শুক্রবার-২৪শে মে, ২০১৯ ইং-১০ই জ্যৈষ্ঠ, ১৪২৬ বঙ্গাব্দ, সময়: রাত ৮:০১
কলেজে ভর্তির আবেদন এখনও করেননি আড়াই লাখ শিক্ষার্থী ডোমারে আওয়ামীলীগের ইফতার মাহফিল জলঢাকায় সড়কে ধান ও খড় শুকানোর ধুমপরেছে- চলাচলে জনগনের দূর্ভোগ বিপুল জয়ে মোদিকে বিএনপির অভিনন্দন বিপুল জয়ে মোদিকে বিশ্বনেতাদের অভিনন্দন ২৫ জেলায় চলছে প্রথম ধাপের সহকারী শিক্ষক নিয়োগ পরীক্ষা মুক্তিযোদ্ধাদের ভাতা বাড়ছে

লালমনিরহাটে গৃহবধুর মৃত্যু নিয়ে ধ্র“ম্যজাল লালমনিরহাট সংবাদদাতা, ১৮ ডিসেম্বর।

লালমনিরহাটে লায়লা বেগম (১৯) নামের এক গৃহবধুর মৃত্যু নিয়ে ধ্র“ম্যজালের সৃষ্টি হয়েছে। কেউ বলছে শ্বাসরোধ করে হত্যা আবার কেউ বলছে হার্ড ষ্টোক করে মৃত্যু হয়েছে। অবশেষে গতকাল রোববার লাশ ময়নাতদন্ত শেষে বাবার বাড়ীর পারিবারিক কবরস্থানে নামাজে জানাজা শেষে দাফন করা হয়েছে।
জানাগেছে, শহরের বিডিআরহাট (পানির ট্যাংক) সংলগ্ন এলাকার আয়ুর্বেদিক চিকিৎসক লাল মিয়ার পুত্র সুমন (২৬) ১ বছর আগে প্রেম করে আদিতমারী উপজেলার সরল খাঁ এলাকার মৃত্যু রতন মিয়ার কন্যা লায়লা বেগমকে বিয়ে করে। বিয়ের পর থেকে তাদের দাম্পত্য জিবন সুখে কাটছিল। ইতোমধ্যে ওই গৃহবধু লায়লা ৯মাসের অন্তসত্তা হয়। সে অসুস্থ্য হলে গত ১৫ ডিসেম্বর রংপুর মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে ভর্তি করা হলে পরদিন ১৬ ডিসেম্বর সকালে হার্ড ষ্টোকে তার মৃত্যু হয়েছে বলে ওই হাসপাতালের আবাসিক মেডিকেল অফিসারের স্বারিত (মৃত্যুর প্রমান পত্র) সুত্রে জানা যায়। এদিকে লায়লার চাচা কাজল মিয়া গৃহবধুর ওই স্বাভাবিক মৃত্যুকে হত্যা হিসেবে দাবী করে সদর থানায় গত ১৭ ডিসেম্বর স্বামী সুমনকে অভিযুক্ত করে এজাহার দায়ের করলে পুলিশ লাশ ময়নাতদন্তের জন্য মর্গে প্রেরণ করে।
মামলার তদন্ত কর্মকর্তা এসআই আলমগীর জানান, লাশের সুরতহাল রিপোর্টে হত্যার কোন আলামত পাওয়া যায়নি। তবে লাশের ময়নাতদন্তের রিপোর্ট এলে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা নেয়া হবে।
সুমনের পিতা লাল মিয়া জানান, আমার ছেলে ও লায়লা দু’জন দুজনকে ভালোবেসে বিয়ে করেছিল। বিয়ের পর থেকে তাদের দাম্পত্য জিবন সুখে কাটছিল। লায়লা অসুস্থ্য হলে দ্রুত হাসপাতালে ভর্তি করা হয়। পরদিন চিকিৎসাধীন অবস্থায় তার মৃত্যু ঘটে। আমার ছেলের নামে হত্যার অভিযোগ মিথ্যা, সাজানো ও ষড়যন্ত্র বলেও তিনি জানান।

আপনার মতামত লিখুন

রংপুর,সারাদেশ বিভাগের সর্বোচ্চ পঠিত সংবাদ