ্গলবার-৭ই এপ্রিল, ২০২০ ইং-২৪শে চৈত্র, ১৪২৬ বঙ্গাব্দ, সময়: দুপুর ১২:৩৪, English Version
বঙ্গবন্ধুর খুনি আবদুল মাজেদ গ্রেপ্তার প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার ভিডিও কনফারেন্স শুরু প্রাথমিকসহ সকল শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান ছুটি ৩০ মে পর্যন্ত! খানসামায় অগ্নিকান্ডে ক্ষতিগ্রস্থদের পাশে ব্র্যাক নিউইয়র্কে করোনাভাইরাসে নিভে গেল গৃহবধূ নিশাত’র প্রাণ সিংড়া প্রতিমন্ত্রী জুনায়েদ আহমেদ পলকের উদ্যোগে আগুনের হাত থেকে বেচে গেল কয়েক টি পরিবার করোনাভাইরাসে মৃত ব্যক্তিকে নির্ভয়ে দাফন-কাফন করুন

ফুলবাড়ীতে মাদরাসার শিক্ষার্থীকে পিটিয়ে জখম 

প্রকাশ: রবিবার, ১৫ মার্চ, ২০২০ , ১১:৪০ পূর্বাহ্ণ , বিভাগ : রংপুর,সারাদেশ,
ফুলবাড়ী (কুড়িগ্রাম)সংবাদদাতা :
কুড়িগ্রামের ফুলবাড়ীতে ঘুমানোর অপরাধে কওমী মাদরাসার শিক্ষার্থী সজিব মিয়া (৮) কে বেত দিয়ে বেধড়ক পিটিয়ে গুরুতর জখম করার অভিযোগ উঠেছে শিক্ষকের বিরুদ্ধে। শুক্রবার ভোরে উপজেলার আজোয়াটারী গ্রামের সরকারটারী ইসলামিয়া আরাবিয়া দারুল উলুম কওমী মাদ্রাসা কক্ষে এ ঘটনা ঘটে।  ঘটনার পর অভিযুক্ত শিক্ষক ও পরিচালক আমির হামজা গা ঢাকা দিয়েছেন।  আহত শিক্ষার্থীকে ফুলবাড়ী হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে। সে উপজেলার কাশিপুর ইউনিয়নের ধর্মপুর গ্রামের মিজানুর রহমানের ছেলে।
জানা গেছে, সজিব মিয়া ওই মাদরাসায় ৩য় শ্রেণীর কেতাব বিভাগে পড়ালেখা করে। শুক্রবার ভোরে ফজরের নামাজ পড়ে ঘুমিয়ে পড়লে শিক্ষক আমির হামজা তাকে ডাকাডাকি করেন। ডাকার পরও ঘুমিয়ে থাকার অপরাধে গালাগালের এক পর্যায়ে ঘুমন্ত অবস্থায় বেত দিয়ে বেদম পেটাতে শুরু করেন হুজুর। পা ধরে কাকুতি-মিনতি করেও  রেহাই পায়নি শিশুটি। মারতে মারেত বেত ভেঙ্গে  ক্ষান্ত হন ওই শিক্ষক। মারপিটের কারনে পিঠ দিয়ে রক্ত ঝরতে থাকলে  সজিব মাদ্রাসা থেকে পালিয়ে বাড়ীতে চলে আসে। পরে সকাল ১০ টার দিকে পরিবারের লোকজন তাকে ফুলবাড়ী হাসপাতালে ভর্তি করেন।
শিক্ষার্থীর বাবা মিজানুর রহমান জানান, আমার ছেলেকে এতই মেরেছে যে এখন সে সোজা হয়ে দাঁড়াতে পারছে না। পুরো পিঠ ও শরীরে বিভিন্ন জায়গায় লালচে ক্ষতের সৃষ্টি হয়েছে।
আবুল কালাম, আবুল হোসেন সহ ওই মাদ্রাসার অন্য শিক্ষকরা জানান, একজন শিক্ষক শিক্ষার্থীকে এভাবে মারতে পারেন না। তিনি আগেও এধরনের ঘটনা ঘটিয়েছেন।
 ফুলবাড়ী থানার অফিসার ইনচার্জ (তদন্ত) নবিউল ইসলাম জানান, এ ব্যাপারে অভিযোগ পাইনি। অভিযোগ পেলে ব্যবস্থা নেওয়া হবে।
আপনার মতামত লিখুন

রংপুর,সারাদেশ বিভাগের সর্বোচ্চ পঠিত সংবাদ