মঙ্গলবার-২৩শে জুলাই, ২০১৯ ইং-৮ই শ্রাবণ, ১৪২৬ বঙ্গাব্দ, সময়: রাত ৪:৩৪
ছেলে ধরা আতংক গুজব থেকে সচেতনতা বাড়াতে শহর জুড়ে পুলিশের মাইকিং।। লালপুরে ওয়ালিয়া তরুণ সমাজের ৪র্থ প্রতিষ্ঠা বার্ষিকী পালিত বড়পুকুরিয়া কয়লাখনির দুর্নীতির দায়ে দুদুকের চার্জশিট দাখিল ॥ ডোমারে আরসিসি রাস্তা নির্মানের দাবীতে মানববন্ধন। কলাপাড়ায় পুকুরে ডুবে দুই ভাই-বোনের মৃত্যু।। গোবিন্দগঞ্জে বাঁধ ভেঙ্গে নতুন নতুন এলাকা প্লাবিত শৈলকুপায় গৃহবধূর ঝুলন্ত লাশ উদ্ধার!

হঠাৎ বৃদ্ধি পাওয়া তিস্তার পানি কমেছে

মো: লাভলু শেখ, লালমনিরহাট
উজান থেকে নেমে আসা পাহাড়ী ঢলে হঠাৎ বৃদ্ধি পাওয়া তিস্তা নদীর পানি কমেছে। গত মঙ্গলবার রাত ৮টায় পানি বিপদসীমার ৫ সেন্টিমিটার উপর দিয়ে প্রবাহিত হলেও গতকাল বুধবার সকাল থেকে বিপদসীমার নিচ দিয়ে ৬০ সেন্টিমিটার উচ্চতায পানি প্রবাহিত হয়েছিল।
গত মঙ্গলবার রাত ৮টার দিকে দেশের বৃহত্তম সেচ প্রকল্প তিস্তা ব্যারাজের পানি প্রবাহ রেকর্ড করা হয় ৫২ দশমিক ৬৩ সেন্টিমিটার। যা স্বাভাবিকের (৫২.৬০ সেন্টিমিটার) চেয়ে ৫ সেন্টিমিটার উপর দিয়ে প্রবাহিত। হঠাৎ পানি বৃদ্ধি পাওয়ায় নিম্নাঞ্চল প্লাবিত হয়। পাটগ্রাম উপজেলায় অবস্থিত বহুল আলোচিত বিলুপ্ত ছিটমহল আঙ্গরপোতা-দহগ্রাম, হাতীবান্ধা উপজেলার সানিয়াজান, গড্ডিমারী, সিঙ্গিমারী, পটিকাপাড়া ও ডাউয়াবাড়ী ইউনিয়নের চর, আদিতমারী উপজেলার মহিষখোচা, সদর উপজেলার রাজপুর, খুনিয়াগাছ, গোকুন্ডা ইউনিয়ন ও কালীগঞ্জ উপজেলার চরাঞ্চল এলাকাসহ প্রায় ৫ হাজার পরিবার পানিবন্দী হয়ে পড়ে। পানি কমাতে খুলে দেয়া হয় ব্যারাজের ৪৪টি গেট। তবে গত বুধবার সকাল থেকে বৃহস্পতিবার এ রিপোর্ট লেখা পর্যন্ত পানি কমে যাওয়ায় আতংকিত বিস্তা পাড়ের মানুষের মাঝে স্বস্তি ফিরে এসেছে।
তিস্তা ব্যারাজের নির্বাহী প্রকৌশলী রবিউল ইসলাম জানান, তিস্তার পানি প্রবাহ কমে বুধবার (২০জুন) বিকাল ৪টায় বিপদসীমার ১০০ সেন্টিমিটার নিচ দিয়ে প্রবাহিত হচ্ছে। তিস্তা ব্যারাজ রক্ষায় পানি উন্নয়ন বোর্ডের কর্মকর্তা-কর্মচারীরা সতর্ক অবস্থায় রয়েছে বলেও তিনি জানান।

আপনার মতামত লিখুন

রাজশাহী,সারাদেশ বিভাগের সর্বোচ্চ পঠিত সংবাদ