শনিবার-২৫শে মে, ২০১৯ ইং-১১ই জ্যৈষ্ঠ, ১৪২৬ বঙ্গাব্দ, সময়: রাত ৩:১২
কলেজে ভর্তির আবেদন এখনও করেননি আড়াই লাখ শিক্ষার্থী ডোমারে আওয়ামীলীগের ইফতার মাহফিল জলঢাকায় সড়কে ধান ও খড় শুকানোর ধুমপরেছে- চলাচলে জনগনের দূর্ভোগ বিপুল জয়ে মোদিকে বিএনপির অভিনন্দন বিপুল জয়ে মোদিকে বিশ্বনেতাদের অভিনন্দন ২৫ জেলায় চলছে প্রথম ধাপের সহকারী শিক্ষক নিয়োগ পরীক্ষা মুক্তিযোদ্ধাদের ভাতা বাড়ছে

কমলগঞ্জে শ্বাশুড়িকে গলা টিপে হত্যা

মুক্তিনিউজ২৪.কম ডেস্ক: মৌলভীবাজারের কমলগঞ্জ উপজেলার শমশেরনগর ইউনিয়নের উত্তর সতিঝিরগাঁও গ্রামে নির্ঝন একা বসত বাড়িতে গফুরুন বেগম (৫৫) নামে এক নারীকে গলা টিপে হত্যা করা হয়েছে। সোমবার দিবাগত রাতে নারীর নিজ বাড়িতে এ ঘটনা ঘটে। প্রাথমিকভাবে শ্বাশুড়ি হত্যায় মেয়ের জামাই জড়িত বলে স্থানীয়ভাবে অভিযোগ উঠেছে। এ ঘটনায় পুলিশ অভিযুক্ত মেয়ের জামাইসহ ৪ জনকে জিজ্ঞাসাবাদের জন্য আটক করেছে।

গ্রামবাসী সূত্রে জানা যায়, নিহত গফুরুন বেগমের ২ মেয়ে ও ১ ছেলে রয়েছে। এর মধ্যে মেয়ে সালমা বেগম ও ছেলে জুনেদ আলী প্রবাসে রয়েছে। কমলগঞ্জ উপজেলার ইসলামপুর ইউনিয়নের দক্ষিণ কানাইদাশী গ্রামের মাহমুদ মিয়ার (৩৫) সঙ্গে গফুরুন বেগমের মেয়ে সালমা বেগমকে বিয়ে দেওয়া হয়। বিয়ের পর তাদের এক ছেলে সন্তান জন্ম হয়। গফুরুন বেগম তার নাতি সানিকে নিজের কাছে রেখে প্রায় দুই বছর পূর্বে মেয়ে সালমা বেগমকে বিদেশে পাঠিয়ে দেন। এরপর মাহমুদ আলী নিজের স্ত্রীকে বিদেশে পাঠানো নিয়ে বিভিন্ন সময়ে শ্বাশুড়ির সঙ্গে দেন দরবার হতো। পারিবারিক কলহের জের ধরে মাহমুদ মিয়া (৩৫) সোমবার দিবাগত রাতে তার শ্বাশুড়িকে শ্বাসরুদ্ধ করে হত্যার পর পালিয়ে গেছে। নিহতের ভাই আব্দুল আলী মঙ্গলবার সকালে সানিকে মক্তবে পাঠানোর জন্য ডাকতে গেলে ঘটনাটি দেখতে পান।

খবর পেয়ে সিনিয়র সহকারী পুলিশ সুপার (কমলগঞ্জ-শ্রীমঙ্গল সার্কেল) আশফাকুজ্জামান, কমলগঞ্জ থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা মো. আরিফুর রহমান, শমশেরনগর ফাঁড়ির ইনচার্জ (তদন্ত) অরূপ কুমার চৌধুরী, কমলগঞ্জ থানার উপ-পরিদর্শক ফরিদ মিয়াসহ পুলিশের একটি দল ঘটনাস্থল তদন্ত করেন। এ সময় অভিযুক্ত জামাতার ৭ বছর বয়সের ছেলে সানি জানায়, তার নানী (গফুরুন বেগম)-কে তার বাবা মাহমুদ আলী মারধর করার পর তার কাছে ২০ টাকা দিয়ে চলে যান। নিহত বৃদ্ধার ভাই আব্দুল আলী বলেন, মেয়ের জামাই তার পরিকল্পিতভাবে শ্বাশুড়িকে হত্যা করেছে। এ ঘটনায় মেয়ের জামাই মাহমুদ মিয়াসহ জিজ্ঞাসাবাদের জন্য পাঁচজনকে আটক করা হয়েছে। তবে পুলিশ তদন্তের স্বার্থে সবকিছু বলতে অপারগতা প্রকাশ করছে।

শমশেরনগর ইউনিয়নের স্থানীয় ওয়ার্ড সদস্য সতিঝিরগাঁও গ্রামে রুহেল আহমদ চৌধুরী বলেন, এটা একটি পরিকল্পিত হত্যাকাণ্ড। এ ঘটনার সুষ্ঠু বিচার দাবি করে প্রকৃত অপরাধীদের খুঁজে বের করে দৃষ্টান্তমূলক শাস্তির দাবি জানান।

কমলগঞ্জ থানার ওসি মোহাম্মদ আরিফুর রহমান মঙ্গলবার রাতে কালের কণ্ঠকে জানান, লাশের গলায় আঘাতের চিহ্ন পাওয়া গেছে। ময়না তদন্তের জন্য লাশ মৌলভীবাজার সদর হাসপাতাল মর্গে প্রেরণ করা হয়েছে। জামাইসহ ৪ জনকে জিজ্ঞাসাবাদের জন্য আটক করা হয়েছে। এ ঘটনায় মামলার প্রক্রিয়া চলছে। পুলিশি তদন্ত শেষে প্রকৃত ঘটনা জানা যাবে। সূত্র: কালের কন্ঠ

আপনার মতামত লিখুন

সারাদেশ,সিলেট বিভাগের সর্বোচ্চ পঠিত সংবাদ