রবিবার-৮ই ডিসেম্বর, ২০১৯ ইং-২৩শে অগ্রহায়ণ, ১৪২৬ বঙ্গাব্দ, সময়: দুপুর ২:৩০, English Version
দিল্লিতে কারখানায় অগ্নিকাণ্ডে নিহত ৩৫ ঢাকায় এসে পৌঁছেছেন সালমান খান ও ক্যাটরিনা আজ জাতীয় চলচ্চিত্র পুরস্কার প্রদান করবেন প্রধানমন্ত্রী প্রধানমন্ত্রী আগামীকাল জাতীয় চলচ্চিত্র পুরষ্কার প্রদান করবেন “তিন বছর ধরে ঘর ছাড়া মা, চিকিৎসার কথা বলে বাবার সম্পত্তি লিখে নিয়েছে ছেলে” চাকরির জন্য শিক্ষা এবং একাডেমিক শিক্ষার ব্যবধান কমাতে হবে      –শ্রম প্রতিমন্ত্রী বঙ্গবন্ধুর জন্মশতবার্ষিকীর পোস্টার বাছাইয়ে সভা অনুষ্ঠিত

বিশ্ব জিডিপি প্রবৃদ্ধিতে সর্বাধিক অবদানকারী বিশটি দেশের তালিকায় বাংলাদেশ : অর্থমন্ত্রী

প্রকাশ: শনিবার, ১১ মে, ২০১৯ , ৪:১৭ পূর্বাহ্ণ , বিভাগ : অর্থনীতি,

মুক্তিনিউজ২৪.কম ডেস্ক: অর্থমন্ত্রী আ হ ম মুস্তফা কামাল বলেছেন, আগামী পাঁচ বছরের মধ্যে বিশ্ব অর্থনীতির প্রবৃদ্ধিতে প্রভাবশালী ২০ দেশের তালিকায় আসছে বাংলাদেশ।

গতকাল বৃহস্পতিবার শেরেবাংলা নগরে অর্থমন্ত্রীর কার্যালয়ে বিশ্বব্যাংকের ভারপ্রাপ্ত কান্ট্রি ডিরেক্টর ড্যান ড্যান চেনসহ বিশ্বব্যাংক প্রতিনিধিদল অর্থমন্ত্রীর সাথে সৌজন্য সাক্ষাৎ করেন। বৈঠকে অর্থমন্ত্রী এ কথা বলেন।

মুস্তফা কামাল বলেন, ২০২৪ সালের মধ্যে বিশ্ব অর্থনৈতিক প্রবৃদ্ধিতে যেসব দেশ গুরুত্বপূর্ণ অবদান রাখবে তার মধ্যে বাংলাদেশ থাকবে। ঐ সময় বৈশ্বিক জিডিপির প্রবৃদ্ধিতে অবদান রাখবে এমন শীর্ষ ২০ দেশের তালিকায় ঢুকবে বাংলাদেশ।

তিনি বলেন, বাংলাদেশের অর্থনীতি সেখানে ১শ’ ভাগের দশমিক ৯ ভাগ অবদান রাখবে। যেখানে বিশ্বের অন্যতম উন্নত দেশ কানাডার অবদানও একই। ভবিষ্যৎ বৈশ্বিক অর্থনীতি নিয়ে যুক্তরাষ্ট্রভিত্তিক ব্লুমবার্গের এক বিশ্নেষণে বাংলাদেশের অর্থনীতির এ সম্ভাবনা উঠে এসেছে।

অর্থমন্ত্রী বলেন, ব্লুমবার্গের প্রতিবেদন অনুযায়ী ২০২৪ সাল পর্যন্ত বৈশ্বিক জিডিপি প্রবৃদ্ধিতে সবচেয়ে বেশি ভূমিকা রাখবে চীন। চীনের অবদান থাকবে সবচেয়ে বেশি যা ২৮ শতাংশ। এর পরই রয়েছে ভারত। ঐ সময়ে বৈশ্বিক জিডিপি প্রবৃদ্ধিতে ভারতের অবদান দাঁড়াবে ১৩ দশমিক ৭ শতাংশ। এর পর যুক্তরাষ্ট্র। ক্ষমতাধর এই দেশটির অবদান থাকবে ১০ দশমিক ৫ শতাংশ। এর পর ইন্দোনেশিয়া।
তিনি বলেন, আমাদের লক্ষ্য ২০৪১ সালের মধ্যে বাংলাদেশ উন্নত দেশে পরিণত হবে। তবে আমাদের অগ্রযাত্রার যে গতি পরিলক্ষিত হচ্ছে তাতে আশা করা যায় এর পূর্বেই আমরা সে আশা পূর্ণ করতে পারব। আশা করা যায় অচিরেই বাংলাদেশ জি-২০ দেশগুলোর অন্তর্ভুক্ত হবে।

বিশ্বব্যাংকের ভারপ্রাপ্ত কান্ট্রি ডিরেক্টর ড্যান ড্যান চেন বাংলাদেশের অর্থনৈতিক অগ্রগতি, রোহিঙ্গ শরণার্থীদের সহযোগিতা, আর্থিক খাত সংস্কারের পদক্ষেপ, নারীদের কর্মস্থান ও নারী ক্ষমতায়নের প্রশংসা করেন এবং আগামীতে বাংলাদেশের সাথে বন্ধুত্বপূর্ণ সম্পর্ক আরো দৃঢ় হবে বলে আশা ব্যক্ত করেন। বাসস

আপনার মতামত লিখুন

অর্থনীতি বিভাগের সর্বোচ্চ পঠিত সংবাদ