বুধবার-২২শে মে, ২০১৯ ইং-৮ই জ্যৈষ্ঠ, ১৪২৬ বঙ্গাব্দ, সময়: রাত ৪:৫১
ফুলবাড়ীতে ব্রি ধান ৫০ উৎপাদনে কৃষক মাঠ দিবস অনুষ্ঠিত॥ চিরিরবন্দরে উন্মুক্ত লটারির মাধ্যমে ধান সংগ্রহে কৃষকের নাম বাছাই জলঢাকায় বজ্রপাতে একজনের মৃত্যু ইসলামী ব্যাংক সৈয়দপুর শাখায় শিক্ষা উপকরণ বিতরণ সৈয়দপুর পৌরসভার বৃত্তি পরীক্ষার সনদপত্র ও চেক বিতরণ অনুষ্ঠিত ফুলছড়িতে  ৫ প্রতিষ্ঠানের ৭ হাজার টাকা জরিমানা  গোবিন্দগঞ্জে গ্রীল কাটার যন্ত্রপাতি ও ইয়াবাসহ ২ জন আটক

নুসরাত হত্যা মামলার অভিযোগপত্র চলতি মাসেই: পিবিআই

মুক্তিনিউজ২৪.কম ডেস্ক: মাদরাসাছাত্রী নুসরাত জাহান রাফি হত্যা মামলার তদন্ত কাজ প্রায় শেষ। কিছু কাগজপত্র তৈরি করে চলতি মাসের যেকোনো দিন ১৬ জনের বিরুদ্ধে আদালতে অভিযোগপত্র জমা দেওয়া হবে বলে জানিয়েছেন পিবিআই (পুলিশ ব্যুরো অব ইনভেস্টিগেশন) প্রধান বনজ কুমার মজুমদার।

আজ শনিবার এফডিসিতে ডিবেট ফর ডেমোক্র্যাসি আয়োজিত বিতর্ক প্রতিযোগিতা শেষে সাংবাদিকদের প্রশ্নের জবাবে তিনি এসব কথা বলেন।

বনজ মজুমদার বলেন, তদন্ত কাজ মোটামুটি শেষ। কিছু কাগজপত্র তৈরি করে চলতি মাসের যেকোনো দিন আসামিদের বিরুদ্ধে আদালতে চার্জশিট জমা দেওয়া হবে।

সাংবাদিকদের এক প্রশ্নের জবাবে তিনি বলেন, নুসরাত হত্যার ঘটনায় এখন পর্যন্ত ১৬ জনের সম্পৃক্ততা পেয়েছে পিবিআই তদন্ত দল।

তিনি আরো বলেন, এরকম একটি জঘন্যতম হত্যাকাণ্ডের দায় জড়িত সকলকে নিতে হবে। এ ঘটনার আগে ও পরে যারা মদদ জুগিয়েছে, তারাও যাতে শাস্তি পায়, সেজন্য পুলিশের অন্য সংস্থাগুলোও কাজ করছে।

নুসরাতের পরিবারের প্রথম মামলার পর সোনাগাজী থানার তৎকালীন ওসি মোয়াজ্জেম হোসেনসহ জেলা পুলিশের কিছু কর্মকর্তার গাফিলতির বিষয়টি বাহিনীর নিজস্ব তদন্তে উঠে এসেছে। ওসি মোয়াজ্জেমের বিরুদ্ধে ডিজিটাল নিরাপত্তা আইনে মামলাও হয়েছে।কালেরকন্ট

পিবিআইয়ের এই কর্মকর্তা বলেন, মোয়াজ্জেম হোসেনের বিরুদ্ধে করা আইসিটি মামলার তদন্ত কাজ শেষ হতে আরো কিছুটা সময় লাগবে। আদালতে তারা সময়ের আবেদন করেছে।

উল্লেখ্য, মাদরাসার অধ্যক্ষ গত ২৭ মার্চ নুসরাত জাহানের শ্লীলতাহানির চেষ্টা করেন। নুসরাত বিষয়টি বাসায় জানালে তার মা সোনাগাজী থানায় মামলা করেন। ওই মামলার প্রেক্ষিতে সোনাগাজী থানা পুলিশ অধ্যক্ষ সিরাজউদ্দৌলাকে গ্রেপ্তার করে। এরপর মামলা প্রত্যাহারের জন্য নুসরাতকে চাপ দেয় সিরাজউদ্দৌলার লোকজন।

পরে গত ৬ এপ্রিল ফেনীর পৌর শহরের সোনাগাজী ইসলামিয়া সিনিয়র ফাজিল মাদরাসা কেন্দ্রে পরীক্ষা দিতে গেলে আলিম পরীক্ষার কেন্দ্রের ছাদে নিয়ে হাত-পা চেপে ধরে তার গায়ে আগুন ধরিয়ে দিয়ে পালিয়ে যায় বোরকা পড়া কয়েকজন দুর্বৃত্ত। গত ১০ এপ্রিল রাত সাড়ে ৯টার দিকে পাঁচদিন মৃত্যুর সঙ্গে লড়াই করেঢাকা মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালের বার্ন ইউনিটে মারা যান রাফি। ১১ এপ্রিল বিকেলে লাখো মানুষের জানাজার পর সন্ধ্যায় পারিবারিক কবরস্থানে দাফন করা হয় তাকে।

আপনার মতামত লিখুন

ঢাকা,সারাদেশ বিভাগের সর্বোচ্চ পঠিত সংবাদ