শুক্রবার-১৫ই নভেম্বর, ২০১৯ ইং-৩০শে কার্তিক, ১৪২৬ বঙ্গাব্দ, সময়: সকাল ৭:৫৬
অবহেলায় বিলুপ্তির পথে স্থাপত্যকলার অনন্য নিদর্শন কয়ারপাড়া জামে মসজিদ গাইবান্ধার পরীক্ষা কেন্দ্রে মোবাইল নিয়ে প্রবেশ, সাত শিক্ষার্থী বহিষ্কার গোবিন্দগঞ্জে সড়ক দুর্ঘটনায় এসিল্যান্ড নিহত হওয়ার ঘটনায় পিবিআইর তদন্তের নির্দেশ শিবগঞ্জে সড়ক পরিবহন আইন ও সড়ক নিরাপত্তা বিষয়ক সচেতনামূলক লিফলেট বিতরণ লালমনিরহাটে নতুন সড়ক আইন প্রচারণায় পুলিশের লিফলেট বিতরণ হিলিতে এইচআইভি এইডস প্রতিরোধে জনসচেতনতামুলক সভা অনুষ্ঠিত ঠাকুরগাঁওয়ে বাল্যবিবাহের চেষ্টা, কাজী ও বরকে কারাদণ্ড

১৫তম নিবন্ধনের মৌখিক পরীক্ষা শুরু ১২ নভেম্বর

এমএন২৪.কম ডেস্ক:  ১৫তম শিক্ষক নিবন্ধনের ভাইভা বা মৌখিক পরীক্ষা আগামী ১২ নভেম্বর থেকে এ পরীক্ষা শুরু হচ্ছে। ১৫তম নিবন্ধনে উত্তীর্ণদের মৌখিক পরীক্ষার সময় নির্ধারণ করেছে  বেসরকারি শিক্ষক নিবন্ধন ও প্রত্যয়ন কর্তৃপক্ষ (এনটিআরসিএ)। এনটিআরসিএ সূত্র  এ তথ্য নিশ্চিত করেছে।

জানা গেছে, ১২ নভেম্বর থেকে শুরু হতে যাচ্ছে ১৫তম শিক্ষক নিবন্ধনের মৌখিক পরীক্ষা। এ পরীক্ষায় স্কুল ও কলেজ পর্যায়ে লিখিত পরীক্ষায় উত্তীর্ণ ১৩ হাজার ৩৪৫ জনের অংশগ্রহণ করার কথা রয়েছে। তাদের মধ্যে স্কুল পর্যায়ে ১০ হাজার ৯৬৮ জন, স্কুল-২ পর্যায়ে ৭৭০ জন এবং কলেজ পর্যায়ে এক হাজার ৬০৭ জন রয়েছেন। বন্ধের দিন ছাড়া অফিস কার্যদিবসগুলোতে মৌখিক পরীক্ষা আয়োজন করা হবে।

জানতে চাইলে এনটিআরসিএর একজন কর্মকর্তা  বলেন, ১৫তম নিবন্ধন পরীক্ষার সময় নির্ধারণ করা হয়েছে। আগামী ১২ নভেম্বর থেকে এ পরীক্ষা শুরু হবে।দৈনিক শিক্ষাডটকম

তিনি বলেন, মৌখিক পরীক্ষা সংক্রান্ত বিষয়ে মঙ্গলবার (৪ অক্টোবর) এনটিআরসিএর ওয়েবসাইটে বিজ্ঞপ্তি প্রকাশ করা হয়েছে। পাশাপাশি সকল প্রার্থীর মোবাইলফোনে মৌখিক পরীক্ষার নির্ধারিত দিন উল্লেখ করে এসএমএস পাঠানো হবে। পরীক্ষা শেষে পরবর্তী এক মাসের মধ্যে ১৫তম নিবন্ধন পরীক্ষার চূড়ান্ত ফলাফল প্রকাশ করা হবে।

প্রসঙ্গত,  গত ২৬ ও ২৭ জুলাই ১৫তম শিক্ষক নিবন্ধনের লিখিত পরীক্ষা অনুষ্ঠিত হয়। প্রিলিমিনারিতে দেড় লাখ প্রার্থী উত্তীর্ণ হয়েছিলেন। লিখিত পরীক্ষায় ১ লাখ ২১ হাজার ৬৬০ জন অংশগ্রহণ করেন। এর আগে গত ১৯ এপ্রিল ১৫তম শিক্ষক নিবন্ধনের প্রিলিমিনারি পরীক্ষা অনুষ্ঠিত হয়। গত ১৯ মে ১৫তম শিক্ষক নিবন্ধনের প্রিলিমিনারি পরীক্ষার ফল প্রকাশ হয়। প্রিলিমিনারিতে উত্তীর্ণ হয়েছে ১ লাখ ৫২ হাজার পরীক্ষার্থী। পাসের হার ছিল ২০ দশমিক ৫৩ ভাগ। উত্তীর্ণদের মধ্যে স্কুল পর্যায়ের ৫৫ হাজার ৫৯৬ জন,  স্কুল পর্যায়-২ এর ৪ হাজার ১২৯ জন এবং কলেজ পর্যায়ের ৯২ হাজার ২৭৫ জন প্রার্থী রয়েছেন। প্রিলিমনারিতে ৮ লাখ ৭৬ হাজার ৩৩ জন প্রার্থী অংশগ্রহণ করেছিলেন।

আপনার মতামত লিখুন

চাকুরীর খবর,শিক্ষা,সারাদেশ বিভাগের সর্বোচ্চ পঠিত সংবাদ