বুধবার-৮ই এপ্রিল, ২০২০ ইং-২৫শে চৈত্র, ১৪২৬ বঙ্গাব্দ, সময়: রাত ৯:২৫, English Version
একটি শোক সংবাদ সৈয়দপুরে দেড়শ কর্মহীন পরিবারের সহায়তায় হাত বাড়ালো গোলামে মুস্তফা কমিটি অসহায়দের ঘরে ঘরে খাদ্যসামগ্রী পৌঁছে দিচ্ছেন স্বেচ্ছাসেবক লীগ নেতা এ্যাপোলো শবে বরাতে বিশেষ দোয়া করার এবং কবরস্থান ও মাজারে জনসমাগম না করার আহ্বান ইসলামিক ফাউন্ডেশনের বঙ্গবন্ধুকে হত্যাকাণ্ডে ঘাতক মাজেদের কি ভুমিকা ছিলো ভুয়া তথ্যের খবরে আটক ভয়েস অফ পাইকগাছা ফেসবুক পেজের পরিচালক স্পেশাল ব্রাঞ্চ ঢাকার পক্ষ থেকে নবনিযুক্ত ইন্সপেক্টর জেনারেল কে অভিনন্দন

জন্মের পরেই ‘রেগে আগুন’ নবজাতক!

প্রকাশ: রবিবার, ২৩ ফেব্রুয়ারি, ২০২০ , ৫:১৪ অপরাহ্ণ , বিভাগ : আন্তর্জাতিক,

এমএন২৪.কম ডেস্ক : একটি বাচ্চা জন্মানোর পরেই চিকিৎসকেরা চেষ্টা করেন কাঁদাতে। নবজাতকের ফুসফুস সঠিকভাবে কাজ করছে কি-না তা জনতেই এই চেষ্টা করা হয়ে থাকে। কিন্তু এক নবজাতককে কাঁদানো চেষ্টা করতে গিয়ে বিপাকে পড়েছেন চিকিৎসকেরা! রেগে আগুন ওই নবজাতক।

জানা যায়, ১৩ ফেব্রুয়ারি ব্রাজিলের রিও ডি জেনিরোর একটি হাসপাতালে জন্ম হয় এক শিশু কন্যার। জন্মের পর থেকেই তাকে কাঁদাতে পারেননি চিকিৎসকেরা। তার অ্যাম্বিক্যাল কর্ড কাটার আগে থেকেই চিকিৎসকেরা তাকে কাঁদানোর চেষ্টা করেন। উল্টে চিকিৎসকদের দিকে রাগী মুখে তাকিয়ে থাকে নবজাতক। নবজাতকের এই ছবিই ভাইরাল হয়েছে সোশ্যাল মিডিয়ায়।

অভিভাবকরা নবজাতক সেই শিশু কন্যার নাম ইসাবেলা পেরেরা ডি জিসাস। রিও ডি জেনিরোর সংলগ্ন সেই হাসপাতালের চিকিৎসকরা জানিয়েছেন, এর আগে কোনো নবজাতকের এমন অভিব্যক্তি তারা দেখার সুযোগ দেখেনি। তাই এই বিরল দৃশ্য ঘটনাস্থলেই ক্যামেরাবন্দি করেন নবজাতকের বাবা।

নবজাতকের বাবা পেশায় ফটোগ্রাফার, নাম রড্রিগো কুনস্টম্যান। তাকে কাঁদানোর চেষ্টায় ইসাবেলার এই অভিব্যক্তিতে হতবাক সকল চিকিৎসক। জানা গেছে, অ্যাম্বিক্যাল কর্ড কাটার পরে কাঁদতে শুরু করেছিল এই ‘রাগী’ শিশু কন্যা।

ইসাবেলার বাবা জানিয়েছেন, এই মুহূর্তটা কখনোই ভুলার নয়। একদিকে খুব দুঃশ্চিন্তা তার মধ্যে জন্মানোর ঠিক পরেই মেয়ের এমন অভিব্যক্তি যদি ক্যামেরাবন্দি না করতাম তবে কিছুতেই আমার স্ত্রীকে এই দৃশ্য দেখাতে পারতাম না। চিকিৎসকেরা রীতিমতো নাজেহাল হয়ে গিয়েছিলেন ওকে কাঁদানোর চেষ্টায়। তারপর এমন এক্সপ্রেশনে চিকিৎসকেরা হেসেই ফেলেছেন।

আপনার মতামত লিখুন

আন্তর্জাতিক বিভাগের সর্বোচ্চ পঠিত সংবাদ