সোমবার-৬ই এপ্রিল, ২০২০ ইং-২৩শে চৈত্র, ১৪২৬ বঙ্গাব্দ, সময়: রাত ১:০৮, English Version
বেসরকারি হাসপাতালগুলোকে এই দুর্যোগে জনগণের পাশে থাকার আহ্বান তথ্যমন্ত্রীর মাস্ক ছাড়া কেউই এ সময় বাইরে বের হবেন না                                          –স্বাস্থ্যমন্ত্রী ঠাকুরগাঁওয়ে কর্মহীন হোটেল শ্রমিকদের পাশে আর.ডি.এস এর পরিচালক আলমগীর হোসেন দেশে করোনায় আরও ১ জনের মৃত্যু, নতুন শনাক্ত ১৮ ছুটি বাড়ল ১৪ এপ্রিল পর্যন্ত অঘোষিত লক ডাউন চলছে তারি মধ্যে দিয়ে বাড়ি বাড়ি খাদ্য পৌছিয়ে দিলেন এমপি জেসী বাংলাদেশে যেসব ল্যাবে করোনা ভাইরাস শনাক্তকরণে কাজ চালু রয়েছে ও মোবাইল নম্বরসহ

কৈশোরবান্ধব সেবা কেন্দ্র সবসময় খোলা রাখার দাবীতে মানববন্ধন

প্রকাশ: রবিবার, ১৯ জানুয়ারি, ২০২০ , ৪:৪৭ অপরাহ্ণ , বিভাগ : ময়মনসিংহ,সারাদেশ,

এমএন২৪.কম ডেস্ক : সপ্তাহজুড়ে সারাবেলা, কৈশোরবান্ধব সেবা কেন্দ্র খোলা রাখার দাবীতে সারাদেশের ন্যায় আজ রবিবার সকালে ময়মনসিংহের পাটগুদাম বালিকা বিদ্যালয়ের সামনে মানববন্ধন করেছে সিরাক-বাংলাদেশ। বর্তমানে সারাদেশে জেলা ও ইউনিয়ন পর্যায়ে ৬০৩ টি কৈশোর বান্ধব সেবাকেন্দ্র চালু করেছে যা কিশোর-কিশোরী ও তরুণ-তরুনীদের প্রজনন স্বাস্থ্য বিষয়ক তথ্য প্রাপ্তিতে সহায়তা করছে।কিন্তু, এ সেবা কেন্দ্রগুলোতে বর্তমান সময়সূচী সকাল ৯ টা থেকে বেলা ৩.৩০ পর্যন্ত হওয়ায় অধিকাংশ স্কুল-কলেজ পড়ুয়া শিক্ষার্থীরা এ সময়ে সেবা গ্রহণ করতে পারে না। যদি এ সময়সীমা সপ্তাহে ৭ দিন এবং বিকেল ৫ টা পর্যন্ত হয় তবে শিক্ষার্থীরা সহজে এ সেবা গ্রহণ করতে পারে।এরই লক্ষ্যে সাম্প্রতিককালে সিরাক-বাংলাদেশ এর উদ্যোগে কৈশোরবান্ধব সেবা কেন্দ্রের সময়সূচী বৃদ্ধি এবং যৌন ও প্রজনন স্বাস্থ্য বিষয়ক তথ্য ও সেবার পরিসর বৃদ্ধির সুপারিশ করা হয়। এরই লক্ষ্যে ময়মনসিংহ, সিলেট, খুলনা, বরিশাল ও রংপুর বিভাগের মানববন্ধন করা হয়।উলে¬খ্য, প্রজনন স্বাস্থ্যসেবা প্রাপ্তি প্রতিটি মানুষের মানবাধিকার – এ কথাটি সাধারন মানুষ, বিশেষ করে তরুণদের কাছে একটি লজ্জার বিষয় হিসেবেই বিবেচনা করা হয়। এ বিষয়ে অজ্ঞতার কারণে কিশোরী বয়সে বাল্যবিয়ের শিকার হয়ে অকাল গর্ভধারণ, অনিরাপদ যৌন সম্পর্ক, প্রজনন স্বাস্থ্য জটিলতা, এবং সন্তান জন্মদান করতে গিয়ে প্রতিবছর হাজারো কিশোরী মৃত্যুর সাথে লড়ে, যার ফলশ্র“তিতে মাতৃমৃত্যু ও শিশুমৃত্যুর হার বৃদ্ধি পায়।

ইউএনএইডস (২০১০) এর সূত্রানুসারে, বিশ্বজুড়ে প্রতি বছর ১৫-২৪ বছর বয়সী প্রায় ১০ লক্ষ তরুণ জনগোষ্ঠী সামঞ্জস্যহীনভাবে এইচআইভিতে আক্রান্ত হচ্ছে। এবং পরিবার পরিকল্পনা অধিদপ্তর এর ২০১৩ সালের তথ্য অনুসারে ৫৩ শতাংশ কিশোরী-তরুণ আধুনিক জন্মনিয়ন্ত্রণ পদ্ধতিসমূহ ব্যবহার করার সুযোগ পাচ্ছে না। এ সমস্যা নিরসনে কিশোর বয়স থেকেই প্রজনন স্বাস্থ্য সম্পর্কিত তথ্য ও সেবা নিশ্চিত করতে হবে।

আপনার মতামত লিখুন

ময়মনসিংহ,সারাদেশ বিভাগের সর্বোচ্চ পঠিত সংবাদ