বুধবার-২২শে জানুয়ারি, ২০২০ ইং-৯ই মাঘ, ১৪২৬ বঙ্গাব্দ, সময়: রাত ৪:৫০, English Version
নীলফামারীতে আবারও মৃদু শৈত্যপ্রবাহে জনজীবন বিপর্যস্ত সরকার লবণচাষিদেরকে সুরক্ষা প্রদান করবে নির্বাচন কমিশনের বিধি-বিধান বিএনপি’র জন্য লাভজনক -তথ্যমন্ত্রী সুন্দরগঞ্জে আবিষ্কার ফাউন্ডেশনের কম্বল বিতরণ নীলফামারীতে আজ মিজানুর রহমান আজহারীর তাফসিরুল কুরআন মাহফিলে ১০ লক্ষাধিক মানুষের উপস্থিতির টার্গেট নাচোলে লটারির টিকিট বিক্রির অপরাধে ১৩ কারাদণ্ড। পার্বতীপুরে জোড়া হত্যাকান্ড মামলার পলাতক আসামী গ্রেফতার

সিরিয়ার কুর্দি নেতা হেভরিন খালাফের হত্যাকাণ্ড নিয়ে ধূম্রজাল

প্রকাশ: মঙ্গলবার, ১৪ জানুয়ারি, ২০২০ , ৪:৩৩ অপরাহ্ণ , বিভাগ : আন্তর্জাতিক,

এমএন২৪.কম ডেস্ক : অ্যারাবিকের তদন্তে জোরালো প্রমাণ পাওয়া গেছে যে, সিরিয়ান-কুর্দি রাজনৈতিক নেতা হেভরিন খালাফকে হত্যা করেছে তুরস্কপন্থি সিরিয়ান ন্যাশনাল আর্মির একটি দল। তবে আহরার আল-শারকিয়া নামে ওই গোষ্ঠীটি জানিয়েছে যে, এ মৃত্যুর জন্য তারা দায়ী নয়।

কিন্তু এ ঘটনায় পাওয়া প্রমাণগুলো বলছে অন্য কথা। ৩৪ বছর বয়সী হেভরিন খালাফ সিরিয়ার সকল জাতিগোষ্ঠীর মধ্যে কয়েক বছর ধরে সমতা প্রতিষ্ঠার জন্য প্রচারণা চালিয়ে আসছিলেন। সিরিয়ার উত্তরাঞ্চলে কুর্দি অধ্যুষিত এলাকা যা কুর্দি ভাষায় রোজাভা নামে পরিচিত, সেখানে তুর্কি আগ্রাসনের বিরুদ্ধে তিনি একটি দৃঢ় অবস্থান নিয়েছিলেন। এই তরুণ রাজনীতিবিদ ফিউচার সিরিয়া পার্টির প্রতিষ্ঠায় সহায়তা করেছিলেন, যাদের লক্ষ্য ছিল সিরিয়ার খ্রিস্টান, কুর্দি এবং আরবরা যেন পাশাপাশি কাজ করতে পারে। এ অঞ্চলটি পুনর্গঠনে তাদের বিভিন্ন চ্যালেঞ্জের মুখোমুখি হতে হয়েছিল। হেভরিন খালাফের সহকর্মী, বন্ধু এবং সাবেক রুমমেট নুবার মোস্তফা বলেন, ‘আমি আমার একজন বোন, একজন কমরেড, একজন নেতা এবং কর্মস্থলে আমাদের কমরেডরাও তাদের একজন নেতাকে হারিয়েছে। আমরা এমন এক নারীকে হারিয়েছি যিনি অন্য নারীদের কণ্ঠস্বর তুলে ধরতে চেয়েছিলেন। যিনি মানুষের ক্ষমতায়ন চেয়েছিলেন এবং শান্তির জন্য কাজ করে যাচ্ছিলেন।’ গত বছররের ১২ অক্টোবর ভোর সাড়ে ৫টার দিকে হেভরিন খালাফ, উত্তর সিরিয়ার আল-হাসাকাহ শহর থেকে রাক্কায় তার পার্টির সদর দফতরের উদ্দেশে নিজে গাড়িতে রওনা হন। সেখানে যাওয়ার জন্য তিনি পশ্চিমের এমফোর মোটরওয়ে ব্যবহার করেন। বাড়ি আর কর্মস্থলের এলাকা দুটি তিন ঘণ্টার দূরত্বে ছিল। মার্কিন সেনারা ওই অঞ্চল থেকে সরে আসার মাত্র তিন দিন হয়েছিল। এর মধ্যে তুর্কি সেনাবাহিনী সিরিয় সীমান্ত অতিক্রম করে সামরিক অভিযান শুরু করতে পারবে তুরস্কের প্রেসিডেন্ট এরদোয়ানকে এমন অনুমোদন দেয়া হয়েছিল। এমফোর মোটরওয়েটি ফ্রন্টলাইনের কাছাকাছি কোথাও ছিল না। তবে প্রত্যক্ষদর্শীরা জানিয়েছে যে তারা একটি সামরিক কনভয়কে তুরস্ক থেকে সিরিয়ার সীমান্ত অতিক্রম করে দক্ষিণে এমফোর মোটরওয়ের দিকে যেতে দেখেছে। একটি ভিডিওতে, আহরার আল-শারকিয়া গোষ্ঠীর একজন তার এক সহকর্মীকে বলতে শোনা যায় তিনি মাটিতে পড়ে থাকা কাউকে গুলি করার সময় সেই দৃশ্য যেন ভিডিওতে ধারণ করেন। এই হত্যাকাণ্ডের দৃশ্য ধারণ করা হয় তিরওয়াজিয়া চেকপয়েন্টে। সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমে আহরার আল-শারকিয়ার পোস্ট করা নিজস্ব ভিডিও এবং এক প্রত্যক্ষদর্শী যিনি বিবিসি নিউজ অ্যারাবিকের সঙ্গে বিশেষভাবে কথা বলেছেন, এই দুটি বিষয় এমন ইঙ্গিত দেয় যে ওই কুর্দি রাজনীতিবিদকে এই গোষ্ঠীর লোকেরাই হত্যা করেছে। বিবিসির ভূ-অবস্থান বা জিওলোকেশন বিশ্লেষণে দেখা গেছে যে হেভরিন খালাফের গাড়িটি তিরওয়াজিয়া চৌকির পাশে যে রাস্তার তার বাইরেই ছিল। সেদিন আহরার আল-শারকিয়ার পোস্ট করা সর্বশেষ ভিডিওতে, যোদ্ধাদের হেভরিনের গাড়িটি ঘিরে থাকতে দেখা গেছে। গাড়িটির মেঝেতে একটি মৃতদেহ পড়ে থাকতে দেখা যায়, সেটা হেভরিনের ড্রাইভার ফরহাদ রমজানের বলে ধারণা করা হচ্ছে। ভিডিওটির এক পর্যায়ে গাড়ির ভিতরে থেকে যখন কোনো নারীর ম্লান কণ্ঠস্বর শোনা যায়। জাতিসংঘের মানবাধিকার কমিশনার, হেভরিন খালাফ হত্যার বিষয়ে নিরপেক্ষ তদন্ত শুরু করার জন্য তুরস্ককে অনুরোধ করেছেন। কিন্তু এখনো সেই তদন্ত হয়নি। উত্তর সিরিয়ায় তুর্কি সামরিক আক্রমণ শুরুর পর থেকে তুরস্কের প্রেসিডেন্ট রিসেপ তাইপ এরদোয়ান বলে আসছেন যে সন্ত্রাসবাদ বন্ধ করতে এবং শান্তির সুরক্ষার জন্য সামরিক অভিযানের প্রয়োজন ছিল।

আপনার মতামত লিখুন

আন্তর্জাতিক বিভাগের সর্বোচ্চ পঠিত সংবাদ