শুক্রবার-২১শে জুন, ২০১৯ ইং-৭ই আষাঢ়, ১৪২৬ বঙ্গাব্দ, সময়: রাত ১:১২
ছাতকের গোবিন্দগঞ্জবাসীর সংহতি মানববন্ধন নাবিক কর্মীরহাত হাসপাতালের উদ্যোগে বিনামূল্যে চিকিৎসা শিবির অনুষ্ঠিত মির্জাপুরে ৫৮টি কয়লা তৈরির কারখানা গুড়িয়ে দিয়েছে ভ্রাম্যমাণ আদালত সরকারি কর্মকর্তারা জনগনের সঠিক সেবা না দিলে আইনগত ব্যবস্থা ……… দুদক মহা-পরিচালক ডোমারে মসজিদের ইমাম স্ত্রী সন্তান রেখে অষ্টম শ্রেনীর ছাত্রীকে নিয়ে উধাও, থানায় মামলা। সৈয়দপুরে চার পরিবারকে মেয়রের অনুদান প্রদান পার্বতীপুরে বাল্যবিবাহ বিষয়ক গণশুনানি অনুষ্ঠিত

দ্বিতীয় মেঘনা ও দ্বিতীয় গোমতী সেতু উদ্বোধন করলেন প্রধানমন্ত্রী

মুক্তিনিউজ২৪.কম ডেস্ক:  ঢাকা-চট্টগ্রাম মহাসড়কে দ্বিতীয় মেঘনা সেতু ও দ্বিতীয় গোমতী সেতু উদ্বোধন করেছেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। নতুন দুটি সেতু চালু হওয়ায় ঢাকা-চট্টগ্রাম মহাসড়কে বিশেষ করে ঈদে ঘরমুখো মানুষের যাত্রা আগের তুলনায় আরামদায়ক হবে বলে আশা করছে সরকার। কাঁচপুর সেতুসহ এই দুটি সেতু নির্মাণ প্রকল্পে প্রস্তাবিত ব্যয়ের তুলনায় প্রায় এক হাজার কোটি টাকা কম খরচ হয়েছে।

আজ শনিবার সকাল সাড়ে ১১টায় প্রধানমন্ত্রীর সরকারি বাসভবন গণভবন থেকে ভিডিও কনফারেন্সের মাধ্যমে সেতু দু’টি উদ্বোধন করেন তিনি।

উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে সড়ক পরিবহন ও সেতুমন্ত্রী ওবায়দুল কাদের, মুক্তিযুদ্ধ বিষয়ক মন্ত্রী আ ক ম মোজাম্মেল হক, কৃষিমন্ত্রী ড. আবদুর রাজ্জাক, প্রধানমন্ত্রী কার্যালয়ের ঊর্ধ্বতন কর্মকর্তাসহ সড়ক পরিবহন ও সেতু মন্ত্রণালয়ের সংশ্লিষ্ট কর্মকর্তারা উপস্থিত ছিলেন। অনুষ্ঠানটি পরিচালনা করেন প্রধানমন্ত্রীর কার্যালয়ের মুখ্য সচিব মো. নজিবুর রহমান।

এর আগে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা চলতি বছরের ১৬ মার্চ শীতলক্ষা উপর দ্বিতীয় কাঁচপুর সেতুর উদ্বোধন করেন।

প্রকল্প পরিচালক আবু সালেহ মো. নুরুজ্জামান জানান, জাপানি ঠিকাদারী প্রতিষ্ঠান ওবায়সি কর্পোরেশন, শিমঝু কর্পোরেশন, জেএফএফ কর্পোরেশন ও আইএইচআই ইনফ্রা সিস্টেমস কোম্পানি লিমিটেড ২০১৬ সালের জানুয়ারিতে দ্বিতীয় মেঘনা ও গোমতীর সঙ্গে দ্বিতীয় কাঁচপুর সেতুর কাজ শুরু করে। জানা গেছে, এই তিনটি সেতু নির্মাণে মোট ব্যয় হয়েছে ৮ হাজার ৪৮৭ কোটি টাকা। এর মধ্যে জাপানের জাইকা ৬ হাজার ৪৩০ কোটি টাকা সহায়তা দিয়েছে।

তিনি জানান, এই প্রকল্পে প্রস্তাবিত ব্যয়ের তুলনায় ১ হাজার কোটি টাকা কম খরচ হয়েছে। চুক্তি অনুযায়ী জাপানের প্রতিষ্ঠানগুলো ২০১৬ সালের জানুয়ারিতে কাজ শুরু করে এবং ২০১৯ সালের জুনে কাজ সম্পন্ন করার কথা ছিল। তবে নির্ধারিত সময়ের আগেই প্রকল্পের কাজ শেষ হয়েছে।সূত্র: কালের কন্ঠ

আপনার মতামত লিখুন

জাতীয়,সারাদেশ বিভাগের সর্বোচ্চ পঠিত সংবাদ