বুধবার-২২শে জানুয়ারি, ২০২০ ইং-৯ই মাঘ, ১৪২৬ বঙ্গাব্দ, সময়: রাত ৪:৪২, English Version
নীলফামারীতে আবারও মৃদু শৈত্যপ্রবাহে জনজীবন বিপর্যস্ত সরকার লবণচাষিদেরকে সুরক্ষা প্রদান করবে নির্বাচন কমিশনের বিধি-বিধান বিএনপি’র জন্য লাভজনক -তথ্যমন্ত্রী সুন্দরগঞ্জে আবিষ্কার ফাউন্ডেশনের কম্বল বিতরণ নীলফামারীতে আজ মিজানুর রহমান আজহারীর তাফসিরুল কুরআন মাহফিলে ১০ লক্ষাধিক মানুষের উপস্থিতির টার্গেট নাচোলে লটারির টিকিট বিক্রির অপরাধে ১৩ কারাদণ্ড। পার্বতীপুরে জোড়া হত্যাকান্ড মামলার পলাতক আসামী গ্রেফতার

নীলফামারীতে নেক্সট্ বাংলা আইটি’র উদ্যোগে ‘সহ¯্র রমনী’ বিনামূল্যে গ্রাফিক্স ডিজাইন প্রশিক্ষন কার্যক্রম শুরু

জাকির হোসেন, সৈয়দপুর (নীলফামারী) প্রতিনিধি ॥ নীলফামারীর প্রতিশ্রুতিশীল ফ্রিল্যান্সিং ও আউটসোর্সিং বিষয়ক ডিজিটাল প্রশিক্ষন প্রতিষ্ঠান নেক্সট্ বাংলা আইটি’র উদ্যোগে জেলার এক হাজার শিক্ষিত নারীকে আগামীর বৈশ্বিক চ্যালেঞ্জ মোকাবেলায় পারদর্শী করে তুলতে সম্পূর্ণ বিনামূল্যে গ্রাফিক্স ডিজাইন প্রশিক্ষন প্রদানের যুগান্তকারী কার্যক্রম শুরু হয়েছে। ৫ ডিসেম্বর বৃহস্পতিবার বিকালে শহরের কালিবাড়ি মোড়স্থ সবুজপাড়ায় প্রতিষ্ঠানটির নিজস্ব কার্যালয়ে সহ¯্র রমনী প্রকল্পের আওতায় গৃহিত কার্যক্রমের প্রথম ব্যাচের কাস উদ্বোধন করা হয়েছে। এ উপলক্ষ্যে আয়োজিত অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন নেক্সট্ বাংলা আইটি’র প্রতিষ্ঠাতা পরিচালক মোঃ এরশাদুজ্জামান অন্তর, কো-সিইও জাহিদা সুলতানা জয়া, মার্কেটিং ম্যানেজার শেখ আব্দুর রউফ ও সাপ্তাহিক নীলফামারী চিত্র পত্রিকার বার্তা সম্পাদক শাহজাহান আলী মনন।
বেসিক গ্রাফিক্স ডিজাইন বিষয়ক প্রশিক্ষণটি পরিচালনা করবেন তরুণ উদ্যোক্তা ও গ্রাফিক্স ডিজাইনার এবং নেক্সট্ বাংলা আইটি’র প্রশিক্ষক আনিসা আহমেদ শশী। তিনি জানান, প্রতি সপ্তাহে ৩ দিন করে মোট ৩০টি কাস করানো হবে এ প্রশিক্ষনে। এতে গ্রাফিক্স ডিজাইন তথা এডবি ফটোশপ ও ইলেস্ট্রেটর এর মাধ্যমে ডিজাইন সংক্রান্ত সার্বিক বিষয়ে দক্ষ করে তোলা হবে প্রশিক্ষনার্থীদের। পাশাপাশি তাদের কাজ করার ক্ষেত্র তৈরীর জন্য ফ্রিল্যান্সিং ও আউটসোর্সিং বিষয়েও ধারনা দেওয়া হবে। সে সাথে প্রশিক্ষণ গ্রহণকারীদের মধ্যে যারা নিজস্ব সৃজনশীলতার পরিচয় দিতে পারবেন তাদেরকে প্রতিষ্ঠানে কাজ দেওয়াসহ অনলাইন ভিত্তিক কাজ প্রদান করা হবে।
প্রতিষ্ঠাতা পরিচালক এরশাদুজ্জামান অন্তর বলেন, আমরা নীলফামারীবাসী অনেক দিক থেকেই পিছিয়ে আছি। বিশেষ করে আইটি সেক্টরে আমরা খুবই নগন্য সংখ্যক ব্যক্তি দক্ষতা অর্জন করতে পেরেছি। তাই এ অঞ্চলের মানুষদের বিশেষ করে শিক্ষিত বেকারদের আগামী প্রজন্মের ডিজিটাল বাংলাদেশ গড়ার পাশাপাশি অত্যাধুনিক আইটি নির্ভর বিশ্বের সাথে তাল মিলিয়ে যোগ্য হিসেবে গড়ে তুলতে নিজস্ব সামর্থ অনুযায়ী প্রচেষ্টা শুরু করেছি। তারই ধারাবাহিকতায় ‘সহ¯্র রমনী’ প্রকল্পের আওতায় এক হাজার শিক্ষিত নারীকে প্রশিক্ষণ প্রদানের উদ্যোগ নেওয়া হয়েছে। আগামীতে গ্রাফিক্স ডিজাইনের পাশাপাশি অনলাইন ভিত্তিক প্রায় প্রতিটি বিষয়েই দক্ষ জনশক্তি তৈরীর জন্য সকল বিষয়েই প্রশিক্ষণের আয়োজন করবো আমরা। এক্ষেত্রে সকলের সহযোগিতা প্রত্যাশা করছি।

আপনার মতামত লিখুন

তথ্য-প্রযুক্তি,রংপুর,সারাদেশ বিভাগের সর্বোচ্চ পঠিত সংবাদ