বুধবার-১৯শে জুন, ২০১৯ ইং-৫ই আষাঢ়, ১৪২৬ বঙ্গাব্দ, সময়: দুপুর ১২:৩৮
যাত্রাবাড়ীতে ছুরিকাঘাতে স্বর্ণকার নিহত পায়রা বিদ্যুৎকেন্দ্রে কর্মরত চীনা নাগরিকের মৃত্যু ক্ষতিকর প্রভাব পড়বে বিদেশি বিনিয়োগে ডুমুরিয়ার এএসআই সাময়িক বরখাস্ত ১৬ ঘণ্টা পর নদীতে ভেসে উঠল নিখোঁজ বিশ্ববিদ্যালয় ছাত্রের লাশ দিনাজপুরে দেশের প্রথম লোহার খনি আবিষ্কার ১৬তম শিক্ষক নিবন্ধনের অনলাইন আবেদনের শেষ দিন আজ

লালপুরে অপকর্ম রোধে মাদক বিক্রেতার বাড়ি হবে গণশৌচাগার!

1 week ago , বিভাগ : সারাদেশ,

 

Exif_JPEG_420

মোঃ আশিকুর রহমান টুটুল, নাটোর প্রতিনিধি
নাটোর শহরের পরে এবার লালপুরের ওয়ালিয়ার মতো গ্রাম অঞ্চলে সাইনবোর্ডের মাধ্যমে মাদকের প্রতি চুড়ান্ত ঘৃণা ও মাদক ব্যবসায়ীর বাড়িকে গণশৌচাগার তৈরীর মতো কড়া হুমকি জনিয়েছেন এলাকাবাসী।
শনিবার (০৮ জুন) সকালে সরেজমিনে গিয়ে দেখা যায়, লালপুর উপজেলার ব্য¯Íতম লালপুর-বনাপাড়া, দয়রামপুর-বনপাড়া সড়কের ওয়ালিয়া ট্রাফিক মোড়ে ‘অপকর্ম রোধে অপকর্মের ব্যবহার, মাদক বিক্রেতার বাড়ি হবে গণশৌচাগার’ প্রচারে এলাকাবাসী এমন একটি সাইনবোর্ড টাঙ্গানো আছে। সাইনবোর্ডের দিকে যিনিই তাকাচ্ছেন তিনিই অবাক হচ্ছেন। নাটোর শহরের পরে গ্রাম অঞ্চলে এমন সাইনবোর্ড মাদকের প্রতি যেন চুড়ান্ত ঘৃণা জানানো হয়েছে।
স্থানীয় সুশিল সমাজ বলছেন, সরকার দেশব্যপী মাদকের বিরুদ্ধে জিরো টলারেন্স নীতি গ্রহণ করেছেন, তারই ফলশ্রæতিতে মানুষ এখন ধীরে ধীরে সচেতন হচ্ছে। মাদকের বিরুদ্ধে আইন শৃঙ্খলা রক্ষাকারী বাহিনীর চলমান অভিযানে জনমনে আস্থার সঞ্চার সৃষ্টি করেছ।
এব্যাপারে ওয়ালিয়া ইউপির চেয়ারম্যান আনিসুর রহমান মাস্টার আমার সংবাদ কে বলেন, ‘মাদক নির্মূলে জনসচেতনার চেয়ে বড় কিছু নেই, তাই প্রশাসনের পাশাপাশি জনগনকে সচেতন করতে সামাজিক সংগঠন ওয়ালিয়া তরুণ সমাজের মাধ্যমে বিগত ২০১৭ সালের ৭ অক্টোবরে মাদক ও সন্ত্রাস প্রতিরোধে জনসচতেনা বৃদ্ধিতে মানববন্ধন করা হয়। তারই ফলশ্রæতিতে এলাকাবসীর পÿ থেকে সাড়া পাওয়া যাচ্ছে।’ তিনি আরো বলেন, আগামীতে মাদক প্রতিরোধে প্রশাসনের সহযোগিতায় সমাজের সকল জনগনকে সঙ্গে নিয়ে কঠোর প্রতিরোধ গড়ে তুলা হবে।’
ওয়ালিয়া তরুণ সমাজের সভাপতি আশিকুর রহমান টুটুল বলেন, ‘ঘৃণার উপর আর কোন প্রতিবাদ হয় না। মাদকের মতো ভয়ঙ্কর থাবা থেকে তরুণ সমাজ কে বাঁচাতে সরকার ও প্রশাসনের সঙ্গে একত্মা প্রকাশ করে সমাজিক ভাবে প্রতিরোধ ও জনসচেতনা বৃদ্ধিতে ২০১৭ সালের ৭ অক্টোবর থেকে ওয়ালিয়া তরুণ সমাজ কাজ করে যাচ্ছে। তারই ফল হিসেবে এবার এলাকাবাসী সাইনবোর্ডের মাধ্যমে মাদকের প্রতি সেই ঘৃণা প্রদর্শন করতে শুরু করেছে। সমাজের দায়িত্বশীলরা এগিয়ে এলে এবার মাদকের বিরুদ্ধে সত্যিকারের সামাজিক আন্দোলন হতে পারে বলে তিনি মনে করেন।’
লালপুর থানার ওসি নজরুল ইসলাম জুয়েল আমার সংবাদ কে বলেন,‘লালপুরে মাদকের কোন ঠাঁই হবেনা। মাদক নির্মূলে থানা পুলিশ নিয়োমিত অভিযান পরিচালনা করে আসছে। মাদক এখানে পুরোপুরি নির্মূল না হলেও আগের চেয়ে অনেক কমে গেছে। তবে মাদক প্রতিরোধে প্রয়োজন জনসচেতনতা। জনসচেতনতা বৃদ্ধিতে নাটোর পুলিশ সুপার সাইফুলøাহ আল মামুন স্যারের নির্দেশে উপজেলার প্রতিটি এলাকায় ও রা¯Íায় খোদ পুলিশ সদস্যরা পুলিশ ভ্যানে মাইক লাগিয়ে মাদকবিরোধী বার্তা পৌছে দিয়েছে। কোন মাদক ব্যবসায়ী বা সেবনকারী যদি নিজের ভুল বুঝতে পারে, তবে পুলিশ তার জন্য সাহায্যের হাত বাড়িয়ে দেবে বলে জানিয়েছেন এই কর্মকর্তা।’

আপনার মতামত লিখুন

সারাদেশ বিভাগের সর্বোচ্চ পঠিত সংবাদ