বুধবার-১লা এপ্রিল, ২০২০ ইং-১৮ই চৈত্র, ১৪২৬ বঙ্গাব্দ, সময়: রাত ১২:৫১, English Version
সাধারণ ছুটি ১১ এপ্রিল পর্যন্ত বাড়ল চাঁপাইনবাবগঞ্জ সদর হাসপাতালে খাবার তুলে দিলেন লেনিন প্রামাণিক চাঁপাইনবাবগঞ্জে সাবেক এমপি আব্দুল ওদুদের খাদ্যসামগ্রী বিতরণ পার্বতীপুরের পত্রিকা বিক্রেতাদের হাতে তুলেন দিলেন খাদ্য সামগ্রী- উপজেলা সমাজসেবা অফিসার পলাশবাড়ীতে পৌরসভার উদ্যোগে জিবানুনাশক স্প্রে কার্যক্রম শিবগঞ্জেমৃত ব্যক্তির করোনা ভাইরাস ছিলনা ১৫ বাড়ী লক ডাউন প্রত্যাহার পলাশবাড়ীতে কর্মহীন ভাসমান বেদে পরিবারের মানবেতর জীবনযাপন

আর কত বয়স হইলে মুই বিধবা ভাতা পাইম?

প্রকাশ: শনিবার, ২০ এপ্রিল, ২০১৯ , ৫:২৫ পূর্বাহ্ণ , বিভাগ : রংপুর,সারাদেশ,

কাজী শাহ্ আলম,হাতীবান্ধ (লালমনিরহাট) প্রতিনিধি-
আর কত বয়স হইলে মুই বিধবা ভাতা পাইম (পাব)?। সরকার বোলে (বলে) গরিব মানষির (মানুষের) জন্যে বিধবা ভাতা, বয়স্ক ভাতা দেয়, ১০ টাকা কেজি চাউল (চাল) দেয়। মুই(আমি) কি মরার পড়ে এগুলো পাইম(পাব)? মুই (আমি) খুব অসহায়, মোর কোন জমি যায়গা নাই। মানষির জায়গায় ুুুথাকোং (থাকি)।
মনের আবেগে আঞ্চলিক ভাষায় উপরুক্ত কথা গুলো বলেছেন, লালমনিরহাটের পাটগ্রাম উপজেলার বাউরা ইউনিয়নের নবীনগর গ্রামের মৃত. আজাহার আলী স্ত্রী এছনা খাতুন (৬২)। সংসারে একমাত্র উপার্জনক্ষম ব্যাক্তি তার স্বামী আজাহার আলী প্রায় ১৮ বছর আগে মারা। স্বামী মৃত্যুর পর দুই মেয়েকে নিয়ে শুরু হয় তার জীবন যুদ্ধ। অন্যর বাড়ীতে কখনও কৃষি কখনও ঝিয়ের কাজ করে চালাতো সংসার জীবন। নেই তার কোন পুত্র সন্তান। দুটি মেয়ে তাদের অনেক কষ্টে বিয়ে দেন তিনি। তারাও এখন স্বামীর সংসার নিয়ে ব্যস্ত। শুরু হয় এছনা খাতুনের আর এক কষ্টের জীবন। বর্তমান তার বয়স বাষট্টি(৬২) উধে। বয়সের ভারে নুয়ে পড়েছেন। তাই আগের মত কঠোর পরিশ্রম করতে পারেন না। এরপরও জীবিকার তাগিদে মানুষের বাড়িতে গিয়ে বিভিন্ন প্রকার কাজ করতে হয় তাকে। এর পরেও সংসারে রয়েছে তার এক মানসিক ভারসাম্্রহীন ছোট বোন।র্
বৃহস্পতিবার এছনা খাতুনের সাথে কথা হলে তিনি বলেন, ১৮ বছর আগে স্বামী মারা যায়। এর পর ও পাইনি,বিধবা ভাতা, বয়স্ক ভাতা কিংবা ১০টাকার রেশন কার্ড। তিনি বলেন, এই বিধবা ১৮ বছর থেকে অসংখ্য বার ইউপি সদস্যের দ্বারে-দ্বারে ঘুরেছি বিধবা ভাতার জন্য। কিন্তু কোন লাভ হয় নাই।

এ বিষয়ে জানতে বাউরা ইউনিয়ন পরিষদের উক্ত ওয়ার্ডের ইউপি সদস্য মিজানুর রহমান বাবলু বলেন,ওনার বিষয়টা আমার মাথায় আছে। সামনে কোন সুযোগ- সুবিধা আসলে সবার আগে তার ব্যবস্থা করবো।#

ছবি ক্যাপশন- লালমনিরহাটের পাটগ্রাম উপজেলার বাউরা ইউনিয়নের নবীনগর গ্রামের বিধবা এছনা খাতুন (৬২)।

আপনার মতামত লিখুন

রংপুর,সারাদেশ বিভাগের সর্বোচ্চ পঠিত সংবাদ