শনিবার-২৫শে মে, ২০১৯ ইং-১১ই জ্যৈষ্ঠ, ১৪২৬ বঙ্গাব্দ, সময়: রাত ২:৪৮
কলেজে ভর্তির আবেদন এখনও করেননি আড়াই লাখ শিক্ষার্থী ডোমারে আওয়ামীলীগের ইফতার মাহফিল জলঢাকায় সড়কে ধান ও খড় শুকানোর ধুমপরেছে- চলাচলে জনগনের দূর্ভোগ বিপুল জয়ে মোদিকে বিএনপির অভিনন্দন বিপুল জয়ে মোদিকে বিশ্বনেতাদের অভিনন্দন ২৫ জেলায় চলছে প্রথম ধাপের সহকারী শিক্ষক নিয়োগ পরীক্ষা মুক্তিযোদ্ধাদের ভাতা বাড়ছে

এসএসসি পরীক্ষার্থীকে ধর্ষণের চেষ্টা, অতঃপর …

মুক্তিনিউজ২৪.কম ডেস্ক: মৌলভীবাজারের জুড়ী উপজেলায় গোয়ালবাড়ি ইউনিয়নে ১৫ জানুয়ারি মঙ্গলবার সকালে স্কুল যাওয়ার সময় এসএসসি পরীক্ষার্থী এক স্কুলছাত্রীকে ধর্ষণের চেষ্টা করেছে হেলাল উদ্দিন (৩৫) নামক এক বখাটে। গোয়ালবাড়ি ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান শাহাব উদ্দিন লেমনের সহায়তায় বখাটে হেলালকে আটক করতে সক্ষম হয় পুলিশ। স্কুলছাত্রী বর্তমানে কুলাউড়া হাসপাতালে চিকিৎসাধীন আছে।

স্কুলছাত্রীর পরিবারের লোকজন ও পুলিশ সূত্রে জানা যায়, প্রতিদিনের মতো সকালে কচুরগুল উচ্চ বিদ্যালয়ের ২০১৯ সালের এসএসসি পরীক্ষার্থী সকাল আনুমানিক সাড়ে ৯টায় স্কুলে যাচ্ছিল। কচুরগুল উচ্চ বিদ্যালয়টি পাহাড়ী জনপদে হওয়ায় ওই শিক্ষার্থী কচুরগুল গ্রামের হেলাল উদ্দিনের বাড়ির পাশ দিয়ে যাচ্ছিল। বখাটে হেলাল উদ্দিন বিবাহিত হলেও তার স্ত্রী সন্তান বাড়িতে ছিল না। স্ত্রীর ব্লাউজ সেলাই করতে টেইলারের কাছে কাপড় দিবে বলে ওই স্কুলছাত্রী বাড়িতে নিয়ে যায়। বাড়িতে নিয়ে কৌশলে ঘরের দরজা বন্ধ করে ধর্ষণের চেষ্টা চালায়। পরনের কামিজ খুলে ফেলে। এ সময় ওই শিক্ষার্থী চিৎকার করে ঘরের দরজা খুলে পার্শ্ববর্তী নিজাম উদ্দিনের বাড়িতে আশ্রয় নেয়।

ঘটনা শুনে স্থানীয় লোকজন বখাটে হেলাল উদ্দিনকে আটক করলেও সে কৌশলে পালিয়ে যায়। পরে স্থানীয় গোয়ালবাড়ি ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান শাহাব উদ্দিন লেমনের সহায়তায় পুলিশ বখাটেকে আটক করতে সক্ষম হয়।

জুড়ী থানায় অফিসার ইনচার্জ জাহাঙ্গীর আলম সরকার ঘটনার সত্যতা স্বীকার করে  ঘটনাকারী হেলাল উদ্দিন কচুরগুল গ্রামের মঈন উদ্দিনের ছেলে। তার বিরুদ্ধে আইনানুগ ব্যবস্থা নেওয়া হবে।

সূত্র:কালের কন্ঠ

আপনার মতামত লিখুন

সারাদেশ,সিলেট বিভাগের সর্বোচ্চ পঠিত সংবাদ