শুক্রবার-৬ই ডিসেম্বর, ২০১৯ ইং-২১শে অগ্রহায়ণ, ১৪২৬ বঙ্গাব্দ, সময়: সকাল ১১:১৭, English Version
ডোমারে শীতকালীন সবজিতে ভরেগেছে পৌর কাঁচা বাজার। ঝালকাঠিতে যুবককে জবাই করে হত্যা নীলফামারীতে নেক্সট্ বাংলা আইটি’র উদ্যোগে ‘সহ¯্র রমনী’ বিনামূল্যে গ্রাফিক্স ডিজাইন প্রশিক্ষন কার্যক্রম শুরু ফুলবাড়ীতে পরিবার কল্যান সেবা ও প্রচার সপ্তাহ উদযাপন উপলক্ষে এক এ্যাডভোকেসি সভা অনুষ্ঠিত॥ ছাতক মুক্ত দিবস ৬ ডিসেম্বর চাঁপাইনবাবগঞ্জ নাচোলে ১৭বোতল ফেনসিডিল সহ ২আটক নাটোরে জিংক সমৃদ্ধ ধানের বীজ বাজারজাত করনে মতবিনিময় সভা অনুষ্ঠিত

পরীক্ষার প্রশ্নপত্রে আবরার

প্রকাশ: সোমবার, ২৫ নভেম্বর, ২০১৯ , ৪:৪১ অপরাহ্ণ , বিভাগ : শিক্ষা,সারাদেশ,

এমএন২৪.কম ডেস্ক : রাজধানীর মতিঝিল আইডিয়াল স্কুল অ্যান্ড কলেজের সপ্তম শ্রেণির বার্ষিক পরীক্ষার প্রশ্নপত্র প্রণয়ন করা হয়েছে আবরারকে নিয়ে। পরীক্ষার ইংরেজি প্রশ্নপত্রে নিহত বুয়েট ছাত্র আবারারের ওপর একটি প্যাসেজ দেয়া হয়েছে। শিক্ষার্থীদের সে আলোকে প্রশ্নের উত্তর দিতে বলা হয়েছে।

প্রশ্নপত্রের অনুচ্ছেদটিতে বলা হয়েছে, আবরার ফাহাদ ১৯৯৯ সালে কুষ্টিয়ার রায়ডাঙ্গা গ্রামে জন্মগ্রহণ করেন। তার পিতার নাম বরকতুল্লাহ এবং মাতা রোকেয়া খাতুন। তার ছোট ভাই আবরার ফাইয়াজ। তিনি বাবার-মায়ের প্রতি কর্তব্যপরায়ণ ছিলেন। ছাত্র হিসেবেও ছিলেন খুব মেধাবী এবং বুদ্ধিমান। ছয় বছর বয়সে তিনি কুষ্টিয়া মিশন প্রাথমিক বিদ্যালয়ে ভর্তি হন। তিনি এসএসি ও এইচএসসিতে জিপিএ-৫ পেয়েছেন। আবরার তার স্বপ্ন পূরণের জন্য বাংলাদেশ প্রকৌশল ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়ে (বুয়েট) ইলেট্রিক্যাল এন্ড ইলেকট্রনিক্স ইঞ্জিনিয়ারিং বিভাগে ভর্তি হন। তিনি বিশ্ববিদ্যালয়টির শেরাবাংলা হলে থাকতেন। ২০১৯ সালের ৭ অক্টোবর তিনি অপ্রত্যাশিতভাবে হত্যাকাণ্ডের শিকার হন।

প্যাসেজে আরও উল্লেখ করা হয়েছে, শৈশব থেকেই আবরার ফাহাদ নম্র-ভদ্র ও ধর্মীয় জীবন যাপন করতেন।

উল্লেখ্য, গত ৬ অক্টোবর বাংলাদেশ প্রকৌশল বিশ্ববিদ্যালয়ের (বুয়েট) তড়িৎ প্রকৌশল বিভাগের দ্বিতীয় বর্ষের ছাত্র আবরার ফাহাদকে শেরেবাংলা হলের কক্ষ থেকে অপর একটি কক্ষে ডেকে নিয়ে যায় ছাত্রলীগ নেতাকর্মীরা। তাকে জিজ্ঞাসাবাদের নামে কয়েক ঘণ্টা ধরে নির্মমভাবে পেটানো হয়। এতে মাঝরাতেই মৃত্যুর কোলে ঢলে পড়েন আববরার ফাহাদ। এ ঘটনায় বুয়েট থেকে ২৬ শিক্ষার্থীকে স্থায়ীভাবে বহিষ্কার করা হয়। গ্রেপ্তার হয়ে এদের বেশিরভাগই এখন কারাগারে আছেন।বাংলাদেশ জার্নাল

 

এমএন/মিলন

আপনার মতামত লিখুন

শিক্ষা,সারাদেশ বিভাগের সর্বোচ্চ পঠিত সংবাদ