শনিবার-২৫শে মে, ২০১৯ ইং-১১ই জ্যৈষ্ঠ, ১৪২৬ বঙ্গাব্দ, সময়: রাত ৩:৩৩
কলেজে ভর্তির আবেদন এখনও করেননি আড়াই লাখ শিক্ষার্থী ডোমারে আওয়ামীলীগের ইফতার মাহফিল জলঢাকায় সড়কে ধান ও খড় শুকানোর ধুমপরেছে- চলাচলে জনগনের দূর্ভোগ বিপুল জয়ে মোদিকে বিএনপির অভিনন্দন বিপুল জয়ে মোদিকে বিশ্বনেতাদের অভিনন্দন ২৫ জেলায় চলছে প্রথম ধাপের সহকারী শিক্ষক নিয়োগ পরীক্ষা মুক্তিযোদ্ধাদের ভাতা বাড়ছে

কলাপাড়ায় গৃহবধুর লাশ উদ্ধার, জিজ্ঞাসাবাদের জন্য শাশুড়ী ও দেবর আটক।।

কলাপাড়া(পটুয়াখালী)প্রতিনিধি।।
পটুয়াখালীর কলাপাড়ার মিঠাগঞ্জ ইউনিয়নের আরামগঞ্জ গ্রাম থেকে দুই সন্তানের জননী ফাতেমা বেগম(২৪) এক গৃহবধুর লাশ উদ্ধার করেছে পুলিশ। সোমবার দুপুরে স্থানীয়দের কাছ থেকে খবর পেয়ে পুলিশ লাশ উধার করে। নিহতের শ্বশুড়বাড়ির স্বজনরা পুলিশকে জানায় ফাতেমা গলায় ফাঁস দিয়ে আত্মহত্যা করেছে। পুলিশ এ ঘটনায় জিজ্ঞাসাবাদের জন্য গৃহবধুর শাশুড়ী ফাহিমা বেগম ও দেবর রিপন মাতুব্বরকে আটক করেছে।
পুলিশ জানায়, আরামগঞ্জ গ্রামের জুয়েল মাতুব্বরের স্ত্রী ফাতেমা বেগম গলায় ফাঁস দিয়ে আত্মহত্যা করেছে খবর পেয়ে ঘটনাস্থলে গিয়ে লাশ বিছানায় শোয়ানো অবস্থায় দেখতে পান। ফাতিমা গলায় আঘাতের চিহ্ন রয়েছে। কী কারনে ফাতেমা আত্মহত্যা করেছে তা জানাতে পারেনি স্বজনরা।
গৃহবধুর চাচা মো. সোলায়মান জানান, ফাতিমা আত্মহত্যা করেছে খবর পেয়ে তারা ঘটনাস্থলে যান। কিন্তু আত্মহত্যার কারন কেউ জানায়নি তাদের।
ফাতেমার নানা গিয়াস উদ্দিন জানান, ফাতেমা দেবর রিপন তার মেয়েকে ফোন করে জানিয়েছে ফাতেমা রান্না করতে গিয়ে অসুস্থ্য হয়ে পড়ে আর জ্ঞান ফেরেনি। কিন্তু ঘটনাস্থলে এসে শুনতে পান গলায় ফাঁস দিয়ে আত্মহত্যা করেছে। এই রিপনের সাথে রোববার ফাতেমার ঝগড়া হয়েছে বলে তিনি জানান।
কলাপাড়া থানার ওসি মো. মনিরুল ইসলাম জানান, লাশ উদ্ধার করে ময়নাতদন্তের জন্য পটুয়াখালী মর্গে পাঠানোর উদ্যোগ নেয়া হয়েছে এবং জিজ্ঞাসাবাদের জন্য শ্বাশুড়ী ও দেবরকে আটক করা হয়েছে। এ ঘটনায় মামলা দায়েরের প্রস্তুতি চলছে।

আপনার মতামত লিখুন

বরিশাল,সারাদেশ বিভাগের সর্বোচ্চ পঠিত সংবাদ