মঙ্গলবার-২১শে জানুয়ারি, ২০২০ ইং-৮ই মাঘ, ১৪২৬ বঙ্গাব্দ, সময়: সকাল ৮:২৯, English Version
ঢাকা সিটি নির্বাচনে সাংবাদিক পরিচয়পত্র আবেদনের শেষ তারিখ ২৭ জানুয়ারি পাথরঘাটা ওয়ার্ডে কম্বল বিতরণ করলেন সিটি মেয়র উন্নত রাষ্ট্রের দিকে এগিয়ে যাচ্ছে বাংলাদেশ : কৃষিমন্ত্রী চসিক পরিচালিত শিক্ষা প্রতিষ্ঠান সমূহের পরিচালনা পরিষদের সভা অনুষ্ঠিত সিরাজগঞ্জে ট্রেনের ধাক্কায় বৃদ্ধা নিহত ধর্মপাশায় শীত ও কুয়াশা উপেক্ষা করে চলছে বোরো রোপণ রাণীশংকৈলে প্রাইম কোর্ট ছাড়াই চলছে রাস্তা পাকা করণের কাজ

প্রতীক পেলেন ঢাকা উত্তর-দক্ষিণের মেয়র প্রার্থীরা

প্রকাশ: শুক্রবার, ১০ জানুয়ারি, ২০২০ , ৮:৩৪ অপরাহ্ণ , বিভাগ : রাজনীতি,

এমএন২৪.কম ডেস্ক : আসন্ন ঢাকা উত্তর ও দক্ষিণ সিটি করপোরেশন (ডিএসসিসি) নির্বাচনে স্ব-স্ব প্রতীক বুঝে পেয়েছেন মেয়র প্রার্থীরা। ঢাকা উত্তর সিটি করপোরেশন (ডিএনসিসি) নির্বাচনে ৬ মেয়র প্রার্থী প্রতীক বরাদ্দ পেয়েছেন। আর ঢাকা দক্ষিণ সিটি করপোরেশন (ডিএসসিসি) ৭ মেয়র প্রার্থীকে নিজ নিজ দলের প্রতীক বরাদ্দ দেওয়া হয়েছে। আজ শুক্রবার (১০ জানুয়ারি) সকাল সাড়ে ৯টায় আগারগাঁওয়ে স্থানীয় সরকার মন্ত্রণালয়ের (এনএলআই) ভবনের অডিটোরিয়ামে ঢাকা উত্তরের মেয়র প্রার্থীদের প্রতীক বরাদ্দ করেন ডিএনসিসি নির্বাচনের রিটার্নিং অফিসার মো. আবুল কাসেম।

ঢাকা উত্তরের মেয়র প্রার্থীদের মধ্যে আওয়ামী লীগ মনোনীত প্রার্থী আতিকুল ইসলাম পেয়েছেন নৌকা প্রতীক, বিএনপি মনোনীত প্রার্থী তাবিথ আউয়াল পেয়েছেন ধানের শীষ, কমিউনিস্ট পার্টি মনোনীত ডা. সাজেদুল হক রুবেল পেয়েছেন কাস্তে মার্কা, প্রগতিশীল গণতান্ত্রিক দলের শাহিন খান পেয়েছেন বাঘ প্রতীক, ইসলামী আন্দোলন বাংলাদেশের শেখ মোহাম্মদ ফজলে বারী মাসুদ হাতপাখা, ন্যাশনাল পিপলস পার্টির আনিসুল হক দুলাল পেয়েছেন আম প্রতীক। প্রতীক বরাদ্দের সময় ডিএনসিসি নির্বাচনের রিটার্নিং অফিসার মো. আবুল কাসেম বলেন, শুক্রবার থেকে নির্বাচনের যুদ্ধ মাঠে চলে যাবে। পদের প্রার্থীরা যেন কোনোমতেই আচরণবিধি লঙ্ঘন না করে সেই বিষয়ে আমি অনুরোধ করছি। কোনো প্রার্থী লঙ্ঘন করলে তার বিরুদ্ধে যথাযথ ব্যবস্থা নেওয়া হবে। নির্বাচন হলো একটি উৎসব। এই উৎসবকে আমরা কোনোক্রমেই সংঘর্ষে রূপ নিতে দেবো না। রাস্তাঘাট বন্ধ করে কোনো জনসভা করতে দেওয়া হবে না। এ সময় প্রত্যেক মেয়র প্রার্থীদের একটি করে আচরণবিধি দেওয়া হয় এবং প্রার্থীদের আচরণবিধি মেনে চলার আহ্বান জানানো হয়। সেই সঙ্গে কোনো প্রার্থী রঙিন পোস্টার লাগাতে পারবেন না বলেও জানানো হয়। আচরণ বিধিমালা শতভাগ মেনে চলতে হবে বলেও উল্লেখ করেন উত্তর সিটি করপোরেশনের রিটার্নিং কর্মকর্তা। এদিকে শুক্রবার (১০ জানুয়ারি) সকালে গোপীবাগের সাদেক হোসেন খোকা কমিউনিটি সেন্টারে অবস্থিত ঢাকা দক্ষিণ সিটি নির্বাচনের রির্টানিং কর্মকর্তার কার্যালয়ে তাদের মধ্যে প্রতীক বরাদ্দ দেওয়া হয়। সকালে রির্টানিং কর্মকর্তা আবদুল বাতেন প্রতীক বরাদ্দের কার্যক্রম শুরু করেন। মেয়র পদে আওয়ামী লীগের শেখ ফজলে নূর তাপস ‘নৌকা’, বিএনপির ইশরাক হোসেন ‘ধানের শীষ’, জাতীয় পার্টির হাজী মোহাম্মদ সাইফুদ্দিন মিলন ‘লাঙ্গল’, ইসলামী আন্দোলনের আবদুর রহমান ‘হাতপাখা’, ন্যাশনাল পিপলস্ পার্টির (এনপিপি) বাহরানে সুলতান বাহার ‘আম’, বাংলাদেশ কংগ্রেসের আকতার-উজ্জামান ওরফে আয়াতুল্লা ‘ডাব’ এবং গণফ্রন্টের আব্দুস সামাদ সুজন ‘মাছ’ প্রতীকে নির্বাচনে অংশ নেবেন। প্রতীক বরাদ্দ অনুষ্ঠানে আওয়ামী লীগের শেখ ফজলে নূর তাপস বাদে অন্য সব মেয়রপ্রার্থীরা উপস্থিত ছিলেন। তাপসের পক্ষে ছিলেন তার খালাতো ভাই ও আইনজীবী আলী আসিফ খান। বর্তমানে ঢাকা দক্ষিণ সিটি করপোরেশনের ৭৫টি ওয়ার্ডের কাউন্সিলর পদে প্রতীক বরাদ্দ চলছে। সাধারণ কাউন্সিলর পদে ৩৩৫ জন প্রার্থীর মধ্যে প্রতীক বরাদ্দ দেওয়া হচ্ছে। ২৫টি সংরক্ষিত মহিলা কাউন্সিলর পদে ৮২ জন প্রতিদ্বন্দ্বী প্রার্থীর মধ্যে সবশেষ প্রতীক বরাদ্দ দেওয়া হবে। প্রতীক বরাদ্দের মধ্যদিয়ে প্রার্থীরা এখন আনুষ্ঠানিক প্রচারণায় যেতে পারবেন। নির্বাচন কমিশনের ঘোষিত তফসিল অনুযায়ী ২৮ জানুয়ারি রাত ১২টা পর্যন্ত প্রচারণা চালানো যাবে। প্রতীক বরাদ্দের অনুষ্ঠানে ঢাকা দক্ষিণ সিটি নির্বাচনের রির্টানিং কর্মকর্তা আবদুল বাতেন বলেন, প্রতীক বরাদ্দের মধ্য দিয়ে প্রার্থীরা এখন আইন মেনে প্রচারণা চালাতে পারবেন। দুপুর ২টা থেকে রাত ৮টা পর্যন্ত মাইকিং করে প্রচার চালানো যাবে। তিনি বলেন, প্রার্থীরা নির্বাচন কমিশনের অনুমতি নিয়ে ক্যাম্প স্থাপন করতে পারবেন। সেখানে শুধু নির্বাচনী প্রচারণা চালাতে পারবেন। কোন ধরনের মিছিল, শো-ডাউন, বড় ধরনের জনসভা ও তোরণ নির্মাণ করা যাবে না। তবে ঘরোয়া বৈঠকে প্রার্থীরা অংশ নিতে পারবেন। আগামী ৩০ জানুয়ারি ঢাকা দক্ষিণ সিটি করপোরেশন (ডিএসসিসি) ও ঢাকা উত্তর সিটি করপোরেশন (ডিএনসিসি) নির্বাচন অনুষ্ঠিত হবে।

আপনার মতামত লিখুন

রাজনীতি বিভাগের সর্বোচ্চ পঠিত সংবাদ