সোমবার-৩০শে মার্চ, ২০২০ ইং-১৬ই চৈত্র, ১৪২৬ বঙ্গাব্দ, সময়: সকাল ৬:৫৭, English Version
উমাদিনী ত্রিপুরার মৃত্যুতে প্রধানমন্ত্রীর শোক ডোমার পৌর শহরে চলছে জীবাণু নাশক ছিটানো কার্যক্রম। লালপুরে দুস্থদের মাঝে নিজ উদ্যোগে খাবার সামগ্রী বিতরণ পার্বতীপুরে করোনা ঠেকাতে আদা, লং, কালিজিরার চা খাওয়ার গুজব! চাঁপাইনবাবগঞ্জে খেটে খাওয়া গরীব দুঃখি মানুষের মাঝে চাল বিতরণ শুরু ‘করোনা চিকিৎসায় ২৫০ ভেন্টিলেটর প্রস্তুত’ সংবাদপত্র সংক্রান্ত সকল ধরনের কাজ পরিচালনায় কোনো বাধা নেই

নীলফামারীতে ব্র্যাক কর্মীর গলাকাটা লাশ উদ্ধার

প্রকাশ: মঙ্গলবার, ২৬ নভেম্বর, ২০১৯ , ৯:৫০ অপরাহ্ণ , বিভাগ : রংপুর,সারাদেশ,

মোঃ জাকির হোসেন, সৈয়দপুর (নীলফামারী) সংবাদদাতা ॥ নীলফামারীতে এক ব্র্যাক কর্মীর গলাকাটা লাশ উদ্ধার করা হয়েছে। ২৬ নভেম্বর বিকালে নীলফামারী সদরের সংগলশী কাজীরহাট এলাকায় ব্র্যাক অফিস সংলগ্ন ভাড়া বাসা থেকে লাশ উদ্ধার করে পুলিশ। মৃত ব্যক্তি ব্র্যাক কাজীরহাট শাখার ক্ষুদ্র ঋণ কর্মসূচীর প্রোগ্রাম অফিসার মহিদুল ইসলাম (৪০)। তিনি অফিসের পাশেই সংগলশী ইউনিয়নের সাবেক মেম্বার শহিদুল ইসলামের বাড়িতে একটি রুম ভাড়া নিয়ে থাকতেন। খবর পেয়ে জেলা পুলিশ সুপার মুহাম্মদ আশরাফ হোসেন সহ ডিবি, সিআইডি ও পিবিআই’র ক্রাইম সীন দল ঘটনাস্থলে উপস্থিত হয়েছে।
প্রত্যক্ষদর্শী সংগলশী ইউনিয়ন পরিষদের সাবেক মেম্বার ও উক্ত ব্র্যাক অফিসের বাড়ির মালিক শহিদুল ইসলামের ছেলে সোহাগ জানান, বেলা ৩টার দিকে স্ত্রীকে নিয়ে বাড়িতে প্রবেশ করা মাত্রই মহিদুল ইসলামের রুমটি বাইরে থেকে তালা মারা এবং দরজা দিয়ে রক্ত বের হতে দেখেন। এমতাবস্থায় তিনি দ্রুত বাড়ির লোকজনসহ পাশেই ব্র্যাক অফিসে খবর দেন। পরে উপস্থিত লোকজন দরজার তালা ভেঙ্গে দেখেন মহিদুল ইসলাম মেঝেতে পড়ে আছেন। তার গলা কাটা এবং রক্ত দিয়ে সারা শরীর ভেজা। তাৎক্ষনিক পুলিশে খবর দিলে নীলফামারী জেলা পুলিশ সুপার মুহাম্মদ আশরাফ হোসেন ঘটনাস্থলে উপস্থিত হয়ে প্রাথমিক সুরতহাল রিপোর্ট করেন এবং লাশ ময়না তদন্তের জন্য মর্গে প্রেরণের নির্দেশ দেন। এ রিপোর্ট লেখা পর্যন্ত লাশ ঘটনাস্থলেই রয়েছে।
জানা যায়, মহিদুল ইসলাম দুপুরে খাওয়ার জন্য অফিস থেকে বের হয়ে আর অফিসে যাননি। তার মোবাইলে যোগাযোগ করা হলেও তার কোন হদিস পাওয়া যাচ্ছিল না। এমতাবস্থায় বিকাল ৩ টার দিকে তার ভাড়া বাসা থেকে গলাকাটা লাশ পাওয়া যায়।
উল্লেখ্য, মৃত মহিদুল ইসলামের বাড়ি নওগাঁ জেলার মান্দা উপজেলার বিষ্ণুপুর গ্রামে। তার বাবার নাম আব্দুল গনি। তার স্ত্রী নীলফামারী জেলার পার্শ্ববর্তী রংপুর জেলার তারাগঞ্জ উপজেলার তারাগঞ্জ উচ্চ বিদ্যালয়ের শিক্ষিকা বলে জানা গেছে।

আপনার মতামত লিখুন

রংপুর,সারাদেশ বিভাগের সর্বোচ্চ পঠিত সংবাদ