শুক্রবার-১৯শে জুলাই, ২০১৯ ইং-৪ঠা শ্রাবণ, ১৪২৬ বঙ্গাব্দ, সময়: সকাল ৯:৫২
সেবা না পেয়ে ফুলবাড়ী উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সের সরকারি এ্যম্বুলেন্স ভাংচুর। ফুলবাড়ীতে মৎস্য সপ্তাহ উদ্ভোধন। গোবিন্দগঞ্জে মাছ ধরতে গিয়ে নিখোঁজ- ১ ডোমারে স্কুল ছাত্র সুমন নিখোঁজ সন্ধান চায় পরিবার। আওয়ামী লীগের সম্পাদকমণ্ডলীর সভা শনিবার বুবলীই থাকছেন শাকিবের ‘বীর’ ছবির নায়িকা ছাতকে জাতীয় মৎস্য সপ্তাহ’র উদ্বোধন উপলক্ষে র‌্যালী ও আলোচনা সভা

মোবাইল ব্যাংকিংয়ে সরকারি পরিশোধ কমেছে ৮২%

3 months ago , বিভাগ : অর্থনীতি,

মুক্তিনিউজ২৪.কম ডেস্ক: মার্চ মাসে মোবাইল ব্যাংকিংয়ে দৈনিক লেনদেন কমেছে। সেই সঙ্গে আশঙ্কাজনক হারে কমেছে সরকারি পরিশোধ। এ মাসে মাত্র ২০ কোটি টাকার সরকারি পরিশোধ হয়েছে, যা ফেব্রুয়ারিতে ছিল ১১১ কোটি ২২ লাখ টাকা। কমার হার প্রায় ৮২ শতাংশ।

গত মাসে মোবাইল ব্যাংকিংয়ে দৈনিক লেনদেন হয়েছে এক হাজার ১১৮ কোটি টাকা। আগের মাস ফেব্রুয়ারিতে হয়েছিল এক হাজার ১২৫ কোটি টাকা। সম্প্রতি দুটি ব্যাংক তাদের মোবাইল ব্যাংকিং বন্ধ করে দেওয়ায় কিছুটা প্রভাব পড়েছে বলে জানিয়েছেন বাংলাদেশ ব্যাংকের কর্মকর্তারা। তবে দৈনিক লেনদেন কমলেও মোট লেনদেন এ মাসে কিছুটা বেড়েছে। মার্চ মাস ৩১ দিনের হওয়াই এর মূল কারণ বলে জানিয়েছেন তাঁরা।

বাংলাদেশ ব্যাংকের হালনাগাদ প্রতিবেদনে দেখা যায়, মার্চ মাস শেষে দেশে মোবাইল ব্যাংকিং সেবার আওতায় নিবন্ধিত গ্রাহকসংখ্যা দাঁড়িয়েছে ছয় কোটি ৭৫ লাখ ৪০ হাজার। এর মধ্যে সক্রিয় হিসাবের সংখ্যা তিন কোটি ২৩ লাখ ৫৮ হাজার। এ হিসাবে বর্তমানে মোবাইল ব্যাংকিংয়ের অর্ধেকেরও বেশি অ্যাকাউন্ট নিষ্ক্রিয় অবস্থায় রয়েছে। সাধারণ নিয়মে, টানা তিন মাসে একবারও লেনদেন হয়নি এমন হিসাবকে নিষ্ক্রিয় বলে গণ্য করা হয়।

প্রতিবেদন অনুযায়ী, মার্চ মাসে মোবাইল ব্যাংকিংয়ে মোট লেনদেন হয়েছে ৩৪ হাজার ৬৭৪ কোটি ৩৭ লাখ টাকা। আগের মাস ফেব্রুয়ারিতে হয়েছিল ৩১ হাজার ৫১২ কোটি ৬০ লাখ টাকা। এ হিসাবে ফেব্রুয়ারির তুলনায় মার্চ মাসে মোট লেনদেন বেড়েছে প্রায় ১০ শতাংশ শতাংশ। তবে এ মাসে দৈনিক লেনদেন কমেছে প্রায় দশমিক ৬ শতাংশ। ফেব্রুয়ারি মাসে যেখানে দৈনিক এক হাজার ১২৫ কোটি ৪৫ লাখ টাকার লেনদেন হয়, সেখানে মার্চ মাসে হয়েছে এক হাজার ১১৮ কোটি ৬৬ লাখ টাকা।

প্রতিবেদনে আরো দেখা যায়, মার্চ মাসে মোবাইল ব্যাংকিংয়ের আওতায় ক্যাশ ইন লেনদেন হয়েছে ১৩ হাজার ৮৩৮ কোটি ৯৫ লাখ টাকা, যা আগের মাসে ছিল ১২ হাজার ৩৫৮ কোটি ৫৬ লাখ টাকা। এ হিসাবে ফেব্রুয়ারি তুলনায় মার্চে ক্যাশ ইন লেনদেন বেড়েছে ১২ শতাংশ। মার্চ মাসে ক্যাশ আউট লেনদেন হয়েছে ১৩ হাজার ৫৮ কোটি ৮৬ লাখ টাকা, ফেব্রুয়ারি মাসে যা ছিল ১১ হাজার ৯৪৬ কোটি ৬৫ লাখ টাকা। ফলে ক্যাশ আউট লেনদেন বেড়েছে প্রায় ৯ শতাংশ। এছাড়া মার্চে ব্যক্তি হিসাব থেকে ব্যক্তি হিসাবে অর্থ স্থানান্তর হয়েছে পাঁচ হাজার ৬৪৮ কোটি টাকা। বিভিন্ন প্রতিষ্ঠানের বেতন-ভাতা বিতরণ হয়েছে ৭৫৬ কোটি ৩৫ লাখ টাকা। ইউটিলিটি বিল পরিশোধ করা হয়েছে ৩৪৭ কোটি ৭৪ লাখ টাকা। কেনাকাটার বিল পরিশোধ করা হয়েছে ৪৬৮ কোটি ৮৬ লাখ টাকা। এ ছাড়া মার্চে অন্যান্য হিসাবে লেনদেন হয়েছে ৫২৪ কোটি ৯৩ লাখ টাকা।সূত্র: কালের কন্ঠ

আপনার মতামত লিখুন

অর্থনীতি বিভাগের সর্বোচ্চ পঠিত সংবাদ