বুধবার-১৭ই জুলাই, ২০১৯ ইং-২রা শ্রাবণ, ১৪২৬ বঙ্গাব্দ, সময়: রাত ১০:২০
চিরিরবন্দরে এইচএসসি পরীক্ষায় ফেল করায় শিক্ষার্থীর আত্মহত্যা রাণীরবন্দর তাঁত বোর্ডের পিয়নের বিরুদ্ধে সংবাদ সম্মেলন ডোমারে জাতীয় মৎস্য সপ্তাহ উপলক্ষে সংবাদ সম্মেলন। মুক্তিযোদ্ধা ও যুদ্ধাহত মুক্তিযোদ্ধাদের জন্য সরকার সার্বিক সহায়তা অব্যাহত রেখেছে – আ,ক,ম মোজাম্মেল হক—এমপি শৈলকুপায় জাতীয় মৎস্য সপ্তাহ উপলক্ষ্যে সংবাদ সম্মেলন সৈয়দপুরে মৎস অফিসের সংবাদ সম্মেলন সৈয়দপুরে ছয় কলেজ থেকে জিপিএ ৫ পেয়েছে ৪৩২ জন

রোগ-শোক বাসা বেঁধেছে লোহাগড়ার কবি গফুরের শরীরে

মুক্তিনিউজ২৪.কম ডেস্ক: ভালো নেই কবি আব্দুল গফুর(১১০)। রোগ-শোক বাসা বেঁধেছে শরীরে। শরীরের জোরের সাথে চোখের জ্যোতিও কমেছে। একবেলা-আধবেলা খেয়ে, না খেয়ে কাটছে তাঁর দিন। নড়াইলের লোহাগড়া উপজেলার লক্ষীপাশা ইউনিয়নের বয়রা গ্রামের মৃত মালু শেখের ছেলে কবি গফুর।

খোঁজ নিয়ে জানা গেছে, বিশিষ্ট কবি গফুর তাঁর হাতের ধারালো লেখনির মাধ্যমে ”গহের কবি” নামে এলাকায় ব্যাপক পরিচিতি পেয়েছেন। কবি আব্দুল গফুর কালের কণ্ঠকে জানান, তাঁর স্ত্রীসহ বড় ছেলে কবিরুল(৪০) ও রবিউল(৩৭) তিনজনই গত ৪/৫ বছরের মধ্যে রোগে ভুগে মৃত্য বরণ করেছেন। এখন আছে নিজের বলতে বাসোনা ও রাফেজা নামে দুটি মেয়ে। তারা বিবাহিত। ভাত রান্না করে দেবার কেউ নেই, তাই নিজেই অসুস্থ শরীর নিয়ে দিনে একবার কোনও রকমে রান্না করেন। মাঝে মাঝে গ্রামের লোকজন ও মেয়েরা ভাত দিয়ে যায়। বয়রা গ্রামে ২১ বন্দের টিনের খুঁপড়ি ঘরে বসবাস করেন এই কবি। চিকিৎসার জন্য প্রধানমন্ত্রীর নিকট আবেদন করলে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা বিশিষ্ট এই কবিকে ইতোমধ্যে ৫ লাখ টাকার সহযেগিতা করেছেন।

কবি আব্দুল গফুর আরো জানান, বঙ্গবন্ধু ও প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনাকে নিয়েও অনেক কবিতা লিখেছি। লিখেছি গ্রাম ও দেশ নিয়ে, দেশের মানুষকে নিয়ে হাজারো কবিতা লিখেছি। এই কবির লেখা কবিতার মধ্যে অন্যতম ”গুণবতী,গুরুর বাড়ি, নৌকা। বঙ্গবন্ধুকে নিয়েও তিনি গান রচনা করেছেন। তাঁর রচিত কবিতার সংখ্যা প্রায় তিনহাজার, গান প্রায় পাঁচশত। প্রধানমন্ত্রী থেকে প্রাপ্ত অর্থ নিজের ও দু ছেলের চিকিৎসায় লাগিয়েছেন কবি গফুর।

বুধবার(৩০ জানুয়ারি) সকালে গফুর কবি এসেছিলেন উপজেলা পরিষদ অফিসে। সেখানে ইউএনও”র কাছে প্রথম যেয়ে বললেন, স্যার আমার দুটি মেয়ে আছে, তাদের জন্য কিছু করেন। তারা অভাবে আছে। এর পরে তিনি যান সমাজসেবা অফিসারের কাছে। সেখানে গিয়েও সহযোগিতা কামনা করেন। সমাজসেবা অফিসার মোঃ শামীম রেজা জানান, গফুর কবি সংস্কৃতি মন্ত্রণালয় থেকে মাসে ২১শত, সমাজসেবা অফিস থেকে মাসে ৫শত টাকা ভাতা পান। ইউএনও মুকুল কুমার মৈত্র এ বিষয়ে বলেন, সাধ্যমতো আমার দপ্তর সহযোগিতা করবে।কবি গফুরের এখন সমস্যা বলতে তিনবেলা গরমভাত জোটেনা, শরীরে ব্যাথা ও চোখে কম দেখেন । তিনি বলেন, মৃত্যুর আগ পর্যন্ত একটু শান্তিতে বাস করতে চাই। সূত্র: কালের কন্ঠ

আপনার মতামত লিখুন

খুলনা,সারাদেশ বিভাগের সর্বোচ্চ পঠিত সংবাদ