রবিবার-২১শে জুলাই, ২০১৯ ইং-৬ই শ্রাবণ, ১৪২৬ বঙ্গাব্দ, সময়: সকাল ৬:০০
পঞ্চগড়ে মাদক বিরোধী শোভাযাত্রা পাঁচবিবিতে চাচাতো ভাইয়ের লাঠির আঘাতে ভাইয়ের মৃত্যু পঞ্চগড়ে ১০ দিনব্যাপী বৃক্ষ মেলার উদ্বোধন পর্যায়ক্রমে সব অবৈধ দখলদার উচ্ছেদ করা হবে -হবিগঞ্জে পানি সম্পদ প্রতিমন্ত্রী জলঢকায় ফলদ বৃক্ষমেলার সমাপ্ত ও বিজয়ীদের মাঝে পুরষ্কার বিতরন ডোমারের সন্তান বন্ধন জেনেটিকস্ লিঃ এর পরিচালক আনোয়ারের সাথে থাইল্যান্ড কোম্পানী সমঝোতা ও বানিজ্য চুক্তি স্বাক্ষর। মোকামতলায় পুলিশের বিশেষ অভিযানে বিপুল পরিমান মাদকদ্রব্য উদ্ধার, আটক ৩

বাংলাদেশের ভাবমূর্তি উজ্জ্বল করেছে সেনাবাহিনী – সৈয়দপুর সেনানিবাসে রাষ্ট্রপতি

মোঃ জাকির হোসেন, সৈয়দপুর (নীলফামারী) সংবাদদাতাঃ রাষ্ট্রপতি মো: আবদুল হামিদ বলেছেন, সেনাবাহিনীর সদস্যগণ বন্যা, জলোচ্ছ্বাস, ঘূর্নিঝড়ের মতো প্রাকৃতিক দূর্যোগে সব সময় জনগনের পাশে দাঁড়িয়েছে। জাতিসংঘ শান্তিরা মিশনেও তাদের কৃতিত্বপূর্ন ভুমিকা দেশ-বিদেশে বাংলাদেশের ভাবমূর্তি উজ্জ্বল করেছে। নীলফামারীর সৈয়দপুর সেনানিবাসে অনুষ্ঠিত প্যারেডে পরিদর্শন শেষে এক বক্তব্যে তিনি এ কথা বলেন।
ইএমই কোরের কর্নেল কমান্ড্যান্ট অভিষেক অনুষ্ঠান, বাৎসরিক অধিনায়ক সম্মেলন ও ৫ম কোর পুনর্মিলনী শুরু হয়েছে। দুই দিন ব্যাপী এ অনুষ্ঠানের আজ বুধবার ইলেকট্রিক্যাল এ্যান্ড মেকানিক্যাল ইঞ্জিনিয়ার্স সেন্টার এন্ড স্কুলপুনর্মিলনী অনুষ্ঠান উপলে সৈয়দপুর সেনানিবাসে অনুষ্ঠিত প্যারেডে মহামান্য রাষ্ট্রপতি মো: আবদুল হামিদ প্যারেড পরিদর্শন ও অভিবাদন গ্রহণ করেন। প্যারেড শেষে রাষ্ট্রপতি উপস্থিত সকলের উদ্দেশ্যেতার মূল্যবান বক্তব্য প্রদান করেন। এসময় তিনি জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের হাতে গড়া এ সেনাবাহিনীকেএকটি প্রশিতি, সুশৃঙ্খল এবং আধুনিক সেনাবাহিনী হিসেবে গড়ে তোলার জন্য পরামর্শ প্রদান করেন।
বক্তব্যে তিনি বলেন, স্বাধীনতার পরপরই যুদ্ধবিধ্বস্ত বাংলাদেশে সীমিত সম্পদ দ্বারা জাতির পিতা বাংলাদেশ সেনাবাহিনী গঠনে উদ্যোগী হন। তাঁর বলিষ্ঠ নেতৃত্বেই বর্তমান বাংলাদেশ সেনাবাহিনীর গোড়াপত্তন হয়। বঙ্গবন্ধু সবসময়ই আধুনিক, শক্তিশালী ও যুগোপযোগি সশস্ত্র বাহিনীর প্রয়োজনীয়তা অনুভব করতেন।
পুনমির্লনী প্যারেডের পর রাষ্ট্রপতি ইলেকট্রিক্যাল এ্যান্ড মেকানিক্যাল ইঞ্জিনিয়ার্স সেন্টার এন্ড স্কুল-এর প্রশিণ এলাকায় একটি আম গাছের চারা রোপন করেন। এরপর তিনি ইএমই কোরের কর্মরত ও অবসরপ্রাপ্ত সেনাসদস্য এবং শহীদ পরিবারবর্গের সাথে প্রীতিভোজে অংশ নেন।
এর আগে পুনর্মিলনী অনুষ্ঠানে রাষ্ট্রপতি সৈয়দপুরে আগমন করলে সেনাবাহিনী প্রধান জেনারেল আবু বেলাল মোহাম্মদ শফিউল হক, কর্নেল কমান্ড্যান্ট ইএমইসিএন্ডএস সহ উর্ধতন সামরিক কর্মকর্তাবৃন্দ রাষ্ট্রপতিকে অভ্যর্থনা জানান। অনুষ্ঠানে মন্ত্রী পরিষদের সদস্য, নৌ ও বিমান বাহিনী প্রধান, সংসদ সদস্য বৃন্দ, উর্ধতন সামরিক ও অসামরিক কর্মকর্তাবৃন্দ উপস্থিত ছিলেন।

আপনার মতামত লিখুন

মুক্তিযুদ্ধ,রংপুর,সারাদেশ বিভাগের সর্বোচ্চ পঠিত সংবাদ