বুধবার-২২শে জানুয়ারি, ২০২০ ইং-৯ই মাঘ, ১৪২৬ বঙ্গাব্দ, সময়: রাত ৪:৪২, English Version
নীলফামারীতে আবারও মৃদু শৈত্যপ্রবাহে জনজীবন বিপর্যস্ত সরকার লবণচাষিদেরকে সুরক্ষা প্রদান করবে নির্বাচন কমিশনের বিধি-বিধান বিএনপি’র জন্য লাভজনক -তথ্যমন্ত্রী সুন্দরগঞ্জে আবিষ্কার ফাউন্ডেশনের কম্বল বিতরণ নীলফামারীতে আজ মিজানুর রহমান আজহারীর তাফসিরুল কুরআন মাহফিলে ১০ লক্ষাধিক মানুষের উপস্থিতির টার্গেট নাচোলে লটারির টিকিট বিক্রির অপরাধে ১৩ কারাদণ্ড। পার্বতীপুরে জোড়া হত্যাকান্ড মামলার পলাতক আসামী গ্রেফতার

৩০ টাকা কমলো পেয়াজের দাম

প্রকাশ: রবিবার, ৫ জানুয়ারি, ২০২০ , ৭:৩০ অপরাহ্ণ , বিভাগ : অর্থনীতি,

এমএন২৪.কম ডেস্ক : গত তিন দিন লাফিয়ে লাফিয়ে কেজিপ্রতি ৭০-৮০ টাকা দাম বাড়ার পর আজ রবিবার ৩০ টাকা কমেছে। এদিন পেঁয়াজের কেজি ১৪০-১৫০ টাকায় বিক্রি হতে দেখা গেছে। রাজধানীর কারওয়ান বাজার, মগবাজার, কাঁঠালবাগানসহ কয়েকটি বাজার ঘুরে এবং ব্যবসায়ীদের সাথে কথা বলে দামের এই চিত্র পাওয়া গেছে।

কারওয়ান বাজারে আজ সকালে দেখা গেছে, দেশি প্রতিকেজি পেঁয়াজ খুচরা পর্যায়ে বিক্রি হচ্ছে ১৪০-১৫০ টাকা। কিন্তু শনিবার এই পেঁয়াজ বিক্রি হয়েছিল ১৭০-১৮০ টাকা। তবে পাড়া-মহল্লার বাজারগুলোতে তুলনামূলক দাম একটু বেশি। মগবাজার ও কাঁঠালবাগানে ১৬০ থেকে ১৭০ টাকায় পেঁয়াজ বিক্রি হচ্ছে।

ব্যবসায়ীরা বলছেন, অপুষ্ট পেঁয়াজ তুলে বিক্রি করার কারণে সরবরাহে ঘাটতি দেখা দিয়েছে। এছাড়া বিভিন্ন জায়গায় কয়েকদিন ধরে বৃষ্টি ও তীব্র শীতের কারণে চাষীরা পেঁয়াজ তুলতে পারছে না। এসব কারণে দাম বেড়েছে। এখন বাজারে আবার পেঁয়াজের সরবরাহ বাড়ছে। এই জন্য আজ দামও কমছে।

কারওয়ান বাজারের পাকা মার্কেটের বিক্রেতা আবুল কাশেম বলেন, ‘গতকাল শনিবারে ১৭০ টাকায় বিক্রি করেছি। আজ ১৪০-১৫০ টাকায় বিক্রি করছি। পাইকাররা দাম বাড়ালে আমাদেরও বাড়াতে হয়।’

তিনি বলেন, বাজারে মুড়িকাটা পেঁয়াজ বিক্রি হচ্ছে। তবে পরিমাণে কম আসছে। কারণ দাম বেশি থাকার কারণে কৃষকেরা অপরিণত অবস্থায় পেঁয়াজ বিক্রি করে ফেলেছে। এ কারণে পেঁয়াজের পরিমাণ কমে গেছে। কিন্তু হঠাৎ করে সরবরাহ বেড়ে গেলে দাম কমে যায়।

স্বদেশ বাণিজ্যালয়ের বিক্রেতা সোহেল বলেন, ‘গত শুক্রবার ১৫০ টাকা বিক্রি করেছি। এরপর শনিবারে দাম বাড়ার কারণে ১৭০ টাকায় বিক্রি করেছি। কিন্তু আজ দাম কমেছে। তাই ১৪০-১৫০ টাকায় বিক্রি করছি। তবে দাম বাড়াকমা নির্ভর করে পেঁয়াজের সরবরাহের ওপর।’

আপনার মতামত লিখুন

অর্থনীতি বিভাগের সর্বোচ্চ পঠিত সংবাদ