বৃহস্পতিবার-১৭ই অক্টোবর, ২০১৯ ইং-২রা কার্তিক, ১৪২৬ বঙ্গাব্দ, সময়: রাত ১২:০৮
বড়পুকুরিয়ার সাবেক ১ এমডিসহ ৩ কর্মকর্তা জেলহাজতে বড়পুকুরিয়া সাবেক এক এমডিসহ ৩ কর্মকর্তা জেল হাজতে আবরারের নামে হলের নাম! সৈয়দপুর ১০০ শয্যা হাসপাতালে আকস্মিক পরিদর্শনে নৌ মন্ত্রী ও নানক মেডিকেলে চান্স পেলো সৈয়দপুরের রাজমিস্ত্রির মেয়ে জাকিয়া সুলতানা বিজ্ঞান জাদুঘরে ভ্রাম্যমাণ বিজ্ঞান বাসের উদ্বোধন করলেন বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি মন্ত্রী সীমান্ত পেরিয়ে ভারতে যাওয়ার সময় বিরামপুর থেকে আবরার হত্যা মামলার আসামীকে গ্রেফতার করেছে পুলিশ

কাঁঠালের অসাধারণ পাঁচ গুণ জেনে নিন

প্রকাশ: রবিবার, ৩০ জুন, ২০১৯ , ১১:০৩ পূর্বাহ্ণ , বিভাগ : লাইফস্টাইল,

মুক্তিনিউজ২৪.কম ডেস্ক: গ্রীষ্মকালীন ফলের মধ্যে অন্যতম হলো কাঁঠাল। বর্তমান সময়ে বাজারে সহজেই কিনেতে পাওয়া যায় এই ফলটি। জাদুকরী ফল কাঁঠালের গন্ধে অনেকেই নাক সিঁটকান। আর এই ফলটিকে যথাসম্ভব দূরেই রাখেন। তারা অন্তত এবার জেনে নিন এই ফলের কী কী গুণ রয়েছে, যা আপনাকে একবার হলেও এই ফলের প্রতি আগ্রহী করে তুলবে।

রোগ প্রতিরোধ ক্ষমতা বাড়ায়:

ভিটামিন সি এবং অ্যান্টিঅক্সিডেন্টে ভরপুর কাঁঠাল। তাই রোজ এক থেকে দু-কোয়া কাঁঠাল খেলে সহজেই আপনার রোগ প্রতিরোধ ক্ষমতা বাড়বে। আপনার সুস্থতা আপনার হাতেই থাকবে।

শক্তি থাকে ভরপুর:

প্রতি একশ গ্রাম কাঁঠালে আপনি পাবেন ৯৪ কিলোক্যালোরি শক্তি। এতে থাকা কার্বোহাইড্রেট আপনাকে সবসময় রাখবে প্রাণবন্ত। তাই রোজ কাঁঠাল খেলে যতই পরিশ্রম করুন, তার ক্লান্তি ততটা বোধ করবেন না একেবারেই।

হৃদযন্ত্রের সুস্থতায়:

আমাদের শরীরে পটাশিয়াম আর সোডিয়ামের ব্যালেন্স ঠিক না থাকলে খুবই সমস্যা হয়। কাঁঠালে প্রচুর পরিমাণে পটাশিয়াম থাকে। যা, শরীরের সোডিয়ামকে ব্যালেন্সে রাখে। তারই সঙ্গে আপনার হৃদযন্ত্রের পেশিগুলোকেও সচল রেখে, তাদের কাজে একটা ছন্দ বজায় রাখতে সাহায্য করে এই পটাশিয়াম। তাই আপনার হৃদযন্ত্রও থাকে সুস্থ-সবল।

ক্যান্সার প্রতিরোধ করে:

ক্যান্সার প্রতিরোধের কোনো উত্তর আমরা এখনও সে অর্থে পাইনি। তবে যে সব টক্সিক পদার্থ এই রোগকে ত্বরান্বিত করে, সেগুলোকে এই কাঁঠাল দূরে রাখতে সহায়তা করে। কারণ কাঁঠালে থাকে ফাইটোনিউট্রিয়েন্ট, অ্যান্টিঅক্সিডেন্ট ও ফ্ল্যাভনয়েডসের মতো যৌগ। এই যৌগগুলি শরীরে ক্যান্সার বাসা বাঁধতে দেয় না।

তারুণ্য বজায় রাখে:

চারপাশের ধুলা-ময়লা থেকে আমাদের ত্বক সুরক্ষিত নয়। তাই খুব তাড়াতাড়ি আমাদের মধ্যে বার্ধক্য চলে আসে। আর এই বার্ধক্যকে বাড়িয়ে দেয় হাই অক্সিডেটিভের মতো মৌল। এগুলো দূষণের সাথে বিক্রিয়া করে ত্বকের ওপর প্রভাব ফেলে। কাঁঠাল এই মৌলর সাথে যুদ্ধ করেই আমাদের ত্বককে রাখে তরতাজা।

আপনার মতামত লিখুন

লাইফস্টাইল বিভাগের সর্বোচ্চ পঠিত সংবাদ