বৃহস্পতিবার-৯ই এপ্রিল, ২০২০ ইং-২৬শে চৈত্র, ১৪২৬ বঙ্গাব্দ, সময়: বিকাল ৩:৪৬, English Version
অসহায়দের প্রতি সাহায্যের হাত বাড়ালো পুলেরপাড় ফাউন্ডেশন খানসামায় দরিদ্র ও কর্মহীনদের পাশে যমুনা ব্যাংক কর্মকর্তা গৌরাংগ চন্দ্র সরকার পার্বতীপুরে ১১ পত্রিকা বিক্রেতাদের খাদ্য সহায়তা এইচএসসি পরীক্ষা পরিস্থিতি স্বাভাবিক হওয়ার ১৫ দিন পর লকডাউনের মধ্যে দিয়ে জীবনের ঝুঁকি নিয়ে কাজ করে যাচ্ছেন ডাক্তার খুনি মাজেদের প্রাণভিক্ষার আবেদন খারিজ আজ পবিত্র শবে বরাত

এমপি আসলামুলের বাধা বুড়িগঙ্গা তীরে উচ্ছেদ অভিযানে

প্রকাশ: বুধবার, ৪ মার্চ, ২০২০ , ২:৫০ অপরাহ্ণ , বিভাগ : ঢাকা,সারাদেশ,

এমএন২৪.কম ডেস্ক : বাংলাদেশ অভ্যন্তরীণ নৌ-পরিবহন কর্তৃপক্ষ (বিআইডব্লিউটিএ) বুড়িগঙ্গার তীরে উচ্ছেদ অভিযান চালাচ্ছে। অভিযোগ পাওয়া গেছে, এ উচ্ছেদ অভিযান বন্ধের নির্দেশ দেন ঢাকা-১৪ আসনে সরকারদলীয় সংসদ সদস্য আসলামুল হক। তবে বাধা উপেক্ষা করেই অভিযান চালাচ্ছে কর্তৃপক্ষ।

আজ বুধবার বেলা সোয়া ১১টার দিকে বছিলা সেতুর পশ্চিম পাশে বুড়িগঙ্গার তীরে নিজে এসে চলমান উচ্ছেদ অভিযান বন্ধ করার নির্দেশ দেন আসলামুল হক।

কেরানীগঞ্জে বছিলা সেতুর পশ্চিম পাশে চর ওয়াশপুর এলাকায় বুড়িগঙ্গার তীরে বিদ্যুৎ উৎপাদন কেন্দ্র তৈরি করেছেন আসলামুল হক। এই বিদ্যুৎ উৎপাদন কেন্দ্রটি তৈরি করতে গিয়ে তিনি নদীর কিছু অংশ দখল করেছেন বলে দাবি বিআইডব্লিউটিএর।

মঙ্গলবার এখানে অভিযান চালিয়েছিল সংস্থাটি। অভিযান চালিয়ে প্রায় ৩ একর জায়গায় উদ্ধার করা হয়েছে। বিআইডব্লিউটিএ বলছে, সাংসদের দখলে আছে ৫ একর জায়গা। গুঁড়িয়ে দেয়া হয়েছে ২৩টি স্থাপনা। দ্বিতীয় দিনের মতো বুধবার সকাল ১০টায় উচ্ছেদ অভিযান শুরু হয়। তবে বেলা সোয়া ১১টার দিকে ঘটনাস্থলে এসে আসলামুল হক কাজ বন্ধ করার নির্দেশ দেন।      সূত্র : বাংলাদেশ জার্নাল

এ সময় বিআইডব্লিউটিএর কর্মকর্তাদের উদ্দেশে এই সংসদ সদস্য বলেন, যৌথ জরিপের যে কথা বলে উচ্ছেদ অভিযান চালানো হচ্ছে, তাকে সেই কাগজ না দেখালে কাজ বন্ধ থাকবে। তিনি কাজ করতে দেবেন না। এ সময় সাংবাদিকদের তিনি বলেন, বিদ্যুতের পাওয়ার প্ল্যান্ট তৈরি করার সময় বিআইডব্লিউটিএ তাকে অনাপত্তিপত্র দিয়েছিল। আবার তারাই বিনা নোটিশে তার এই জায়গায় উচ্ছেদ অভিযান চালাচ্ছে।

এ প্রসঙ্গে অভিযানে থাকা বিআইডব্লিউটিএর যুগ্ম পরিচালক ঢাকা নদী বন্দরের নিয়ন্ত্রণ কর্মকর্তা একেএম আরিফ উদ্দিন বলেন, সাংসদ আসলামকে যে জায়গা ব্যবহার করার জন্য তারা অনাপত্তি দিয়েছে সেই জায়গাতে তারা উচ্ছেদ অভিযান চালাচ্ছে না। সংসদ সদস্য নদীর যে জায়গা ভরাট করেছেন, সেখানে বিআইডব্লিউটিএর উচ্ছেদ অভিযান চলছে।

সরেজমিনে দেখা গেছে, আসলামুল হক যখন ঘটনাস্থলে আসেন তখন তার সঙ্গে অন্তত ৭০ থেকে ৮০ জন লোক ছিলো। তখন তাদের ধাওয়া দিয়ে এই এলাকা থেকে বের করে দেয়া হয়। দুপুর সাড়ে ১২টায় এই প্রতিবেদন লেখা পর্যন্ত বিআইডব্লিউটিএ দুটি এক্সকাভেটর দিয়ে আসলামুল হকের ভরাট করা জায়গায় অবৈধ স্থাপনা অপসারণ করছে।

আপনার মতামত লিখুন

ঢাকা,সারাদেশ বিভাগের সর্বোচ্চ পঠিত সংবাদ