শনিবার-২৯শে ফেব্রুয়ারি, ২০২০ ইং-১৬ই ফাল্গুন, ১৪২৬ বঙ্গাব্দ, সময়: রাত ৪:০৬, English Version
ঘুমানোর আগে দুধ খেলে কী উপকার পাবেন তওবা করে ইসলাম গ্রহণ করলেন ২১ কাদিয়ানি (ভিডিও) মুজিববর্ষে ৪০ হাজার তরুণকে প্রশিক্ষণ দেয়া হবে: পলক পাপিয়া-সম্রাটদের সাম্রাজ্য এবং নানা প্রশ্ন পাপিয়ার মোবাইল কললিস্টে ১১ এমপির নাম ২০৪৬ অফিসার নেবে ৯ ব্যাংক চাঁপাইনবাবগঞ্জে মাদক সেবন করার অপরাধে -১৩জন মাদক সেবনকারী গ্রেপ্তার

বাংলাদেশ বনাম শ্রীলঙ্কার অনূর্ধ্ব-১৯ দলের যুব আন্তর্জাতিক ম্যাচ

মনির হোসেন,বরিশাল ব্যুরো ॥ ॥ ড্রয়ের মধ্যদিয়ে শেষ হলো বাংলাদেশ বনাম শ্রীলঙ্কার অনূর্ধ্ব-১৯ দলের চার দিনের যুব আন্তর্জাতিক ক্রিকেট ম্যাচ। ম্যাচের শেষদিনে ড্র মেনে নিয়েছে দুই প্রতিপ। বরিশাল নগরীর শহীদ আব্দুর রব সেরনিয়াবাত স্টেডিয়ামে বৃষ্টিবিঘিœত ম্যাচ ড্র হওয়ার পর বরিশালবাসীর দীর্ঘদিনের আকাঙ্খিত আন্তর্জাতিক ক্রিকেট ম্যাচের সমাপনী অনুষ্ঠানে পুরস্কার বিতরণ করা হয়।
ম্যাচ ড্র হলেও প্রথমবারের মতো বরিশাল শহীদ আব্দুর রব সেরনিয়াবাত স্টেডিয়ামে অনুষ্ঠিত এই যুব আন্তর্জাতিক ম্যাচকে ঘিরে দর্শকদের উৎসাহের কোনো কমতি ছিলোনা। খেলার শুরু থেকেই মাঠে ছিল ক্রিকেটপ্রেমী দর্শকদের উপচে পড়া ভিড়। পাশাপাশি ক্রিকেট ম্যাচকে ঘিরে স্টেডিয়াম এলাকায় ব্যাপক নিরাপত্তা ব্যবস্থা জোরদার করা হয়েছিলো। শেষদিনে দুপুরে শ্রীলঙ্কা অনূর্ধ্ব-১৯ দল ৮৪ ওভার ৩ বলের খেলা শেষে ৭ উইকেট হারিয়ে ৩৩১ রান সংগ্রহ করে প্রথম ইনিংস ডিকেয়ার করে। ব্যাটিংয়ে নেমে বাংলাদেশ অনূর্ধ্ব-১৯ দল ৪৮ ওভারে ৬ উইকেট হারিয়ে ১৪৫ রান সংগ্রহ করেন।
এর আগে সোমবার (২৮ অক্টোবর) দুপুরে টস জিতে ব্যাটিংয়ে নেমে প্রথমদিন শেষে ৭ উইকেট হাতে নিয়ে দলীয় স্কোরবোর্ডে ১৫৫ রান তুলে ক্রিজ ছাড়ে শ্রীলঙ্কা দল। এরপর মঙ্গলবার সকাল নয়টায় আবারও মাঠে নেমে ব্যাটিং শুরু করেন দলীয় অধিনায়ক নিপুন ধনাঞ্জয়া ও গামাগে দিনুষা। দ্বিতীয় দিনের খেলার শুরুতে উভয়েই অর্ধশত করে রান তুলে নেন। যা বরিশাল শহীদ আব্দুর রব সেরনিয়াবাত স্টেডিয়ামের ইতিহাসে একটি রেকর্ড।
১১০ বলে সাতটি চার ও একটি ছক্কা হাকিয়ে ৫৮ রান তোলা গামাগে দিনুষা বাংলাদেশ দলের বলার আশরাফুল ইসলাম সিয়ামের বলে প্রীতম কুমারের হাতে ক্যাচ তুলে দিয়ে সাজঘরে ফেরেন। অপরদিকে ১১২ বলে ছয়টি চার ও তিনটি ছক্কা হাকিয়ে ৬৭ রান তোলা শ্রীলঙ্কার অধিনায়ক নিপুন ধনাঞ্জয়া বাংলাদেশ দলের বলার আশরাফুল ইসলাম সিয়ামের বলে সাহাদাত হোসেনের হাতে ক্যাচ তুলে দিয়ে সাজঘরে ফেরেন। এরপর বাংলাদেশ দলের বলার আশরাফুল ইসলাম সিয়ামের বলে তৃতীয় উইকেটের শিকার হন চিহান কালিদু। যিনি ১৬ বলে একটি চার ও একটি ছক্কা হাঁকিয়ে ১৫ রান করে সাজঘরে ফেরেন। শেষপর্যন্ত ম্যাচের তৃতীয় অর্ধশত রান করে নটআউট থেকে যান শ্রীলঙ্কার ডুনিথ নেথমিকা ভেল্লাজে। তিনি ৮৫ বলে পাঁচটি চার হাকিয়ে ৫০ রান করেন।
এদিকে ৮৪ ওভার ৩ বলে ম্যাচ ডিকেয়ারের আগে শ্রীলঙ্কা দলের কাভিস্কা লনকে ক্যাচ আউট করে ৭ নম্বর উইকেটটি তুলে নেয় বাংলাদেশ দলের বলার নোমান চৌধুরী। কাভিস্কা লন ৭৮ বলে দুইটি চার ও তিনটি ছয় হাকিয়ে ৪৬ রান করেন। এছাড়া ৮৪ ওভার ৩ বলের খেলায় শ্রীলঙ্কা দলের অতিরিক্ত রান এসেছে ২৮টি।
বাংলাদেশ দলের আশরাফুল ইসলাম সিয়াম দলের হয়ে সর্বোচ্চ তিনটি উইকেট নিয়েছেন। এটিও শহীদ আব্দুর রব সেরনিয়াবাত স্টেডিয়ামের ইতিহাসে একটি রেকর্ড। তিনি ২৯ ওভার বল করে ছয়টি মেইডেন নিয়ে ৮৩ রান দিয়েছেন। এছাড়া সাতজন বলারের মধ্যে আব্দুল্লাহ হিল গালিব ও নোমান চৌধুরী দুটি করে উইকেট নিয়েছেন।
অপরদিকে দ্বিতীয় ইনিংসে বাংলাদেশ অনূর্ধ্ব-১৯ দল ব্যাটিংয়ে নেমে শুরুটা তেমন একটা ভালো না করলেও দলের হয়ে প্রথম অর্ধশত রান করেন আলভি হক। তিনি একশ’ বলে সাতটি চার ও একটি ছক্কা হাঁকিয়ে ৫৪ রান করে সাজঘরে ফেরেন। বাকীদের মধ্যে সাজিদ হোসেন সিয়াম ৫২ বলে ২৩ রান, প্রীতম কুমার ৩৯ বলে ২৮ রান করে সাজঘরে ফেরেন। এছাড়া নাইমুর রহমান নয়ন ৭৫ বলে ২৬ রান ও আশরাফুল ইসলাম সিয়াম ১৪ বলে দুই রান করে অপরাজিত থাকেন।
বাংলাদেশের বিপে শ্রীলঙ্কান বোলারদের মধ্যে ম্যাথিশা পাথিরানা ৬ ওভার ২ বল করে এক ওভার মেইডেন ও সর্বোচ্চ ৩ উইকেট নিয়ে ম্যাচের সেরা খেলোয়াড় হন। এ দলের অপর ৬ বোলারের মধ্যে কাভিস্কা লন ৬ ওভার ৪ বল করে ৩ ওভার মেইডেন নিয়ে দুইটি উইকেট এবং দিলসান ৮ ওভার বল করে ২ ওভার মেইডেন নিয়ে একটি উইকেট নিয়েছেন। এ দলের বোলাররা ৪৮ ওভার বল করে বাংলাদেশকে ১০টি অতিরিক্ত রান দিয়েছে।
উল্লেখ্য, চারদিনব্যাপী ম্যাচ গত ২৬ অক্টোবর শুরু হওয়ার কথা থাকলেও দুর্যোগপূর্ন আবহাওয়ার কারনে দুইদিন পরিত্যাক্ত ঘোষনা হয়। এরপর ম্যাচ রেফারি সাবেক ক্রিকেটার এএসএম রকিবুল হাসানের দেয়া ঘোষানার প্রেেিত তৃতীয় দিন সোমবার (২৮ অক্টোবর) দুপুর আড়াইটায় খেলা শুরু হয়।
পুরস্কার বিতরনী অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি ছিলেন ক্রিকেট প্রেমী বরিশালের জেলা প্রশাসক ও জেলা ক্রীড়া সংস্থার সভাপতি এসএম অজিয়র রহমান। এসময় বাংলাদেশ ক্রিকেট বোর্ডের (বিসিবি) পরিচালক আলমগীর খান আলো, বরিশাল জেলা আওয়ামী লীগের সাধারনণ সম্পাদক ও দুইবারের সাবেক সংসদ সদস্য এ্যাডভোকেট তালুকদার মোঃ ইউনুস, জেলা ক্রীড়া সংস্থার সদস্য সচিব ও অতিরিক্ত জেলা প্রশাসক (শিা ও আইসিটি) প্রশান্ত কুমার দাস, ম্যাচ রেফারি সাবেক ক্রিকেটার রকিবুল হাসানসহ উভয় দলের খেলোয়াড় এবং কোচ উপস্থিত ছিলেন।
বাংলাদেশ ক্রিকেট বোর্ডের নির্দেশনায় ও বরিশাল জেলা ক্রীড়া সংস্থার আয়োজনে এবং জেলা প্রশাসনের সহযোগিতায় বরিশাল শহীদ আব্দুর রব সেরনিয়াবাত স্টেডিয়ামে চার দিনের যুব আন্তর্জাতিক ক্রিকেট ম্যাচ বৃষ্টির কারণে দুইদিন স্থগিত ছিলো। পরবর্তীতে তৃতীয়দিনে গত সোমবার উদ্বোধনী অনুষ্ঠান শেষে দুপুর আড়াই টায় উভয় দলের খেলা মাঠে গড়ায়। ওইদিন টসে জিতে শ্রীলঙ্কা দলের অধিনায়ক ব্যাট করার সিদ্ধান্ত নেয়। ওইদিন খেলা শেষে শ্রীলঙ্কা দল ৩৬ ওভারে ৩ উইকেট হারিয়ে ১৫৫ রান সংগ্রহ করেছিলো। পুরো ম্যাচে শ্রীলঙ্কা দলের এম পাতিরানা ১৩ রান দিয়ে তিন ইউকেট নিয়ে ম্যান অব দ্যা ম্যাচ নির্বাচিত হয়েছেন।

আপনার মতামত লিখুন

খেলাধুলা,বরিশাল,সারাদেশ বিভাগের সর্বোচ্চ পঠিত সংবাদ