শুক্রবার-২৮শে ফেব্রুয়ারি, ২০২০ ইং-১৫ই ফাল্গুন, ১৪২৬ বঙ্গাব্দ, সময়: রাত ১১:৫৭, English Version
ঘুমানোর আগে দুধ খেলে কী উপকার পাবেন তওবা করে ইসলাম গ্রহণ করলেন ২১ কাদিয়ানি (ভিডিও) মুজিববর্ষে ৪০ হাজার তরুণকে প্রশিক্ষণ দেয়া হবে: পলক পাপিয়া-সম্রাটদের সাম্রাজ্য এবং নানা প্রশ্ন পাপিয়ার মোবাইল কললিস্টে ১১ এমপির নাম ২০৪৬ অফিসার নেবে ৯ ব্যাংক চাঁপাইনবাবগঞ্জে মাদক সেবন করার অপরাধে -১৩জন মাদক সেবনকারী গ্রেপ্তার

বেকার সমস্যা দূর করতে পদক্ষেপ নিয়েছে সরকার: পলক

প্রকাশ: রবিবার, ২৬ জানুয়ারি, ২০২০ , ১১:৩৬ অপরাহ্ণ , বিভাগ : তথ্য-প্রযুক্তি,

এমএন২৪.কম ডেস্ক : বঙ্গবন্ধুকে হত্যা করা না হলে আজ বাংলাদেশ উন্নত দেশে পরিণত হতো এমন মন্তব্য করে তথ্য ও যোগাযোগ প্রযুক্তি প্রতিমন্ত্রী জুনাইদ আহমেদ পলক বলেছেন, জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু একদিনে ৩৬ হাজার প্রাথমিক বিদ্যালয় সরকারি করেছিলেন। তিনি বেঁচে থাকলে শিক্ষা প্রতিষ্ঠান করকারি করার জন্য এত কষ্ট করতে হত না। তার মৃত্যুর পরে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা ১০০% শিক্ষা নিশ্চিতের জন্য কাজ করে যাচ্ছেন। প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা বছরের প্রথম দিনেই বই উৎসবের মাধ্যমে শিক্ষার্থীদের মাঝে বিনামূল্যে বই তুলে দিচ্ছেন।

রোববার (২৬ জানুয়ারি) বিকালে নাটোরের সিংড়া কোর্ট মাঠে উপজেলা প্রশাসন ও শিক্ষা অধিদপ্তরের যৌথ আয়োজনে চলনবিল শিক্ষা উৎসবে প্রধান অতিথির বক্তব্যে তিনি এসব কথা বলেন।

জুনাইদ আহমেদ পলক বলেন, একসময় সিংড়ার চলনবিলের মানুষ বঞ্চিত, নির্যাতিত ছিল। কিন্তু বর্তমান সরকারের সুদৃষ্টির কারণে সিংড়ায় উন্নয়নের জোয়ার বইছে। প্রধানমন্ত্রীর কল্যাণে সিংড়ায় ২৫২ কোটি টাকা ব্যয়ে টেকনিক্যাল স্কুল এন্ড কলেজ, আইসিটি পার্ক, শেখ কামাল আইসিটি ইনকিউবেশন সেন্টার নির্মিত হচ্ছে।

তিনি বলেন, পৃথিবী পরিবর্তনে বাবা-মা ও শিক্ষকের অবদান সবচেয়ে বেশি। শিক্ষার্থীদের উদ্দেশ্যে তিনি বলেন, শিক্ষা ব্যবস্থার মূল উদ্দেশ্য জিপিএ ৫ অর্জন করা নয়, মানুষের মত মানুষ হওয়া। একজন সৎ, আদর্শবান, নৈতিকতা, বিবেক সম্পন্ন দেশপ্রেমী মানুষ দেশের সম্পদ রক্ষা করতে পারে, দেশের জন্য ভাল করতে পারে।

উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা নাসরিন বানুর সভাপতিত্বে এসময় অন্যানের মধ্যে বক্তব্য রাখেন জেলা প্রশাসক মোঃ শাহরিয়াজ পিএএ, পুলিশ সুপার লিটন কুমার সাহা, সিংড়া পৌরসভার মেয়র জান্নাতুল ফেরদৌস, উপজেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি ওহিদুর রহমান শেখ, জেলা শিক্ষা কর্মকর্তা রমজান আলী আকন্দ প্রমূখ।

আলোচনা সভান্তে অদম্য মেধাবী কৃতি শিক্ষার্থী, শিক্ষকদের সম্মাননা, রত্নগর্ভা, মরণোত্তর গুণীজন সম্মাননা প্রদান করা হয়। পরে সেখানে এক মনোজ্ঞ সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠানের আয়োজন করা হয়।

আপনার মতামত লিখুন

তথ্য-প্রযুক্তি বিভাগের সর্বোচ্চ পঠিত সংবাদ