মঙ্গলবার-৩১শে মার্চ, ২০২০ ইং-১৭ই চৈত্র, ১৪২৬ বঙ্গাব্দ, সময়: সকাল ৭:৩৫, English Version
জলঢাকায় পৌর মেয়র রাবি শিক্ষার্থীদের সাথে নিয়ে হ্যান্ড সেনিটাইজার ও মাস্ক বিতরণ ১৯৭১এর বরবরতার স্বাক্ষী দেওয়ার জন্য আমগাছটি এখনো দাঁড়িয়ে! বাড়ি বাড়ি খাবার পৌঁছে দিচ্ছে সেনাবাহিনী গাইবান্ধায় কর্মহীন ভাসমান বেদে সম্প্রদায়ের মাঝে খাদ্য সহায়তা দিলেন পুলিশ সুপার ডোমারে ট্রলিতে করে ভিজিডি চাউল বাড়ীতে পৌছায় দিচ্ছেন চেয়ারম্যান রিমুন। জলঢাকায় পুড়ে যাওয়া অসহায় পরিবারের পাশে ‘এসো নিজে করি’ তাহিরপুরে মাটি বোঝাই হ্যান্ডট্রলি উল্টে মাদ্রাসা ছাত্র নিহত

ঠাকুরগাঁওয়ে কলেজ ছাত্রকে কুপিয়ে জখম, আটক ১

প্রকাশ: সোমবার, ৯ মার্চ, ২০২০ , ১১:২৮ পূর্বাহ্ণ , বিভাগ : ঠা্কুরগাঁও,সারাদেশ,
ঠাকুরগাঁও সংবাদদাতা :  পূর্ব শত্রুতার জের ধরে ঠাকুরগাঁও সদর উপজেলায় এক কলেজ ছাত্রকে কুপিয়ে জখম করার অভিযোগ পাওয়া গেছে। শনিবার রাত সাড়ে ১১টার দিকে উপজেলার জামালপুর ইউনিয়নের মধ্যপারপুগী গ্রামে এ ঘটনা ঘটে।
আহত রাজু ইসলাম (১৮) মধ্যপারপুরগী গ্রামের মোহাম্মদ জিলানির ছেলে এবং সে রোড ডিগ্রী কলেজের এইচএসসি ১ম বর্ষের ছাত্র। ঠাকুরগাঁও আধুনিক সদর হাসপাতালে চিকিৎসাধীন কলেজ ছাত্র রাজু ইসলাম বলেন, শনিবার রাত সাড়ে ১১টার দিকে আমার দাদা মোহাম্মদ হোসেনের বাড়ির মূল দরজায় জোড়ে জোড়ে শব্দ করছিলেন আমার চাচা শামসুল হক সহ আরও কয়েকজন। দাদার বাড়ির দরজায় আঘাতের শব্দ পেয়ে নিজ বাড়ি থেকে বের হয়ে দেখতে গেলে আমার উপর চড়াও হয় চাচা শামসুল হক সহ অন্যরা। এরপর তারা আমাকে ধারালো অস্ত্র দিয়ে কুপিয়ে জখম করে পালিয়ে যায়। পরে স্থানীয় লোকজন রক্তাক্ত অবস্থায় কলেজ ছাত্র রাজু ইসলামকে উদ্ধার করে ঠাকুরগাঁও আধুনিক সদর হাসপাতালে ভর্তি করে। হাসপাতালের চিকিৎসক আবু বক্কর সিদ্দিক দিপু বলেন, আহত রাজু ইসলামের শরীরের বিভিন্ন জায়গায় ধারালো কিছু দিয়ে জখম করা হয়েছে।প্রচুর পরিমাণে রক্তক্ষরণ হয়েছে; তার শরীরে ২ ব্যাগ রক্ত দেয়া হয়েছে। হাসপাতালে তার চিকিৎসা চলছে। সুস্থ্য হতে কিছুটা সময় লাগবে।
এদিকে ঘটনার রাতেই কলেজ ছাত্রের বাবা জিলানী বাদী হয়ে ঠাকুরগাঁও সদর থানায় একটি লিখিত অভিযোগ দায়ের করেছেন। অভিযোগে শামসুল হক, শরিফুল ইসলাম, সালমা বেগম, হোসেন ও বিউটিকে আসামী করা হয়। পুলিশ তাৎক্ষণিক ভাবে অভিযান চালিয়ে একজনকে আটক করেছে ।
এ ব্যাপারে ঠাকুরগাঁও সদর থানার ওসি তানভিরুল ইসলাম বলেন, এ ঘটনায় একজনকে আটক করা হয়েছে; তাকে জিজ্ঞাসাবাদ করা হচ্ছে। সেই সাথে আমরা মামলাটি তদন্ত করছি; তদন্ত সাপেক্ষে আইনগত ব্যবস্থা নেয়া হবে।
কলেজ ছাত্রের বাবা জিলানী বলেন, এখন থেকে প্রায় ৮ বছর আগে চাচা শামসুল হক মধ্যপারপুরগী গ্রামে বসবাস করতেন। এখানে তিনি মাদক ব্যবসা থেকে নানা খারাপ কাজ চালিয়ে যাচ্ছিলেন। পরে এ বিষয়ে নিয়ে স্থানীয় চেয়ারম্যান সহ বিভিন্ন দপ্তরে অভিযোগ করা হয়। পরে স্থানীয় ও স্থানীয় গন্যমান্য ব্যক্তিরা শামসুল হককে মধ্যপারপুরগী গ্রাম থেকে বের করে দেন। এরপর থেকে শামসুল হক আমার পরিবারের ক্ষতি করার জন্য পেছনে লেগে থাকে। আজ সে আমার ছেলেকে কুপিয়ে জখম করেছে; আমি এর বিচার চাই।
আপনার মতামত লিখুন

ঠা্কুরগাঁও,সারাদেশ বিভাগের সর্বোচ্চ পঠিত সংবাদ