মঙ্গলবার-৩১শে মার্চ, ২০২০ ইং-১৭ই চৈত্র, ১৪২৬ বঙ্গাব্দ, সময়: রাত ৮:০১, English Version
সাধারণ ছুটি ১১ এপ্রিল পর্যন্ত বাড়ল চাঁপাইনবাবগঞ্জ সদর হাসপাতালে খাবার তুলে দিলেন লেনিন প্রামাণিক চাঁপাইনবাবগঞ্জে সাবেক এমপি আব্দুল ওদুদের খাদ্যসামগ্রী বিতরণ পার্বতীপুরের পত্রিকা বিক্রেতাদের হাতে তুলেন দিলেন খাদ্য সামগ্রী- উপজেলা সমাজসেবা অফিসার পলাশবাড়ীতে পৌরসভার উদ্যোগে জিবানুনাশক স্প্রে কার্যক্রম শিবগঞ্জেমৃত ব্যক্তির করোনা ভাইরাস ছিলনা ১৫ বাড়ী লক ডাউন প্রত্যাহার পলাশবাড়ীতে কর্মহীন ভাসমান বেদে পরিবারের মানবেতর জীবনযাপন

রাশিয়ার নতুন ক্ষেপণাস্ত্র ছুটবে শব্দের গতির চেয়ে ২৭ গুণ দ্রুত

মুক্তিনিউজ২৪.কম ডেস্ক: রাশিয়ার প্রতিরক্ষা মন্ত্রণালয়সর্বাধুনিক ও দ্রুত গতিসম্পন্ন ক্ষেপণাস্ত্র অ্যাভানগার্ড-এর প্রথম রেজিমেন্ট মোতায়েনের ঘোষণা দিয়েছে। দেশটির প্রতিরক্ষামন্ত্রী সের্গেই সোইগু জানিয়েছেন, মস্কোর স্থানীয় সময় ২৭ ডিসেম্বর (শুক্রবার) নতুন এই ক্ষেপণাস্ত্র মোতায়েন করা হয়েছে। আনুষ্ঠানিক ঘোষণা দেওয়া না হলেও পশ্চিমাঞ্চলীয় উরাল পর্বতমালায় মোতায়েন হতে পারে বলে আগেই ইঙ্গিত পাওয়া গিয়েছিল। দেশটির সামরিক বাহিনীর দাবি, শব্দের চেয়ে ২৭ গুণ বেশি দ্রুত গতিতে ছুটতে পারে ক্ষেপণাস্ত্রটি। প্রেসিডেন্ট ভ্রাদিমির পুতিন বলেছেন, পারমাণবিক ক্ষমতাসম্পন্ন ক্ষেপণাস্ত্রটি প্রতিরোধ করা অসম্ভব।

২০১৮ সালের বার্ষিক স্টেট অব দ্য নেশন ভাষণে অন্যান্য অস্ত্রের পাশাপাশি অ্যাভানগার্ড ক্ষেপণাস্ত্র মোতায়েনের পরিকল্পনা উন্মোচন করেন রাশিয়ার প্রেসিডেন্ট ভ্লাদিমির পুতিন। সে সময় এটিকে উল্কাপিন্ড ও অগ্নিগোলকের সঙ্গে তুলনা করেন তিনি। ওই বছরের ডিসেম্বরে উরাল পর্বতমালার একটি ঘাঁটি থেকে পরীক্ষামূলক উৎক্ষেপণের পর ক্ষেপণাস্ত্রটি ৬ হাজার কিলোমিটার দূরের লক্ষ্যবস্তুতে আঘাত করে। পরীক্ষা শেষে পুতিন বলেন, বিদ্যমান ও প্রত্যাশিত ক্ষেপণাস্ত্র প্রতিরক্ষা ব্যবস্থায় অভেদ্য অ্যাভানগার্ড। আন্তমহাদেশীয় ব্যালেস্টিক ক্ষেপণাস্ত্রের চেয়ে অত্যাধুনিক অ্যাভানগার্ড দুই মেগাটন ওজন পযর্ন্ত পারমাণবিক অস্ত্র বহন করতে পারে। রাশিয়ার প্রেসিডেন্ট ভ্লাদিমির পুতিন বলেছেন, অ্যাভানগার্ড ক্ষেপণাস্ত্রটি নতুন জটিল উপকরণ ব্যবহারে তৈরি যা দুই হাজার ডিগ্রি সেলসিয়াস পর্যন্ত তাপমাত্রা সহ্য করতে পারে। ফলে এটি বায়ুমন্ডলের ভেতর দিয়ে শব্দের চেয়ে বহুগুণ বেশি দ্রুতি গতিতে ছুটতে পারে। অ্যাভানগার্ড সিস্টেমের একটি ভিডিও প্রকাশ করেছে রাশিয়ার প্রতিরক্ষা মন্ত্রণালয়। তবে পশ্চিমা দেশগুলোর অস্ত্র বিশেষজ্ঞরা এর কার্যকারিতা নিয়ে সংশয় প্রকাশ করেছেন। মার্কিন প্রতিরক্ষা দফতর পেন্টাগনের এক বিবৃতিতে বলা হয়েছে, নতুন ক্ষেপণাস্ত্রটি রাশিয়ার দাবির মতো সক্ষম নয়। একই রকম ক্ষেপণাস্ত্র কর্মসূচী চালাচ্ছে যুক্তরাষ্ট্র। চীনেরও রয়েছে একই কর্মসূচি। ২০১৪ সালে এই ধরণের ক্ষেপণাস্ত্রের পরীক্ষা চালানোর দাবি করে বেইজিং।সূত্র: এবিনিউজ

আপনার মতামত লিখুন

আন্তর্জাতিক,তথ্য-প্রযুক্তি বিভাগের সর্বোচ্চ পঠিত সংবাদ