সোমবার-৩০শে মার্চ, ২০২০ ইং-১৬ই চৈত্র, ১৪২৬ বঙ্গাব্দ, সময়: ভোর ৫:২৪, English Version
উমাদিনী ত্রিপুরার মৃত্যুতে প্রধানমন্ত্রীর শোক ডোমার পৌর শহরে চলছে জীবাণু নাশক ছিটানো কার্যক্রম। লালপুরে দুস্থদের মাঝে নিজ উদ্যোগে খাবার সামগ্রী বিতরণ পার্বতীপুরে করোনা ঠেকাতে আদা, লং, কালিজিরার চা খাওয়ার গুজব! চাঁপাইনবাবগঞ্জে খেটে খাওয়া গরীব দুঃখি মানুষের মাঝে চাল বিতরণ শুরু ‘করোনা চিকিৎসায় ২৫০ ভেন্টিলেটর প্রস্তুত’ সংবাদপত্র সংক্রান্ত সকল ধরনের কাজ পরিচালনায় কোনো বাধা নেই

সচেতন না হলে সীমান্তে চোরাচালান, মানুষ হত্যা বন্ধ হবে না। লেঃ কর্ণেল মোঃ শরীফউল্লাহ্ আবেদ (এসজিপি)

প্রকাশ: মঙ্গলবার, ৩০ জুলাই, ২০১৯ , ৮:৫৪ পূর্বাহ্ণ , বিভাগ : রংপুর,সারাদেশ,

মোঃ আফজাল হোসেন দিনাজপুর প্রতিনিধি
সীমান্ত এলাকায় জনসচেতনতা গড়ে না উঠলে সীমান্তে চোরাচালান ও অবৈধ্য অনুপ্রবেশ কোন ভাবেই বন্ধ হবে না। এ জন্য আপনাদেরকে এগিয়ে আসতে হবে। তবেই সীমান্ত এলাকায় চোরাচালান, অবৈধ অনুপ্রবেশ এবং মানুষ হত্যা বন্ধ হবে। গতকাল ২৯ সে জুলাই সোমবার বিকেল ৩ টায় দিনাজপুরের বিরামপুর উপজেলার দেশমা দ্বিমূখী উচ্চ বিদ্যালয় মাঠে এক জনসচেতনতা মূলক মতবিনিময় সভায় ফুলবাড়ী ২৯ বিজিবি লেঃ কর্ণেল মোঃ শরীফউল্লাহ্ আবেদ (এসজিপি) এ কথা বলেন। তিনি আরও বলেন, সীমান্ত এলাকায় জনসচেতনতায় সীমান্ত এলাকায় চোরাচালান, ভারতে অবৈধ অনুপ্রবেশ এবং সীমান্তে মানুষ হত্যা শূন্যের কোটায় এসেছে। চোরাকারবারীরা পূর্বের ন্যায় অনেকে ভালো পথে আসলে তাদেকে পূর্ণবাসন করা হবে। এখন সীমান্ত এলাকায় চোরাচালান ও ভারতে অনুপ্রবেশ প্রায় বন্ধ হয়ে গেছে। যারা এখনও এই অবৈধ পেশা ছেড়ে ভালো পথে আসেননি তাদেরকে ভালো পথে আসার আহ্বান জানাচ্ছি। কারন মাদক একটি পরিবার ও সমাজকে ধ্বংস করে। এর কারণে ঐ পরিবারটি কখন ও শান্তিতে থাকতে পারে না। তাদের জীবন এই মাদক ধ্বংস করছে এবং পরিবারকে অশান্তিতে রাখছে। এই মাদক সমাজ থেকে নির্মূল হতে পারে তখনেই যখন এই সমাজের মানুষ সচেতন হবে। সীমান্তের জিরো পয়েন্টে গিয়ে কাটা তারের বেড়া কেটে যারা অবৈধ পথে চোরা চালানীর মালামাল আনতে গিয়ে ভারতীয় বিএসএফ এর গুলিতে জীবন হারাচ্ছেন। এতে অনেক মায়ের কোল খালি হচ্ছে। অকাতরে জীবন দিতে হচ্ছে। সরকার তাদের পূর্ণবাসন করার জন্য সার্বিক সহযোগীতা করবেন, যারা এ পথ ছেড়ে দিয়ে ভালো পথে আসবেন। তাই আমরা বার বার সীমান্তে বসবাসকারী জনসাধারণকে অনুরোধ করছি, যারা এই অসৎ পথে ধাবিত হবে তারা যেন এই পথ ছেড়ে দেয়। অবৈধ ভাবে সীমান্তে কাটাতার কাটার কারনে ভারতের সীমান্ত রক্ষীরা আমাদেরকে নানা রকম অভিযোগ করে। এতে আমাদেরকে জবাব দিতে হয়। জনসচেতনা মূলক মতনিবিময় সভায় অন্যান্য দের মধ্যে বক্তব্য রাখেন বিরামপুর উপজেলা দেশমা দ্বিমূখী উচ্চ বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক মোঃ শাহাদৎ হোসেন সহকারী শিক্ষক রফিকুল ইসলাম দেশমা সরকারি প্রাথমিক প্রধান শিক্ষক বিপুল রায়। মতবিনিময় সভায় ঐ এলাকার বিভিন্ন বিদ্যালয়ের শিক্ষক-শিক্ষিকা, ছাত্র-ছাত্রীরা, মসজিদের ইমাম, মাদ্রাসার শিক্ষক, সীমান্তে বসবাস কারী স্থানীয় জনসাধারন এবং স্থানীয় গণ্যমান্য ব্যক্তিবর্গ উপস্থিত ছিলেন। আয়োজনে ছিলেন ফুলবাড়ী ২৯ বিজিবি।

আপনার মতামত লিখুন

রংপুর,সারাদেশ বিভাগের সর্বোচ্চ পঠিত সংবাদ