বৃহস্পতিবার-২০শে জুন, ২০১৯ ইং-৬ই আষাঢ়, ১৪২৬ বঙ্গাব্দ, সময়: দুপুর ১:০৮
সোহেল তাজের অপহৃত ভাগ্নে উদ্ধার মাদারীপুরের অহিদুল হত্যা : চারজনের যাবজ্জীবন উত্তরার সাতটি অ্যাভিনিউতে বন্ধ হচ্ছে রিকশা-লেগুনা জলবায়ু বাজেটে স্বচ্ছতা ও সুশাসন নিশ্চিত করার দাবি বিদেশে ২১ হাজার বাংলাদেশি শরণার্থী এশিয়া প্যাসিফিকে দ্রুততম প্রবৃদ্ধি বাংলাদেশের, এডিবির প্রতিবেদন পরিবেশ মেলা, বৃক্ষরোপণ অভিযান ও বৃক্ষমেলার উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে প্রধানমন্ত্রী

গৃহবধূর রহস্যজনক মৃত্যু, পরিবারের দাবি শ্বাসরোধে হত্যা

মুক্তিনিউজ২৪.কম ডেস্ক:  দেবীদ্বারে ফরিদা বেগম (৬২) নামে এক গৃহবধূর রহস্যহনক মৃত্যুর ঘটনায় এলাকায় তোলপাড় চলছে। সোমবার দিবাগত রাত ১২টা থেকে মঙ্গলবার সকাল ৬টার মধ্যে যেকোনো সময় এবং উপজেলার ধামতী গ্রামের উত্তরপাড়া ‘খোশকান্দি’র জংসর আলী ভূঞা বাড়িতে এ ঘটনা ঘটে।

স্থানীয়রা জানান, ওই গৃহবধূ সকাল ৬/৭টায় পর্যন্ত ঘরের দরজা না খোলায়, প্রতিবেশীরা তাকে ডাকা-ডাকি করেও কোনো সাড়া পাননি। পরে জানালা দিয়ে চকির একপাশে চিৎ হয়ে পড়ে থাকতে দেখে, ঘরের দরজা ভেঙ্গে প্রবেশ করে তাকে মৃত অবস্থায় দেখতে পান। এ সময় ঘরের এক পাশে সিদকাটা দেখতে পেয়ে স্থানীয়রা পুলিশকে খবর দেন।
পুলিশ গৃহবধূর মরদেহ উদ্ধারের পর ময়না তদন্তের জন্য কুমিল্লা মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালে প্রেরণ করেন। স্থানীয়দের দাবি গৃহবধূকে শ্বাসরুদ্ধ করে হত্যা করা হয়েছে, তার গলায় আঘাতের চিহ্ন ও লালচে দাগ ছিল।

দেবীদ্বার থানার উপ-পরিদর্শক (এস আই) প্রেমধন মজুমদার বলেন, স্থানীয়দের তথ্যমতে গৃহবধূর কোনো শত্রু ছিল না, অর্থ সম্পদও ছিল না, স্বামী নেই, ৫ মেয়ের সবার বিয়ে হয়ে গেছে। মেয়েদের সাহায্য সহায়তায় তার সংসার চলে আসছিল। সম্পদ বলতে মেয়েদের পক্ষ থেকে মায়ের খোঁজ-খবর নেয়ার জন্য একটি মোবাইল সেট ছিল, তার স্বামীর আগের সংসারেও ২ মেয়ে ছিল। তাদের মধ্যে বড় মেয়ে আয়শা এবং আয়শার স্বামী মনিরকে ঘরজামাই হিসেবে নিজ বাড়িতে রাখা হয়েছে।

নিহতের শরীরে কোনো আঘাতের চিহ্ন ছিল না কিন্তু ঘরের এক পাশে সিদ কাটা ছিল, এ সিদ কাটা দিয়ে চোর ঢুকার কোনো ব্যবস্থাও ছিল না। তার মেয়েদের দেয়া মোবাইল সেটটিও পাওয়া যায়নি, যদিও তার মৃত্যুর পর ঘরের দরজা ভেতর দিক থেকে সিটকারি লাগানো ছিল। তার মৃত্যু নিয়ে রহস্য ও মতবিরোধ থাকায় লাশ ময়না তদন্তের জন্য মর্গে পাঠানো হয়েছে। ময়না তদন্তের রিপোর্ট পাওয়ার পরই মৃত্যুর কারণ নিশ্চিতভাবে বলা যাবে। জিজ্ঞাসাবাদের জন্য পরিবারের কয়েকজনকে থানায় আনা হয়েছে।সূত্র: কালের কন্ঠ

আপনার মতামত লিখুন

কুমিল্লা,সারাদেশ বিভাগের সর্বোচ্চ পঠিত সংবাদ