মঙ্গলবার-১৭ই সেপ্টেম্বর, ২০১৯ ইং-২রা আশ্বিন, ১৪২৬ বঙ্গাব্দ, সময়: দুপুর ১:১২
বিকেলে ‘রাজহংস’ উদ্বোধন করবেন প্রধানমন্ত্রী হাউডি মোদি’ অনুষ্ঠানে যোগ দেবেন ট্রাম্প! শৈলকুপায় সাঁপের কামড়ে দুই ভায়ের মৃত্যু মানুষের সেবা করার ব্রত নিয়েই কাজ করে যাচ্ছি : প্রধানমন্ত্রী পার্বতীপুরে ৫হাজার বৃক্ষ বিতরণ মহিমাগঞ্জ ইউপি’র উপ-নির্বাচনে রুবেল আমিন শিমুল চেয়ারম্যান নির্বাচিত অভিবাসন ব্যয় কমানোর লক্ষ্যে কাজ করছে সরকার — প্রবাসী কল্যাণ মন্ত্রী

কিছুই জানেন না! মাধ্যমিক শিক্ষা অফিসার

প্রকাশ: রবিবার, ৩ ফেব্রুয়ারি, ২০১৯ , ৫:৩৭ পূর্বাহ্ণ , বিভাগ : সারাদেশ,সিলেট,

মুক্তিনিউজ২৪.কম ডেস্ক: কুলাউড়া মাধ্যমিক শিক্ষা অফিসার মো. আনোয়ার চলমান এসএসসি ও দাখিল পরীক্ষার কোনো তথ্যই জানেন না। গতকাল শনিবার সারাদেশে একযোগে শুরু হওয়া এসএসসি, দাখিল ও সমমানের পরীক্ষায় কুলাউড়া উপজেলার কতজন শিক্ষার্থী অংশ নিয়েছে এবং প্রথম দিনে কতজন শিক্ষার্থী অনুপস্থিত ছিলেন এসব তথ্যের সঠিক কোনো জবাব দিতে পারেননি কুলাউড়া মাধ্যমিক শিক্ষা অফিসার। তথ্য দেবার বদলে মাধ্যমিক শিক্ষা অফিসার মো. আনোয়ার বলেন, পরীক্ষা সংক্রান্ত কোনো তথ্য আমার কাছে নেই। এক প্রশ্নের উত্তরে তিনি বলেন, তথ্য সংগ্রহ আমার কাছে বোরিং ফিল (বিরক্তবোধ) মনে হয়। এ জন্য এসব তথ্য আমার কাছে রাখি না। সব জেলা প্রশাসকের কার্যালয়ে আছে।

খোঁজ নিয়ে জানা গেছে, প্রথমদিনের পরীক্ষায় ৩৯৩৮ জন শিক্ষার্থীর মধ্যে ৩৯১৬ জন অংশ নেয়। অনুপস্থিত ছিল ২২ জন শিক্ষার্থী।

এবার কুলাউড়া উপজেলার তিনটি কেন্দ্রের অধীনে এসএসসিতে ৪ হাজার ২৭৭ জন এবং দাখিলে দুটি কেন্দ্রের অধীনে ৭৬৯ জনসহ মোট ৫ হাজার ৪৬ জন পরীক্ষার্থী অংশ নিচ্ছে। কেন্দ্র সচিবদের কাছ থেকে প্রাপ্ত তথ্য অনুযায়ী এসএসসি কুলাউড়া কেন্দ্র-১ নবীন চন্দ্র সরকারি মডেল উচ্চ বিদ্যালয় ও কুলাউড়া বালিকা উচ্চ বিদ্যালয়ে ১৬১৬ জন শিক্ষার্থীর মধ্যে ১৬১২ জন পরীক্ষায় অংশ নিয়েছে। অনুপস্থিত ছিল ৪ জন। কুলাউড়া কেন্দ্র-২ আলী আমজদ স্কুল এন্ড কলেজে ১২২৭ জন শিক্ষার্থীর মধ্যে ১২২২ জন পরীক্ষায় অংশ নেয়। অনুপস্থিত ৫ জন। কুলাউড়া কেন্দ্র-৩ জালালাবাদ উচ্চ বিদ্যালয়ে ৪৮৪ জন শিক্ষার্থীর মধ্যে ৪৮২ জন পরীক্ষায় অংশ নেয়। অনুপস্থিত ২ জন। এ ছাড়া দাখিল পরীক্ষায় কুলাউড়া কেন্দ্র-১ মনসুর মোহাম্মদীয়া সিনিয়র মাদরাসায় ২৯৩ জন শিক্ষার্থীর মধ্যে ২৮৯ জন পরীক্ষায় অংশ নেয়। অনুপস্থিত ৪ জন। কুলাউড়া কেন্দ্র-২ রবিরবাজার দারুসসুন্নাহ আলিম মাদরাসায় ৩১৮ জন শিক্ষার্থীর মধ্যে ৩১১ জন পরীক্ষায় অংশ নেয়। অনুপস্থিত ৭ জন।

কুলাউড়া উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা মুহাম্মদ আবুল লাইছ কালের কণ্ঠকে বলেন, নিয়মিত ফরমেটে পরীক্ষার সকল তথ্য আমরা বোর্ডে পাঠিয়ে থাকি। আমরা চাইলে আপনাদের তথ্য দিতে পারি।

মৌলভীবাজার জেলা মাধ্যমিক শিক্ষা অফিসার আব্দুল ওয়াদুদ মুঠোফোনে কালের কণ্ঠকে বলেন, পরীক্ষা সংক্রান্ত কাজ আমরা করিনা, সবকিছু শিক্ষা বোর্ড নিয়ন্ত্রণ করে। মাধ্যমিক শিক্ষা অফিসারের দায়িত্বের মধ্যে কি পরীক্ষা সংক্রান্ত তথ্য সংগ্রহের কাজ পড়ে না এমন প্রশ্নের উত্তরে তিনি বলেন, উনি (শিক্ষা অফিসার) চাইলে আপনাদের তথ্য দিতে পারতেন। সূত্র: কালের কন্ঠ

আপনার মতামত লিখুন

সারাদেশ,সিলেট বিভাগের সর্বোচ্চ পঠিত সংবাদ