বৃহস্পতিবার-২৭শে ফেব্রুয়ারি, ২০২০ ইং-১৪ই ফাল্গুন, ১৪২৬ বঙ্গাব্দ, সময়: রাত ১১:২৭, English Version
নাগরিক দুর্ভোগ লাঘবে মেয়রদের সতর্ক থাকার আহ্বান জানিয়ে প্রধানমন্ত্রী মা হয়েছে পাগলী বাবা হয়নি কেউ শিবগঞ্জে মাদ্রাসার ৪তলা ভবণ নির্মাণ কাজের ভিত্তি স্থাপন ভারতে হামলা নির্যাতন ও হত্যা প্রতিবাদে গাইবান্ধায় বিক্ষোভ মিছিল সমাবেশ গাইবান্ধায় অনুসন্ধানমূলক রিপোর্টিং প্রশিক্ষণের সমাপনী লালমনিরহাটের কালীগঞ্জে এক শিক্ষকের জেল জরিমানা হওয়া সত্বে ….. ফুলবাড়ীতে ফাইনাল খেলা উদ্বোধন করলেন এমপি আলহাজ্ব পনির উদ্দিন আহম্মেদ

রূপনগরে সিলিন্ডার বিস্ফোরণে আরও এক শিশুর মৃত্যু

প্রকাশ: বৃহস্পতিবার, ৩১ অক্টোবর, ২০১৯ , ১২:১৭ অপরাহ্ণ , বিভাগ : ঢাকা,সারাদেশ,

এমএন২৪.কম ডেস্ক: রাজধানীর মিরপুরের রূপনগর এলাকায় গ্যাস সিলিন্ডার বিস্ফোরিত হওয়ার ঘটনায় নিহাদ (৭) নামে এক শিশুর মৃত্যু হয়েছে। বুধবার দিবাগত রাত ৩টায় ঢাকা মেডিক্যাল কলেজ (ঢামেক) হাসপাতালের বার্ন ইউনিটের নিবিড় পরিচর্যা কেন্দ্রে চিকিৎসাধীন অবস্থায় তার মৃত্যু হয়।

ঢামেক হাসপাতাল পুলিশ ফাঁড়ির পরিদর্শক বাচ্চু মিয়া মৃত্যু বিষয়টি নিশ্চিত করেন। এ ঘটনায় এ নিয়ে মোট ৬ শিশুর মৃত্যু হলো। আরও ১৭ জন আহত অবস্থায় হাসপাতালে চিকিৎসা নিচ্ছেন। নিহারের বাবার নাম সারোয়ার হোসেন, তাদের বাড়ি ময়মনসিংহে। নিহত অন্যদের মত নিহারও পরিবারের সঙ্গে রূপনগরের শিয়ালবাড়ি বস্তিতে থাকত। এর আগে বুধবার বিকাল সোয়া ৩টায় পাঁচ শিশু ঘটনাস্থলেই মারা যায়। প্রত্যক্ষদর্শী ও আহতদের স্বজনরা বলছেন, তারা বিকট একটি বিস্ফোরণের শব্দ শুনেছেন। এর পরই কালো ধোঁয়ায় ছেয়ে গেছে চারপাশ। ফায়ার সার্ভিসের কর্মকর্তা জানান, একটি ভ্যানগাড়িতে করে ওই ব্যক্তি মিরপুরের বিভিন্ন এলাকায় ঘুরে ঘুরে গ্যাস বেলুন বিক্রি করতেন। বুধবার বিকেলে রূপনগর ১১ নম্বর সড়কের শেষ মাথায় ফজর মাতবরের বস্তির সামনে বেলুন বিক্রি করতে আসেন তিনি। তাকে দেখামাত্রই বস্তির শিশুরা তাকে ঘিরে ধরে। এ সময় সিলিন্ডারে পাউডার জাতীয় কিছু একটা ভরছিলেন ওই বেলুন বিক্রেতা। এর পরপরই হঠাৎ বিকট শব্দে সিলিন্ডারটি বিস্ফোরিত হয়। বিস্ফোরণের সঙ্গে সঙ্গে আশপাশে থাকা ১০-১২ জন প্রায় ১৫ ফুট দূরে ছিটকে পড়েন। বিস্ফোরণের পরপরই ঘটনাস্থলে চার শিশুর ছিন্নভিন্ন দেহ পাওয়া যায়। পেটে আঘাত পাওয়া আরেক শিশু দৌড়ে সেখান থেকে পালানোর চেষ্টা করে। কিন্তু কিছু দূর যাওয়ার পরই সে লুটিয়ে পড়ে। পরে সেখানেই তার মৃত্যু হয়।
ঢামেক হাসপাতালের বার্ন ইউনিটের আবাসিক সার্জন ড. মো. আলাউদ্দিন বলেন, আহত শিশুদের হাসপাতালে ভর্তি করানো হয়েছে। শিশুদের শরীরের বেশিরভাগই আগুনে পুড়ে গেছে। খাদ্যনালীও পুড়েছে। এ কারণে তাদের নিবিড় পরিচর্যা কেন্দ্রে রাখা হয়েছে। এ ছাড়া অনেকের হাত-পা উড়ে গেছে, পেটের নাড়িও বেরিয়ে গেছে কারো কারো। নিহত ছয় শিশু হলো- শাহিন, নূপুর, ফারজানা, জান্নাত, রমজান ও নিহাদ। এ ঘটনায় বেলুন বিক্রেতা আবু সাঈদকে পঙ্গু হাসপাতাল থেকে গ্রেফতার করা হয়েছে বলে পুলিশের মিরপুর বিভাগের উপ-কমিশনার মোস্তাক আহমেদ জানিয়েছেন।

আপনার মতামত লিখুন

ঢাকা,সারাদেশ বিভাগের সর্বোচ্চ পঠিত সংবাদ