বুধবার-৮ই এপ্রিল, ২০২০ ইং-২৫শে চৈত্র, ১৪২৬ বঙ্গাব্দ, সময়: রাত ৮:১৯, English Version
শবে বরাতে বিশেষ দোয়া করার এবং কবরস্থান ও মাজারে জনসমাগম না করার আহ্বান ইসলামিক ফাউন্ডেশনের বঙ্গবন্ধুকে হত্যাকাণ্ডে ঘাতক মাজেদের কি ভুমিকা ছিলো ভুয়া তথ্যের খবরে আটক ভয়েস অফ পাইকগাছা ফেসবুক পেজের পরিচালক স্পেশাল ব্রাঞ্চ ঢাকার পক্ষ থেকে নবনিযুক্ত ইন্সপেক্টর জেনারেল কে অভিনন্দন রাজারহাটে করোনা সন্দেহে দু’দিনে ৫জনের নমূনা রংপুর মেডিকেলে ফকিরহাটে কৃষকদের বিভিন্ন প্রকারের বীজ ও সার বিতরন সৈয়দপুর  কর্মহীনদের মাঝে খাদ্য সামগ্রী বিতরণ

চীনের বাইরে দ্রুত ছড়াচ্ছে করোনাভাইরাস

প্রকাশ: শুক্রবার, ৬ মার্চ, ২০২০ , ১:৩৫ অপরাহ্ণ , বিভাগ : আন্তর্জাতিক,

এমএন২৪.কম ডেস্ক : ভয়াবহ থেকে ক্রমশ অতি ভয়াবহ হয়ে উঠছে করোনাভাইরাস। কীভাবে এই ভাইরাসের সংক্রমণ ঠেকানো যায় তা নিয়ে চিন্তায় সবাই। চীনে যে গতিতে সংক্রমণ ছড়িয়েছে, চীনের বাইরে এই সংক্রমণ ১৭ গুণ বেশি। বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থা (হু)-র সাম্প্রতিক রিপোর্ট তেমনটাই বলছে। সেই সঙ্গে এই ভাইরাসের প্রতিরোধে সমস্ত দেশকে যথাযথ ব্যবস্থা নেওয়ার কথাও বলেছে হু।

ডিসেম্বরের শেষ নাগাদ চীনের হুবেই প্রদেশের উহান নগরী থেকে দেশ জুড়ে ছড়িয়ে পড়েছিল ভয়াবহ করোনাভাইরাস। পরে চীনের সীমানা ছাড়িয়ে ইউরোপ, এশিয়া, আফ্রিকা ও আমরিকা মহাদেশেও দ্রুত থাবা বিস্তার করেছে এই ভাইরাস। চীনসহ এই ভাইরাসে গোটা বিশ্বে ইতিমধ্যেই ৩,৩০০ জনের মৃত্যু হয়েছে। আক্রান্তের সংখ্যা প্রায় ১ লক্ষ। যদিও এখনও পর্যন্ত এই ভাইরাসে মৃত ও আক্রান্তের সংখ্যা চীনেই সবচেয়ে বেশি।

পরিস্থিতির ভয়াবহতা প্রসঙ্গে হু-এর ডিরেক্টর জেনারেল টেড্রস অ্যাডানম গেব্রেয়েসুস বলেছেন, ‘ভাইরাসকে যেনতেন প্রকারে ঠেকাতে হবে। এটা আত্মসমর্পণের সময় নয়। কোনও অজুহাতের সময় নয়। কাঁধে কাঁধ মিলিয়ে এই কঠিন পরিস্থিতির বিরুদ্ধে সবাইকে রুখে দাঁড়াতে হবে।’

বিশ্বের ৮৫টি দেশে ছড়িয়ে পড়েছে করোনা। মৃত্যুর সংখ্যা লাফিয়ে লাফিয়ে বাড়ছে। চীনে বৃহস্পতিবার নতুন করে ৩০ জনের মৃত্যু হয়েছে। আমেরিকাতেও মৃতের সংখ্যা বাড়ছে। সেখানে এখনও পর্যন্ত মৃত্যু হয়েছে ১২ জনের। দক্ষিণ কোরিয়ায় মৃতের সংখ্যা ৪২।

অন্য দিকে, ইরানে সংখ্যাটা পৌঁছে গিয়েছে ১০৭-এ। সেখানে আক্রান্তের সংখ্যাও হু হু করে বাড়ছে। ইতিমধ্যেই সেখানে আক্রান্ত হয়েছেন প্রায় সাড়ে ৩ হাজার। সেখানে বন্ধ করে দেওয়া হয়েছে স্কুল, বিশ্ববিদ্যালয়গুলি। বিভিন্ন শহরে চেকপয়েন্ট তৈরি করা হয়েছে যাতে নাগরিকদের যাতায়াতে রাশ টানা যায়। ‘পেপার মানি’কম ব্যবহারের নির্দেশ দেওয়া হয়েছে নাগরিকদের। করোনার হানায় ইতালিতে মৃত্যুর সংখ্যা দাঁড়িয়েছে ১৪৮। ইউরোপের মধ্যে প্রথম এই দেশে এই ভাইরাস সংক্রামিত হয়। সব মিলিয়ে মৃতের সংখ্যাটা ছাড়িয়েছে সাড়ে তিন হাজারের গণ্ডি।

ভারতেও করোনা আক্রান্তের সংখ্যা দিনে দিনে বাড়ছে। এখনও পর্যন্ত দেশটিতে ৩১ জন করোনায় আ্রকান্ত হয়েছেন। করোনাভাইরাসকে কী ভাবে প্রতিরোধ করা যায় তা নিয়ে দেশের সব রাজ্যের স্বাস্থ্য প্রতিনিধিদের নিয়ে বৈঠকে বসতে চলেছে কেন্দ্রীয় স্বাস্থ্য মন্ত্রণালয়ক।

দিল্লি সংলগ্ন গাজিয়াবাদে করোনা সংক্রমণের খবর আসার পরই জাতীয় রাজধানীর সব সরকারি এবং বেসরকারি প্রাইমারি স্কুল আগামী ৩১ মার্চ পর্যন্ত বন্ধ রাখার সিদ্ধান্ত নিয়েছে সরকার।

এদিকে করোনার প্রভাবে হু হু করে দাম বাড়ছে শুরু করেছে সার্জিকাল মাস্কের। ভারতে সাধারণত এই মাস্কগুলোর দাম ১০-১২ টাকা। কিন্তু সেই দাম এক লাফে ৫০ টাকায় পৌঁছেছে কোনও কোনও জায়গায়। বুধবারই ইতালি এবং দক্ষিণ কোরিয়া থেকে জম্মু-কাশ্মীরের দুই বাসিন্দা দেশে ফেরেন। তাদের সরকারি হাসপাতালে পরীক্ষার জন্য নিয়ে যাওয়া হয়। আইসোলেশন ওয়ার্ডে রাখা হয়েছিল তাদের। কিন্তু সেখান থেকে পালিয়ে যান তারা। তবে পরে তাদের আবারও হাসপাতালে ফিরিয়ে আনা হয়েছে।

সূত্র: আনন্দবাজার

আপনার মতামত লিখুন

আন্তর্জাতিক বিভাগের সর্বোচ্চ পঠিত সংবাদ