রবিবার-২৫শে আগস্ট, ২০১৯ ইং-১০ই ভাদ্র, ১৪২৬ বঙ্গাব্দ, সময়: সকাল ১০:৪৭
চাঁপাইনবাবগঞ্জ নাচোল উপজেলার জননেতা আবু রেজা মোস্তাফা কামাল শামীম দিনাজপুরে ইয়াসমিন ট্রাজেডি দিবস আজ ঈদের ছুটিতে সড়কে ঝরেছে ১৮৫ প্রাণ আইভি রহমান স্মরণে মিলাদে প্রধানমন্ত্রী দিনাজপুরে ইয়াসিন ট্রাজেডি দিবসে মহিলা পরিষদের মানববন্ধন তেল-গ্যাস খনিজ সম্পদ ও বিদ্যুৎ বন্দর রক্ষা ফুলবাড়ী কমিটির এক সংবাদ সম্মেলন॥ খানসামা উপজেলা ছাত্রলীগের কাউন্সিলের আভাস, পদ প্রত্যাশী যারা

ঈদ জামাতে দেশ ও জাতির জন্য দোয়া কামনা

মুক্তিনিউজ২৪.কম ডেস্ক: কঠোর নিরাপত্তার মধ্যে জাতীয় মসজিদ বায়তুল মোকাররমে পবিত্র ঈদুল আজহার পাঁচটি জামাত হয়েছে। প্রত্যেক জামাতে দেশ-জাতির শান্তি ও সমৃদ্ধি কামনায় দোয়া করা হয়। প্রথম জামাত আজ সোমবার সকাল ৭টায় হয়। এতে ইমামতি করেন জাতীয় মসজিদের পেশ ইমাম মুফতি মাওলানা মুহিব্বুল্লাহিল বাকী নদভী।

নামাজ শেষে তিনি কাশ্মীরের নির্যাতিত মুসলমানদের রক্ষায় আল্লাহ পাকের গায়েবি মদদ কামনা করেন। প্রাকৃতি দুর্যাগ ও ডেঙ্গু থেকে রক্ষা, জানমালের হেফাজতের জন্য আল্লাহর কাছে প্রার্থনা করা হয়। ইমাম মুহিবু্বল্লাহিল বাকী নদভী বলেন, হে আল্লাহ, আমাদের নামাজ, আমাদের কোরবানি কবুল করুন। আমাদের মা-বাবা পরিবার, আত্মীয়-স্বজন সবাইকে কবুল করুন। প্রত্যেকের গোনাহ মাফ করুন। জাতির জনক বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান ও তার পরিবারের  শহীদ সদস্যদের আত্মার মাগফিরাত কামনা করে পেশ ইমাম বলেন, হে আল্লাহ, বঙ্গবন্ধুর সুযোগ্য কন্যা প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা ও তার পরিবারকে হায়াত দিন। দেশ ও জাতির সেবা করার তওফিক দিন। অসমাপ্ত কাজ সুন্দরভাবে সমাপ্ত করার সুযোগ দিন।   দেশ, জাতি ও মুসলিম উম্মাহর সুখ-সমৃদ্ধি কামনা করে মোনাজাত শেষ করেন বায়তুল মোকাররমের পেশ ইমাম। বায়তুল মোকাররমে ঈদের প্রথম জামাত আদায় করতে রাজধানীর বিভিন্ন প্রান্ত থেকে আসেন বিপুল সংখ্যক মুসল্লি। নারীরাও সেখানে আলাদা ব্যবস্থায় ঈদের নামাজ পড়েন। ঈদের নামাজ শেষে মুসল্লিরা কোলাকুলি ও শুভেচ্ছা বিনিময় করেন।  প্রতিবছরের মতো এবারও জাতীয় মসজিদ বায়তুল মোকাররমে পবিত্র ঈদুল আজহার পাঁচটি জামাত হয়। সকাল ৮টায় দ্বিতীয় জামাতে ইমামতি করেন বায়তুল মোকাররম জাতীয় মসজিদের পেশ ইমাম মাওলানা মুফতি মুহীউদ্দিন কাসেম,  সকাল ৯টায় তৃতীয় জামাতে ইমামতি করেন  মালিবাগ জামে মসজিদের খতিব মাওলানা মুফতি সিবগাতুল্লাহ নূর, চতুর্থ জামাত সকাল ১০টায় হয়। ইমামতি করেন ইসলামিক ফাউন্ডেশনের মুফতি মাওলানা মোহাম্মদ আবদুল্লাহ। শেষ জামাত হয় সকাল ১০টা ৪৫ মিনিটে। ইমামতি করেন আল আযহার একাডেমির প্রিন্সিপাল ড. মাওলানা আব্দুল কাইয়ূম আযহারী। প্রত্যেক জামাতের পর দেশ, জাতি ও মুসলিম মিল্লাতের জন্য দোয়া করা হয়। ঈদের জামাত উপলক্ষে বায়তুল মোকাররম জাতীয় মসজিদ ও আশপাশের এলাকায় কঠোর নিরাপত্তার ব্যবস্থা করা হয়। পুলিশি তল্লাশি পার হয়ে সবাইকে মসজিদে প্রবেশ করতে হয়েছে। কোনো ধরনের অপ্রীতিকর ঘটনা ঘটেনি। শান্তিপূর্ণভাবে নিরাপদে মুসল্লিরা ঈদুল আজহার নামাজ আদায় করেন।

আপনার মতামত লিখুন

ঢাকা,সারাদেশ বিভাগের সর্বোচ্চ পঠিত সংবাদ