শুক্রবার-১৯শে জুলাই, ২০১৯ ইং-৪ঠা শ্রাবণ, ১৪২৬ বঙ্গাব্দ, সময়: সকাল ১০:০৪
সেবা না পেয়ে ফুলবাড়ী উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সের সরকারি এ্যম্বুলেন্স ভাংচুর। ফুলবাড়ীতে মৎস্য সপ্তাহ উদ্ভোধন। গোবিন্দগঞ্জে মাছ ধরতে গিয়ে নিখোঁজ- ১ ডোমারে স্কুল ছাত্র সুমন নিখোঁজ সন্ধান চায় পরিবার। আওয়ামী লীগের সম্পাদকমণ্ডলীর সভা শনিবার বুবলীই থাকছেন শাকিবের ‘বীর’ ছবির নায়িকা ছাতকে জাতীয় মৎস্য সপ্তাহ’র উদ্বোধন উপলক্ষে র‌্যালী ও আলোচনা সভা

গাইবান্ধায় ঋনের বোঝা সহ্য করতে না পেরে আত্মহত্যা করল স্বর্ণ ব্যবসায়ি

ছাদেকুল ইসলাম রুবেল,গাইবান্ধা প্রতিনিধি ঃ গাইবান্ধা সদর উপজেলার রামচন্দ্রপুর ইউনিয়নের ছোট দূর্গাপুর গ্রামে নেপাল মালাকার (৪০) নামের এক স্বর্ণ অলংকার ব্যবসায়ি গলায় ফাঁস দিয়ে আত্মহত্যা করেছে।

২৯ এপ্রিল সোমবার সকালে ঘুম থেকে উঠে নিজের থাকা ঘরের বাঁশের তীড়ের সাথে গলায় ওড়না পেঁচিয়ে ফাঁস দিয়ে ঝুলে থাকতে দেখলে নেপাল মালাকারের বড় মেয়ে। পরে ওড়না কেটে দিয়ে লাশটি নিচে নামায়।
নেপালের পরিবারের সদস্যরা জানান, নেপাল বিভিন্ন সময়ে অনেক লোকজনের কাছ থেকে টাকা ধার করে জুয়া খেলত এবং ব্যবসায় তেমন উন্নতি না হওয়ায় ও সময় মতো টাকা পরিশোধ করতে পারছিল না । আর এই চাপ সহ্য করতে পারছিলো না বলে সে আত্মহত্যা করেছে এমনটি ধারণা করছিল তার পরিবারের সদস্যরা।
নেপাল ব্যবসায়িক কাজের জন্য দীর্ঘ দিন ধরে তার শ্বশুর বাড়ি এলাকায় বসবাস করছিল, তার আসল বাড়ি গাইবান্ধা জেলার সাদুল্যাপুর উপজেলার , সাদুল্যাপুর ইউনিয়নের মন্দুপুর গ্রামে তার বাবার নাম অরুণ মালাকার।
গাইবান্ধার তুলশি ঘাট বাজারে তার একটি জুয়েলার্সের দোকান আছে। এ ঘটনার পর স্থানীয় ইউনিয়ন ওয়ার্ড সদস্য মোঃ: মোজাম্মেল হক গাইবান্ধা সদর থানা পুলিশকে খবর দেয়। পরে পুলিশ ঘটনাস্থলে এসে লাশটি উদ্ধার করে ময়না তদন্তের জন্য, গাইবান্ধা আধুনিক সদর হাসপাতালের মর্গে প্রেরণ করেন।

আপনার মতামত লিখুন

রংপুর,সারাদেশ বিভাগের সর্বোচ্চ পঠিত সংবাদ